আজঃ বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

ইসরায়েলির মিসাইল হামলায় সিরিয়ায় তিনজন নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কাছে ইসরায়েলের সারফেস টু সারফেস ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় তিনজন নিহত হয়েছে। শুক্রবার (২০ মে) রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম সানা একটি সামরিক সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে। সামরিক সূত্র জানায়, মিসাইলগুলো ইসরায়েল অধিকৃত গোলান এলাকা থেকে ছোড়া হয়েছে এবং সিরিয়ার বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা দ্বারা প্রতিহত করা হয়েছে। 

সিরিয়ান অবসারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস জানায়, ৩ জন সামরিক কর্মকর্তা ছাড়াও ৪ জন বিমান ক্রু এ হামলায় আহত হয়েছে। সংস্থাটি আরও জানায়, হামলাটি সিরিয়ার বিমানবন্দরের খুব কাছে ইরানি গোলাবারুদের ডিপোগুলোকে লক্ষ্য করে করা হয়েছে এবং সেখানে আগুন জ্বলতে দেখা গেছে।

এর আগে সর্বশেষ ১৩ মে ইসরায়েল সিরিয়ায় হামলা চালায় যেখানে ৫ জন নিহত হয়। যদিও ইসরায়েল তাদের হামলার বিষয়ে খুব কম মন্তব্য করে কিন্তু তারা এ পর্যন্ত সিরিয়ায় চালানো শত শত হামলার কথা স্বীকার করেছে।


আরও খবর
সাত দশক পর পাকিস্তানে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রাশিয়াকে ‘জুলফিকার’ ক্ষেপণাস্ত্র দিচ্ছে ইরান

বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিষাক্ত মাশরুম চেনার উপায়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

আমাদের দেশে সাধারণত কৌটাজাত মাশরুমের পাশাপাশি দেশীয়ভাবে প্রস্তুত প্যাকেটজাত মাশরুমও পাওয়া যায়। বাজার থেকে কেনার আগে এসব মাশরুম আসলেই খাওয়ার যোগ্য কিনা তা বোঝার জন্য রয়েছে কয়েকটি উপায়।

খাদ্য ও পুষ্টিবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে বিষাক্ত মাশরুম চেনার কয়েকটি পন্থা এখানে দেওয়া হল।

পুরানো মাশরুম: বলার অপেক্ষাই রাখে না, পঁচা বা পুরানো মাশরুম কেউ কিনতে যাবে। তবে কিছু বিষয় দেখতে হবে যেমন- মাশরুম হতে হবে তাজা, মোটামুটি শক্ত এবং বিশেষ করে থাকবে আস্ত। কোনো পোকা কিংবা প্রাণীর কামড়ে দেওয়া মাশরুম কেনা যাবে না।

ছাতার মতো মাশরুম: মাশরুম কথাটা শুনলেই সবার মনে প্রথমেই ভেসে উঠে ব্যাঙের ছাতা হিসেবে পরিচিত মাশরুমের কথা। তবে এই মাশরুম খাওয়া যায় না, বিষাক্ত। ছাতার মতো আকৃতির পাশাপাশি এর কাণ্ডে থাকে একটি সাদা রিং। পৃথিবীর সবচাইতে বিষাক্ত মাশরুম সম্ভবত আমানিটাস মাশরুম। এই মাশরুমগুলো পুরানো হলে বাদামি রং ধারণ করে।

মোরেল মাশরুম: এই মাশরুমের উপরের অংশটি হয় কুঁচকানো এবং লম্বাটে। তবে মাশরুম পুরানো হলে বা শুকিয়ে গেলেও উপরের অংশ কুঁচকে যায়। তাই আসল মোরেল মাশরুম চেনা একটু কঠিন। মাশরুমের উপরের অংশ যদি এলোমেলোভাবে চুপসে থাকে এবং তা দেখতে যদি আলগা টুপির মতো মনে হয় তবে ওই মাশরুম খাওয়া যাবে না।

আরও উপায়: মিষ্টি গন্ধযুক্ত মাশরুম, জ্যাক ও ল্যানটার্ন বা কমলা রংয়ের মাশরুম এবং হালকা বাদামি রংয়ের মাশরুম খাওয়ার যোগ্য নয়।

