আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

গুগল ক্রোম ও মোজিলা ব্যবহারে সতর্কতা

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ জুন ২০২২ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গুগল ক্রোম এবং মোজিলা ফায়ারফক্সে আবারও কিছু ভুল ধরা পড়েছে। ভারত সরকারের কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম (সিইআরটি-ইন) ব্রাউজার দুটির সেই ভুলগুলো চিহ্নিত করেছে। একইসঙ্গে ইউজারদের সতর্কও করা হয়েছে। সিইআরটি-ইন দাবি করেছে, ক্রোম এবং মোজিলার এই ভুলগুলো আসলে হ্যাকারদের সুবিধা করে দিচ্ছে। যার মাধ্যমে হ্যাকাররা গ্রাহকের ডিভাইসে আক্রমণ করছে। এমনকি সব নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে বাইপাস করে নির্বিচারে কোড চালিয়ে যাচ্ছে হ্যাকাররা।

গুগল ক্রোম ও মোজিলা ফায়ারফক্সের এই ভুলগুলোকে হাই-রিস্ক বলে চিহ্নিত করেছে সিইআরটি-ইন। ভারতীয় সরকারি এই সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ক্রোম ওএস ভার্সন মূলত 96.0.4664.209-এর ক্ষেত্রেই এই ভুলটি পরিলক্ষিত হয়েছে। এর ভেতরে চিহ্নিত ভুলগুলোর মধ্যে রয়েছে গুগলের VE-2021-43527, CVE-2022-1489, CVE-2022-1633, CVE-202-1636, CVE-2022-1859, CVE-2022-1867, এবং CVE-2022-23308।

এই বাগস সম্পর্কে টেক জায়ান্টটি স্বীকার করে জানিয়েছে, সমস্ত বাগ সংশোধন করা হবে। তবে তার আগে ইউজারদের কাছে সংস্থাটি সতর্কবার্তা দিয়ে বলছে, ক্রোম ওএস-এর লেটেস্ট ভার্সনটি গ্রাহকদের ডাউনলোড করতে হবে। এদিকে মোজিলা ফায়ারফক্সেরও একাধিক ভার্সন সম্পর্কে সতর্ক করেছে সিইআরটি-ইন। মোজিলা ফায়ারফক্স iOS ভার্সন 101, মোজিলা ফায়ারফক্স থান্ডারবার্ড ভার্সন 91.10, মোজিলা ফায়ারফক্স ESR ভার্সন 91.10 এবং মোজিলা ফায়ারফক্স 101-এর ক্ষেত্রেই মূলত সতর্কবার্তা জারি করেছে সরকারি ওই সংস্থাটি।

মোজিলা বলছে, দূরবর্তী স্থান থেকে আক্রমণকারী সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ করতে, নিরাপত্তা বিধিনিষেধ বাইপাস করতে, নির্বিচারে কোড কার্যকর করতে, স্পুফিং আক্রমণ করতে এবং টার্গেট করা সিস্টেমে ডিনায়াল-অব-সার্ভিস (DoS) আক্রমণ করার অনুমতি দেয়। এদিকে যে সব ব্রাউজার ইতোমধ্যেই এই আক্রমণ দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত, তাদের জন্য একাধিক আপডেটও রিলিজ করেছে মোজিলা। ইউজারদের বলা হয়েছে, মোজিলা ফায়ারফক্স ভার্সন iOS 101, মোজিলা ফায়ারফক্স থান্ডারবার্ড ভার্সন 91.10, মোজিলা ফায়ারফক্স ESR ভার্সন 91.10 এবং মোজিলা ফায়ারফক্স 101 ডাউনলোড করলে আক্রমণগুলো থেকে সুরক্ষিত থাকা যাবে।

সার্ট-ইন দাবি করেছে, যে পরিষেবাগুলো সাধারণত এ ধরনের আক্রমণের টার্গেট হয়ে ওঠে, সেগুলোর মধ্যে রয়েছে ই-মেইল, ওয়েবসাইট, অনলাইন অ্যাকাউন্ট ইত্যাদি।

