আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে চাচাতো ভাইকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ধামরাই ( ঢাকা) প্রতিনিধি:

ঢাকার ধামরাইয়ে জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মোঃ ইস্রাফিলকে (৬৫) পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে চাচাত ভাই আব্দুল মান্নানসহ একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর ছেলে মাসুদ রানা বাদী হয়ে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালে ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গত শনিবার (১২ ফ্রেরুয়ারি) সকাল ১১টার সময় ধামরাই উপজেলার কুশুরা ইউনিয়নের বান্নল গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। আহত ইস্রাফিলের বাড়ি উপজেলার বান্নল গ্রামের মৃত শেখ মাদু বেপারির ছেলে।

অভিযুক্তরা হলেন, মোঃ সানোয়ার হোসেন (সানু), মোঃ জুয়েল উভয় পিতা মৃত আব্দুল গনি, আব্দুল মান্নান পিতা মৃত মুস্তি সিকদার, মোঃ শহিদুল ইসলাম পিতা মোঃ লেবু মিয়া, মমিন হোসেন পিতা আব্দুল মান্নান, মোঃ শওকত হোসেন পিতা শুকুর আলী, মোঃ আবুল হোসেন পিতা আব্দুল মজিদ।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ঢাকা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে ১নং আদালতের পেশকার মোঃ মান্নান ও আশুলিয়া সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের নকলনবিশ মোঃ সানোয়ারদের সঙ্গে দীর্ঘদিন জমিজমা নিয়ে ইস্ররাফিলের বিরোধ চলছিল। একে কেন্দ্র করে শনিবার সকাল ১১ টার সময় পূর্বপরিকল্পিতভাবে চাপাতি, ছ্যান, দা এবং লোহার রড নিয়ে বাড়ির পাশে সরিষার ক্ষেতে কাজ করার সময় ইস্রাফিলের উপর হামলা চালিয়ে তার দুটি পা কুপিয়ে এবং লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এই সময় ইস্রাফিলের ছেলে মাসুদ ও তার মা এগিয়ে এলে তাদেরকে পিটিয়ে আহত করা হয়। এরপর তাদের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে অভিযুক্তরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় ইস্রাফিলকে উদ্ধার করে ধামরাই সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার পায়ে ৪০টি সেলাই করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত ডাক্তার।

প্রত্যক্ষদর্শী মোঃ সাগর আলী বলেন, জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে আব্দুল মান্নান ও সানোয়ারসহ তার লোকজন নিয়ে ইস্রাফিল এর উপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে এবং পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। পরে তাদের ডাক-চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে এলে মান্নানের লোকজন দৌড়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ইস্রাফিলের ছেলে মোঃ মাসুদ রানা বলেন, আব্দুল মান্নান কোর্টে চাকরি করেন বলে তার অনেক ক্ষমতা। সে বলে তোদের মতো দুই একজন মেরে ফেললে কী হবে। আমার কিছুই করতে পারবি না তোরা। এছাড়া সানোয়ার অনেক টাকা পয়সার মালিক। সে বলে তোদের মারলে সোয়া সের লবণের দাম মাত্র। এরপর ওরা আমার বাবাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এর সঠিক বিচার চাই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ সজিব বলেন, বান্নল গ্রামে জমির বিরোধকে কেন্দ্র করে একজনকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পেয়েছি। এবিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত সাপেক্ষে এর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সিরাজগঞ্জে চার মণ গাঁজাসহ আটক চার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

সিরাজগঞ্জে ৪ মণ গাঁজাসহ চারজনকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ জুলহাজ উদ্দীন জানান, মঙ্গলবার ভোরে লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা থেকে একটি ট্রাক পাবনা, সিরাজগঞ্জ আসার পথে হাটিকুমরুল মহাসড়কে অভিযান চালিয়ে  ট্রাক থেকে ৪ মন গাঁজা সহ ৪ জনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

আটককৃতরা লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার বাড়াইপাড়া কালিবাড়ী গ্রামের আতিকুল ইসলাম (৪০), নারায়ণগঞ্জ জেলা সদরের সৈয়দপুর টানবাজার রেলবাগান এলাকার অপু মিয়া (৩৩), সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোড়াচরা পূর্বপাড়া গ্রামের  নাজমুল শেখ (২৬) ও কামারখন্দ উপজেলার কর্ণসূতী গ্রামের আব্দুল লতিফ শেখ (৫১)।

আটক আতিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় ৭টি মাদক মামলাসহ ৮টি ও মো. আব্দুল লতিফ শেখের বিরুদ্ধে ২টি মাদক মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিউজ ট্যাগ: সিরাজগঞ্জ

আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




কুষ্টিয়ায় একই রশিতে ঝুলছিল পিতা-পুত্রের লাশ

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রফিকুল ইসলাম, কুষ্টিয়া

Image

কুষ্টিয়ায় এক রশিতে পিতা-পুত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে জেলা শহরের মঙ্গলবাড়িয়া এলাকার ভাড়া বাসা থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মরদেহ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মৃত ব্যক্তিরা হলেনকুষ্টিয়া পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড মঙ্গলবাড়িয়া এলাকার মধু (৪২) এবং তার একমাত্র শিশু পুত্র মুগ্ধ (৭)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরের দিকে দাম্পত্য কলহের জের ধরে শিশুপুত্র মুগ্ধকে হত্যা করে পরে নিজে গলায় ফাঁস লাগান বাবা। এ সময় তার স্ত্রী শেফালী বাবার বাড়িতে ছিলেন। দুপুরের দিকে বাবার বাড়ি থেকে বাসায় এসে ঘরে দুজনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে পিতা-পুত্রের মরদেহ উদ্ধার করে।

মধুর স্ত্রী শেফালী খাতুন বলেন, শনিবার সকালে বাবার বাড়ি থেকে ছেলে মুগ্ধকে স্কুলে ভর্তি করার কথা বলে নিয়ে আমার স্বামী বাসায় আসে। এরপর দুপুরে অনেকবার কল করলেও সে রিসিভ করেনি। পরে বিকেলের দিকে বাবার বাড়ি থেকে বাসায় এসে দেখি দরজা-জানালা বন্ধ। পরে স্থানীয়রা জানালা ভেঙে দেখে দুজনের মরদেহ ঝুলছে। কী কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে তা জানি না।

কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল রানা জানান, এক রশিতে পিতাপুত্রের ঝুলন্ত লাশের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




দেশের কল্যাণ ও শান্তি কামনায় শেষ হলো বিশ্ব ইজতেমা

প্রকাশিত:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। মোনাজাতে দেশের কল্যাণ, দুনিয়া ও আখেরাতের শান্তি কামনা করা হয়। মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহৎ জমায়েতে আল্লাহর ক্ষমার আশায় আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে টঙ্গীর ইজতেমা ময়দান।

আজ রবিবার বেলা ১১টা ১৭ মিনিটে আখেরি মোনাজাত শুরু হয় এবং ১১টা ৪৩ মিনিটে সময় শেষ হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন ভারতের মাওলানা সাদ কান্দলভির বড় ছেলে মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ। সেই মোনাজাত বাংলায় তরজমা করেন বাংলাদেশের তাবলিগের মুরুব্বি মাওলানা মনির বিন ইউসুফ। আজকের আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হলো এবারের বিশ্ব ইজতেমা।

এর আগে ফজরের নামাজের পর থেকে চলে ধর্মীয় বয়ান। আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ভোর থেকে মুসল্লিরা দলে দলে আসতে শুরু করেন। অনেকেই মধ্য রাতে রওনা হয়ে ফজর নামাজে অংশ নেন। ১৬০ একরের মূল ময়দান ছাপিয়ে আশেপাশের সড়ক মহাসড়ক ও ফুটপাতে অবস্থান নেন সাধারণ মানুষ। অনেকে মূল মাঠে যেতে না পেরে দাঁড়িয়ে বা বসে মোনাজাতে অংশ নেন। দু-হাত তুলে ফরিয়াদ করেন মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে বিশেষ বাস ও ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া মোনাজাতে মুসল্লিদের বাড়তি চাপ সামাল দিতে বিশেষ ট্রাফিক পরিকল্পনা নিয়েছে পুলিশ।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




নিজেকে এতটা ফিট রেখেছেন কীভাবে, জানালেন দেবলীনা

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

আমি ভীষণ ভাতখোর। জিমে আমার বলাই রয়েছে, যত খাটতে বলবে খাটব। কিন্তু খাওয়া নিয়ে অত বিধিনিষেধ মানতে পারব না। আমরা তো ছোট থেকে ভাত, ঘি, আলু-সিদ্ধ খেয়েই বড় হয়েছি। এখন সেই খাবারগুলোকে ডায়েট থেকে বাদ দেওয়ায় বিশ্বাসী নই আমি। বর্তমানে প্রতিদিন দুপুরে ভাতের সঙ্গে পাঁঠার মাংস খাই। খাদ্যাভ্যাস খুব একটা পরিবর্তন না করেও এভাবেই নিজেকে ফিট রাখার রহস্য ফাঁস করলেন ভারতীয় অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার।

নিজের ওজন কমিয়ে অনুসারীদের কাছে আদর্শ হয়ে ওঠেছেন এ অভিনেত্রী। এমন পরিবর্তন তার একাল-সেকালের ছবি দেখলেই বোঝা যায়। মূলত অভিনয়ের কাজের শত ব্যস্ততা সামলেও অভ্যাস পরিবর্তনেই এসেছে তার এমন সাফল্য। এক সাক্ষাৎকারে এ অভিনেত্রী ঠিক এমনটাই জানিয়েছেন।