বাজার থেকে খোলা মাশরুম কেনার জন্য কিংবা প্রকৃতি থেকে তা সংগ্রহের জন্য এবিষয়ে অভিজ্ঞতা থাকা জরুরি। তাই অভিজ্ঞতা না থাকলে কৌটাজাত মাশরুম কেনাই নিরাপদ। আর কৌটার মাশরুম কেনার সময় অবশ্যই মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ দেখে নিতে হবে। অনেক সময় কৌটাজাত মাশরুম সবটাই ব্যবহার করা হয়; বাড়তি মাশরুমগুলো ফ্রিজারে রেখে দেওয়া হয়।

তবে ফ্রিজে রাখা বাড়তি মাশরুমের গায়ে যদি পিচ্ছিল পানীয় ভাব দেখা দেয় এবং কালচে রং ধরা শুরু করে তবে অবশ্যই সেগুলো ফেলে দিতে হবে। এরকম দেখা দিলে সহজেই বুঝে নিতে হবে মাশরুমগুলো নষ্ট হতে শুরু করেছে।


আরও খবর



দেশের প্রয়োজনে সীমান্তে পুলিশের প্রতিটি সদস্য প্রস্তুত : আইজিপি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সঙ্গে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী পুলিশ কাজ করছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

তিনি বলেছেন, দেশের প্রয়োজনে দায়িত্ব পালনের জন্য বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি সদস্য প্রস্তুত আছে।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির সমাবেশে গুরুতর আহত রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পুলিশ সদস্য রাজ্জাককে দেখতে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। ভারতে উন্নত চিকিৎসা শেষে রাজ্জাককে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘুমধুম সীমান্ত এলাকার পরিস্থিতি ভয়াবহ। স্থানীয় লোকজন আতঙ্কে আছে, সীমান্ত এলাকায় পুলিশ কী ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে জানতে চাইলে আইজিপি বলেন, এখন পর্যন্ত আহত হয়ে যারা আমাদের দেশে এসেছেন তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা সরকার করছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ, বিজিবি ও প্রশাসন সবাই মিলে সরকারের নির্দেশনার আলোকে দায়িত্ব পালন করছে। বাংলাদেশ পুলিশের প্রতিটি সদস্য প্রস্তুত আছে দেশের প্রয়োজনে দায়িত্ব পালনের জন্য।

সীমান্ত এলাকায় মর্টার শেলের আঘাতে দুজন নিহত হয়েছে, এখন তারা কাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করবে? জানতে চাইলে আইজিপি বলেন, কে মর্টার শেল নিক্ষেপ করেছে তা এখনো সুনিশ্চিত না। এ ঘটনায় আমরা একটা মামলা নিয়েছি। মামলার আসামি অজ্ঞাত। তদন্তে যাদের নাম আসবে পরবর্তী সময়ে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সীমান্তের বর্তমান পরিস্থিতিতে পুলিশ সদস্যদের প্রতি কী নির্দেশনা আছে জানতে চাইলে পুলিশপ্রধান বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আছে। জেলা পুলিশসহ এপিবিএন সতর্ক আছে। সীমান্তে বিজিবি দায়িত্ব পালন করছে। তাদের দায়িত্ব পালনে যে সহযোগিতা চাচ্ছে আমরা সে সহযোগিতা দিচ্ছি। স্থানীয় প্রশাসন, পুলিশ, বিজিবি ও গোয়েন্দা সংস্থা মিলে যে ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, বর্তমান সীমান্ত পরিস্থিতিতে রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় নজরদারী বৃদ্ধি করা হয়েছে। এসব এলাকায় পুলিশের উপস্থিতি বৃদ্ধিসহ পেট্রোল বৃদ্ধি করা হয়েছে। সীমান্ত এলাকায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশসহ সব সংশ্লিষ্ট সংস্থা দায়িত্ব পালন করছে।

এসময় পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) প্রধান মনিরুল ইসলাম ও ডিএমপি কমিশনার হাবিবুর রহমানসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
দেশে ৩০ শতাংশ খাদ্য অপচয় হয়: কৃষিমন্ত্রী

বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বিজিবি সদস্য হত্যার ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করেছে ভারত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

বেনাপোল সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) গুলিতে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যের মৃত্যুর ঘটনায় আনুষ্ঠানিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সেহেলী সাবরিন বলেন, ভারত ও বাংলাদেশ উভয়ই ভবিষ্যতে সীমান্তে এ ধরনের ঘটনা মোকাবিলা ও প্রতিরোধে সহযোগিতা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

এর আগে ২৩ জানুয়ারি বিএসএফ সদস্যদের গুলিতে আহত বিজিবি সদস্য রইস উদ্দিন ভারতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আরও উল্লেখ করেন, আগামী ৭ থেকে ৯ ফেব্রুয়ারি ভারতে প্রথম দ্বিপাক্ষিক সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাসান মাহমুদের।