ভারতীয় সংস্থাটি দাবি করেছে, লক্ষ্যবস্তু সিস্টেমে নির্বিচারে কোড চালানোর জন্য আক্রমণকারীর দ্বারা দুর্বলতাগুলোকে কাজে লাগানো যেতে পারে। একটি অফিসিয়াল পোস্টে সিইআরটি-ইন এই বিষয়ে ব্যাখ্যা করে বলছে, V8 ইন্টারনালাইজেশনে হিপ বাফার ওভারফ্লো হওয়ার কারণে এই দুর্বলতাগুলো গুগল ক্রোম ওএস-এ বিদ্যমান। বিনামূল্যের শেয়ারশিট, পারফরম্যান্স ম্যানেজার, পারফরম্যান্স API-এ ব্যবহার করুন। dev-libs/libxml2-তে রিপোর্ট করা দুর্বলতা। ডেটা ট্রান্সফারে অবিশ্বস্ত ইনপুটের অপর্যাপ্ত বৈধতা এবং UI শেল্ফের সীমার বাইরে মেমোরি অ্যাক্সেস।


আরও খবর



নিজেকে পিটার দ্য গ্রেটের সঙ্গে তুলনা পুতিনের

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১০ জুন ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধের মধ্যেই নিজেকে রাশিয়ার পরাক্রমশালী সম্রাট পিটার দ্য গ্রেটর সঙ্গে তুলনা করেছেন বর্তমান রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। মূলত বৃহস্পতিবার (৯ জুন) প্রেসিডেন্ট পুতিন তার বর্তমান কর্মকাণ্ডকে পিটার দ্য গ্রেটের সুইডেনের বিরুদ্ধে ১৮ শতকের যুদ্ধের সময় বাল্টিক উপকূল জয়ের সাথে তুলনা করেছেন।

বৃহস্পতিবার রাশিয়ার তরুণ উদ্যোক্তাদের সঙ্গে সাক্ষাতের সময় ভ্লাদিমির পুতিন এই মন্তব্য করেন। শুক্রবার (১০ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়ার সাবেক জার সম্রাট পিটার দ্য গ্রেটর ৩৫০তম জন্মবার্ষিকীকে উৎসর্গ করে বৃহস্পতিবার রাজধানী মস্কোতে আয়োজিত একটি প্রদর্শনীর অনুষ্ঠান পরিদর্শন করেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। পরে সেখানে তরুণ উদ্যোক্তাদের তিনি বলেন, সুইডেনের সঙ্গে যুদ্ধ করে তিনি (পিটার দ্য গ্রেট) কিছু দখল করেছিলেন। তিনি কারও কাছ থেকে কিছু দখল করেননি। তিনি ফিরিয়ে এনেছিলেন।

প্রেসিডেন্ট পুতিন আরও বলেন, পিটার দ্য গ্রেট যখন সেন্ট পিটার্সবার্গ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন এবং এটিকে রাশিয়ার রাজধানী ঘোষণা করেছিলেন তখন ইউরোপের কোনো দেশই এই অঞ্চলটিকে রাশিয়ার অন্তর্গত বলে স্বীকৃতি দেয়নি। সবাই এটিকে সুইডেনের অংশ বলে মনে করত। কিন্তু অনাদিকাল থেকে ফিনো-ইউগ্রিক জনগণের পাশাপাশি স্লাভরা এখানে বসবাস করত।

এই পর্যায়ে ইউক্রেনে রাশিয়ার চলমান আক্রমণের স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়ে পুতিন বলেন, আমাদের দায়িত্ব (আমাদের যা আছে, তা) ফিরিয়ে নেওয়া এবং শক্তিশালী করা। হ্যাঁ, আমাদের দেশের ইতিহাসে এমন সময় এসেছে যখন আমরা পিছু হটতে বাধ্য হয়েছি, কিন্তু সেটি শুধুমাত্র আমাদের শক্তি ফিরে পেতে এবং আরও এগিয়ে যাওয়ার জন্য।

এএফপি বলছে, ১৭০০ সাল থেকে ১৭২১ পর্যন্ত হওয়া গ্রেট নর্দার্ন যুদ্ধে মস্কোর কাছে সুইডেনের পরাজয় রাশিয়াকে বাল্টিক সাগর অঞ্চলে নেতৃস্থানীয় শক্তিতে পরিণত করে। এতে করে ইউরোপীয় বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দেশ তথা শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয় রাশিয়া।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ইউক্রেন আক্রমণের ফলে পশ্চিমের সাথে রাশিয়ার সম্পর্ক কার্যত ভেঙে গেছে এবং এর পাশাপাশি ইউরোপের প্রতি পিটারের যে সখ্যতা ছিল সেটিকেও কার্যত খাটো করে দেখছে মস্কো কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে রাশিয়া বর্তমানে এই অঞ্চলে তার ভূখণ্ড সম্প্রসারণের দিকে মনোনিবেশ করেছে বলেও জানিয়েছে বার্তাসংস্থাটি।