দেবলীনা জানিয়েছেন, খাদ্যতালিকায় দীর্ঘ দিনের অভ্যাস পরিবর্তন করা কঠিন। ভাত না খেয়ে আমি থাকতে পারি না। যদি ২ দিন ভাত না খাই, দেখেছি শরীরে বিভিন্ন সমস্যা শুরু হয়ে যায়। দিনের শুরু করে থাকি দুধ-চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি দিয়ে। তারপর জিমে ওয়ার্ক আউটে যাই।

জানালেন, সপ্তাহের সাত দিন ১ ঘণ্টা ওয়েট ট্রেনিং করে থাকি। তারপরে, আধ ঘণ্টা কার্ডিও। হেঁটেই জিমে যাই। এতে কার্ডিও সময়টা বাঁচে। এখন শহরজুড়ে বিভিন্ন জায়গায় ম্যারাথন হচ্ছে। তাতে অংশ নেই। ফলে কার্ডিও আমার সেখানেই হয়ে যায়।

নিজেকে ফিট রাখতে বাড়ির খাবার ভরসা জানিয়ে তিনি বলেন, শুটিং চলাকালেও বাড়ির খাবার খাওয়ার চেষ্টা করি। এতে শরীরও ভালো থাকে। অনেকের বিশ্বাস না হলেও প্রতিদিন দুপুরে ভাতের সঙ্গে অল্প পরিমাণে পাঁঠার মাংস খাই। এ ছাড়াও থাকে একটু সবজি। যদিও তিনি মাছ একদমই খান না। মুরগির মাংসও খুব একটা পছন্দ করেন না।

এতসব খাবার খেয়েও ফিট থাকার কৌশল জানাতে গিয়ে এ অভিনেত্রী বলেন, জিমে ঘাম ঝরানো গেলে খাওয়া যেতেই পারে। প্রায়ই মিষ্টি খাওয়া হয়। মাঝেমধ্যে বিয়েবাড়ির আমন্ত্রণে চিট-ডে হয়ে যাই বলেও জানান তিনি।

রাতের খাবার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাতের খাবার হেলদি এবং অল্প খেয়ে থাকি। কোনোদিন চিকেন বা কোনোদিন সবজি দিয়ে হেলদি নুডলস। চেষ্টা করি রাতের খাবারটা ৯টার মধ্যে খেয়ে নিতে।

ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ওজন বেশি থাকলেও আমার নাচ করতে কখনো সমস্যা হয়নি। অভিনয়ের জগতে এসেও ওজন কামানোর প্রয়োজন মনে হয়নি। তবে নিজেকে নিয়ে আরও আত্মবিশ্বাসী হওয়ার ইচ্ছে জাগে।

নিউজ ট্যাগ: দেবলীনা কুমার

আরও খবর
ফের বিয়ে করছেন অনুপম রায়, পাত্রী কে?

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




মধ্যরাত থেকে ইজতেমার আশপাশে গণপরিবহন বন্ধ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে শনিবার মধ্যরাত থেকে টঙ্গী ও এর আশপাশের এলাকায় যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিশ্ব ইজতেমার ময়দানের উত্তর-পশ্চিম পাশে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অস্থায়ী নিয়ন্ত্রক কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মাহবুব আলম এসব তথ্য জানান।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কমিশনার বলেন, প্রথম পর্বের মতো এই পর্বেও ৬ হাজার পুলিশ সদস্য মোতায়েন রয়েছে। পাশাপাশি পুলিশ র‍্যাব, টুরিস্ট পুলিশ, শিল্পপুলিশ, নৌ-পুলিশসহ সব বাহিনী আগের মতোই মোতায়েন আছে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন কমিশনার আরও বলেন, আজ মধ্যরাত থেকে টঙ্গী-কামারপাড়া রোড, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গী থেকে গাজীপুরের ভোগরা বাইপাস পর্যন্ত এবং আবদুল্লাহপুর থেকে আশুলিয়ার বাইপাইল পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া ময়মনসিংহ ও গাজীপুরগামী যানবাহনগুলোকে গাবতলী দিয়ে কোনাবাড়ি হয়ে এবং ময়মনসিংহ থেকে ঢাকাগামী যানবাহনগুলোকে ভোগরা বাইপাস দিয়ে তিনশ ফিট সড়ক ব্যবহার করে চলাচল করতে বলা হয়েছে। এ সময় এসব সড়ক হয়ে কোনো পণ্যবাহী গাড়ি যান চলতে দেওয়া হবে না। তবে ইজতেমা সংশ্লিষ্ট সব ধরনের যান চলাচল স্বাভাবিক থাকবে।

আগামীকাল রোববার সকাল ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্য দিয়ে শেষ হতে যাচ্ছে ৫৭ তম বিশ্ব ইজতেমার এবারের আসর।

নিউজ ট্যাগ: বিশ্ব ইজতেমা

আরও খবর