এ সফরে বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে আলোচনার পাশাপাশি তিস্তার পানিবণ্টন নিয়ে আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

সেহেলী সাবরিন বলেন, সফরে বাংলাদেশের তিস্তা প্রকল্পে চীনের বিনিয়োগ নিয়ে আলোচনা হবে কি না তা নিশ্চিত নয়।

তবে ভারত এ বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করলে সফরকালে এ নিয়ে আলোচনা হতে পারে বলে উল্লেখ করেন তিনি।


আরও খবর
দেশে ৩০ শতাংশ খাদ্য অপচয় হয়: কৃষিমন্ত্রী

বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




উপজেলা নির্বাচন ২০২৪:

তৎপর হয়ে উঠেছেনে সিলেটের সম্ভাব্য প্রার্থীরা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
সিলেট প্রতিনিধি

Image

আগামী এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে সারা দেশে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে উপজেলা নির্বাচন। এমন ঘোষণার পর সিলেটের সম্ভাব্য প্রার্থীরা নড়েচড়ে বসেছেন। বিশেষ করে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের নির্বাচনকে ঘিরে বেশ আগ্রহী দেখা যাচ্ছে। প্রার্থী থেকে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরেও ব্যাপক তোড়জোড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। জেলার ১২টি উপজেলার অর্ধশতাধিক প্রার্থী মাঠে নামছেন। প্রাথমিকভাবে দলীয় মনোনয়নের জন্য তাদের লড়াই শুরু হচ্ছে। দল থেকে মনোনয়ন না পেলে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন অনেকেই।

এদিকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মতো আসন্ন উপজেলা নির্বাচনেও প্রার্থী দেবে না বিএনপি। বর্তমান সরকারের অধীনে তারা কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। আর যারা প্রার্থী হবেন তাদের বিরুদ্ধে দলীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এমনটাই জানিয়েছেন দলটির সিলেটের নেতাকর্মীরা।

সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা জানিয়েছেন, উপজেলা নির্বাচনে যারা প্রার্থী হবেন তাদের মধ্যে থেকে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নির্বাচনের পর দলীয় মনোনয়ন দেয়ার চেষ্টা করা হবে। যদি তা সম্ভব না হয় তাহলে বর্ধিত সভা করে সভার মতামতের ভিত্তিতে প্রার্থী দেয়া হবে। স্বতন্ত্রদের নিয়ে দলের অবস্থান পরবর্তীতে জানা যাবে।

সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের তিনবারের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ এবারও নৌকা নিয়ে নির্বাচন করতে চাইবেন। তার সঙ্গে টক্কর দিতে মাঠে নেমেছে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, আওয়ামী লীগ নেতা নুরে আলম সিরাজী।

বিশ্বনাথ উপজেলায় বিএনপি'র নেতারাও প্রচারণায় থাকলেও দল নির্বাচনে অংশ না নিলে প্রার্থী হবেন না বলে জানিয়েছেন তারা। আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চাইছেন বর্তমান চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া। তার বিপরীতে প্রার্থী হতে পারেন পৌর মেয়র মুহিবুর রহমান। এছাড়া পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আলতাব হোসেন, জেলা যুবলীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী মজনু, যুক্তরাজ্য ডরসেট আওয়ামী লীগের সভাপতি চেরাগ আলী, যুক্তরাজ্য যুবলীগের সহ-সভাপতি সামসাদুর রহমান রাহীম, উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মাহবুব মিয়া, চেয়ারম্যান আরশ আলী গনি, কাউন্সিলর ফজর আলী নৌকার মনোনয়নের জন্য মাঠে রয়েছেন। বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান সোহেল আহমদ চৌধুরী, উপজেলা বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক গৌছ খান, যুক্তরাজ্য বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সেবুল মিয়া, উপজেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক জয়নাল আহমদ মিয়া, প্রবাসী জাপা নেতা জয়নাল আবেদীন, খেলাফত মজলিস জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদের নামও শোনা যাচ্ছে।

ফেঞ্চুগঞ্জ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাংবাদিক শাহ মুজিবুর রহমান জকন এবারো নৌকার টিকিট চাইবেন। গত বার তিনি নৌকা নিয়ে এ উপজেলা নির্বাচন করেন। তার সঙ্গে লড়াইয়ে নেমেছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শহীদুর রহমান নোমান।

দক্ষিণ সুরমার একাধিকবারের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবু জাহিদ। এবারো তিনি প্রার্থী হতে চাচ্ছেন। তার সঙ্গে দলীয় ফোরামে নৌকার জন্য মনোনয়ন চাইছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আহমদ, যগ্ম সম্পাদক বদরুল ইসলাম, জেলার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সালেহ আহম হীরা, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল আহমদ,যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগ নেতা কফিল আহমদ চৌধুরী। জাতীয় পার্টি থেকে সাবেক ছাত্রনেতা তাজ উদ্দিন এপলু, জামায়াত থেকে খায়রুল আফিয়ান চৌধুরীর নাম শোনা যাচ্ছে। বিএনপি দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে সাবেক ছাত্রনেতা লোকমান আহমদের নাম রয়েছে আলোচনার শীর্ষে।

গোলাপগঞ্জ উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী। তিনি এবারো নৌকার টিকিট চাইবেন। এছাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফুুর রহমান, প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আবু সুফিয়ান উজ্জ্বল ও ভাইস চেয়ারম্যান নাজিরা বেগম শিলা দলীয় ফোরামে মনোনয়ন চাইবেন বলে জানিয়েছেন।

বিয়ানীবাজারের বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আবুল কাশেম পল্লব মাঠে আছেন। তার সঙ্গে মাঠে রয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান খান, সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মাকসুদুল ইসলাম আউয়াল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ভাইস চেয়ারম্যান জামাল হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য জাকির হোসেন, আব্দুল বারী ও সাবেক ভিপি সাইফুল ইসলাম নীপু।

জকিগঞ্জের বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লোকমান আহমদ চৌধুরী মাঠে সক্রিয় রয়েছেন। এছাড়া ভোটের মাঠে নেমেছেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুদ্দিন খালেদ, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী জাবেদ, বর্তমান মেয়র আব্দুল আহাদ, স্বতন্ত্র হিসেবে মাওলানা মুফতি আবুল হাসান মাঠে রয়েছেন।

কানাইঘাটের বর্তমান চেয়ারম্যান ও নগর কৃষক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল মুমিন চৌধুরী এবারো নৌকার প্রার্থী হতে মাঠে সরব রয়েছেন। তার সঙ্গে মাঠে রয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মোস্তাক আহমদ পলাশ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য শামসুজ্জামান বাহার, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা আবুল খয়ের, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি লোকমান হোসেন। প্রার্থী হতে মাঠে সরব রয়েছেন জেলা বিএনপি নেতা আশিক উদ্দিন চৌধুরী, স্থানীয় সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ, জাপা নেতা শাহাবউদ্দিন।

জৈন্তাপুরের বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামাল আহমদ মাঠে রয়েছেন। নৌকার টিকিটি চেয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম লিয়াকত আলী, প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল গফ্ফারও মাঠে। এছাড়া সাবেক চেয়ারম্যান শাহ আলম চৌধুরী তোফায়েল, এবিএম জাকারিয়া, বর্তমান চেয়ারম্যান বাহারুল ইসলাম বাহার, প্রবাসী নেতা জামাল আবু নাসের, জাতীয় পার্টি নেতা ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান বশির উদ্দিনের নামও চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী তালিকায় রয়েছে।

গোয়াইনঘাটের বর্তমান চেয়ারম্যান, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ফারুক আহমদ নৌকার মনোনয়ন এবারো চাইবেন। তাকে পাল্লা দিতে মাঠে সক্রিয় রয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা গোলাপ মিয়া। এছাড়া সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মোহাম্মদ আনোয়ার সাদাত, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল হক, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ফারুক আহমদ, যুগ্ম আহ্বায়ক শাহাবউদ্দিন, সদস্য গোলাম কিবরিয়া রাসেল, জেলা পরিষদ সদস্য সুভাস দাস প্রার্থী হতে মাঠে রয়েছেন। এছাড়া বিএনপি নেতা শাহ আলম স্বপন ও জসিম উদ্দিন দল নির্বাচনে গেলে প্রার্থী হবেন বলে জানিয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জের চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হবেন দুই বারের চেয়ারম্যান শামীম আহমদ। এছাড়া নৌকার জন্য লড়াইয়ে রয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মজির উদ্দিন, উপজেলা সভাপতি আলী আমজদ, সহ-সভাপতি কাজী আব্দুল ওয়াদুদ আলফু চেয়ারম্যান, সাধারণ সম্পাদক আপ্তাব আলী কালা মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম। জাতীয় পার্টি থেকে প্রার্থী হতে পারেন মুক্তার হোসেন ও বর্তমান চেয়ারম্যান লাল মিয়া।


আরও খবর



২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে হজ নিবন্ধনের বাকি টাকা জমা দেওয়ার নির্দেশ

প্রকাশিত:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

হজের আনুষ্ঠানিক নিবন্ধন শেষ হয়েছে গত ৬ ফেব্রুয়ারি। এখন অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শুরু করতে যাচ্ছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে হজের জন্য নিবন্ধন করেছেন ৮৩ হাজার ১৫৫ জন। তাদের মধ্যে যারা ২ লাখ ৫ হাজার টাকা জমা দিয়ে নিবন্ধন করেছেন তাদের আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বাকি টাকা জমা দিতে বলা হয়েছে।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, সৌদি সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি মধ্যে সরকারি ও বেসরকারি উভয় মাধ্যমের হজযাত্রীদের জন্য মিনায় তাঁবু গ্রহণ, মোয়াল্লেম গ্রহণ, বাড়ি বা হোটেল ভাড়া, পরিবহন চুক্তি প্রভৃতি আবশ্যিকভাবে সম্পন্ন করতে হবে। এ কারণে ২০২৪ সালে ২ লাখ ৫ হাজার টাকা জমা দিয়ে প্রাথমিক নিবন্ধনকারী হজযাত্রীদেরকে আগামী ২০ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নিবন্ধনের অবশিষ্ট টাকা জমা দিতে হবে।

চলতি বছর চতুর্থ দফা সময় বাড়িয়েও হজের নির্ধারিত কোটা পূরণ হয়নি। মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারিভাবে নিবন্ধন করেছেন ৮৩ হাজার ১৫৫ হজযাত্রী। ফলে সৌদি আরবের দেওয়া ৪৪ হাজারের বেশি কোটা খালি রেখেই এবারের হজের নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হয়েছে। এ কোটা এখন সৌদি আরবকে ফেরত দেওয়া হবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, নিবন্ধন শেষে এখনও কোটা খালি রয়েছে ৪৪ হাজার ৪৩টি। এ বছর বাংলাদেশের জন্য এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮টি কোটা নির্ধারণ করে দেয় সৌদি আরব। এর মধ্যে সরকারিভাবে হজে যেতে নিবন্ধন করেছেন চার হাজার ২৬০ জন। বেসরকারিভাবে নিবন্ধন করেছেন ৭৮ হাজার ৮৯৫ জন। সবমিলিয়ে মোট নিবন্ধন করেছেন ৮৩ হাজার ১৫৫ জন। বাকি ৪৪ হাজার ৪৩টি কোটা ফেরত যাবে।

এবার হজের নিবন্ধন শুরু হয় ২০২৩ সালের ১৫ নভেম্বর, যা ১০ ডিসেম্বর শেষ হওয়ার কথা ছিল। প্রত্যাশিত সাড়া না মেলায় প্রথম দফায় সময় বাড়ানো হয় ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এরপর দ্বিতীয় দফায় ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত নিবন্ধনের সময় বাড়ানো হয়। তৃতীয় দফায় ২৫ জানুয়ারি থেকে ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় বাড়ায় ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়। এতেও হজ নিবন্ধনে কাঙ্ক্ষিত সাড়া না মেলায় শেষ দফায় ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ানো হয়।

চলতি ২০২৪ সালে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার দুটি প্যাকেজ নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে সর্বনিম্ন প্যাকেজের মূল্য পাঁচ লাখ ৭৮ হাজার ৮৪০ টাকা। বিশেষ প্যাকেজের মূল্য নয় লাখ ৩৬ হাজার ৩২০ টাকা। অপরদিকে, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় দুটি প্যাকেজের মূল্য যথাক্রমে পাঁচ লাখ ৮৯ হাজার ৮০০ টাকা এবং আট লাখ ২৮ হাজার ৮১৮ টাকা। যদিও গত বছরের চেয়ে এ বছর সর্বনিম্ন প্যাকেজের মূল্য এক লাখ চার হাজার ১৬০ টাকা কমানো হয়েছে। এরপরও বর্তমান হজ প্যাকেজের মূল্যকে অনেক বেশি মনে করছেন হজে যেতে আগ্রহীরা।

উল্লেখ্য, চাঁদ দেখা-সাপেক্ষে চলতি বছরের ১৬ জুন পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হতে পারে।


আরও খবর
বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা আজ

বুধবার ১৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ

মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