রাশিয়ানরা বৃহস্পতিবার জার পিটার দ্য গ্রেটের ৩৫০ তম জন্মদিন উদযাপন এমন এক সময় করেছে যখন ইউক্রেন সংঘাতের কারণে দেশটি বাকি বিশ্ব থেকে গভীরভাবে বিচ্ছিন্ন। মূলত তিন শতাব্দী আগেই রাশিয়াকে ইউরোপের কাছাকাছি আনার চেষ্টা প্রথম করেছিলেন জার পিটার।

উল্লেখ্য, ১৬৭২ সালের ৯ জুন মস্কোতে জন্মগ্রহণ করেন পিটার দ্য গ্রেট। ক্ষমতায় আসার পর তিনি প্রথমে জার এবং তারপর ১৬৮২ সাল থেকে ১৭২৫ সালে মৃত্যুর আগপর্যন্ত সম্রাট হিসাবে সমগ্র রাশিয়া শাসন করেছিলেন।


আরও খবর



ঘুরতে গিয়ে আটকা পড়েছেন ঢাবির ২১ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ জুন ২০২২ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সুনামগঞ্জে ঘুরতে গিয়ে বন্যায় আটকা পড়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২১ শিক্ষার্থী। তারা খাবার, সুপেয় পানিসহ নানা সংকটে দুরবস্থার মধ্যে রয়েছেন উল্লেখ করে তাদের উদ্ধারের অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

শিক্ষার্থীদের দলটি তিন দিন আগে সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওরে ঘুরতে গিয়েছিল। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়। এ অবস্থায় ভ্রমণে যাওয়া ঢাবির এই শিক্ষার্থীরা সুনামগঞ্জের পানসী রেস্তোরাঁয় আশ্রয় নিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে বেশ কয়েকজন ছাত্রীও রয়েছেন।

আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের সকলেই গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে একজনের নাম মো. শোয়াইব আহমেদ। তিনি সেখান পরিস্থিতি বর্ণনা করে জানান, সেখানে আরও অনেকের সঙ্গে তারা আটকা পড়েছেন।

শোয়াইব আহমেদ বলেন, আমরা এখানে খাবার, সুপেয় পানির সংকটে আছি। এখানে শৌচাগারের ব্যবস্থাও নেই। এখানে মুঠোফোনের নেটওয়ার্ক ঠিকমতো কাজ করছে না। সব মিলিয়ে আমরা খুব দুরবস্থার মধ্যে আছি। আমাদের মধ্যে চরম অনিশ্চয়তা কাজ করছে। উদ্ধারের জন্য আমরা আরজি জানাচ্ছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, আটকে পড়া শিক্ষার্থীদের উদ্ধারে আমরা স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের কাছে এ ব্যাপারে আমরা সহযোগিতা কামনা করছি। প্রয়োজনে প্রশিক্ষিত উদ্ধারকারী দল পাঠিয়ে শিক্ষার্থীদের উদ্ধারের জন্য আমরা উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।


আরও খবর



বাংলাদেশ পুলিশ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ জুন ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সে ক্যাশিয়ার’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০৭ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন।

প্রতিষ্ঠানের নাম: ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, বাংলাদেশ পুলিশ

পদের বিবরণ:

চাকরির ধরন: স্থায়ী

প্রার্থীর ধরন: নারী-পুরুষ

কর্মস্থল: ঢাকা

বয়স: ০১ জুন ২০২২ তারিখে ১৮-৩০ বছর। বিশেষ ক্ষেত্রে ৩২ বছর

আবেদনপত্র সংগ্রহ: আগ্রহীরা www.police.gov.bd অথবা iphq.police.gov.bd থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন।

আবেদনের ঠিকানা: অ্যাডিশনাল ইন্সপেক্টর জেনারেল, ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, বাড়ি নং-০৩, রোড নং- ২১ (১৫), সেক্টর-০৪, উত্তরা, ঢাকা।

আবেদনের শেষ সময়: ০৭ জুলাই ২০২২

নিউজ ট্যাগ: চাকরির খবর

আরও খবর



প্রধানমন্ত্রী মানুষের অন্তরে যুগ যুগ বেঁচে থাকবেন: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বপ্নের পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করে সম্ভাবনার বাংলাদেশ তৈরি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুগ যুগ ধরে বেঁচে থাকবেন বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আজ শনিবার সকালে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তের সমাবেশ স্থলে হাজির হয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি মনে করি শুধু পদ্মা সেতু না, আমাদের প্রধানমন্ত্রী যে সম্ভাবনার বাংলাদেশ তৈরি করে দিয়েছেন, আমাদের দেখিয়ে দিয়ে গেছেন, এটার জন্য তিনি যুগ যুগ বেঁচে থাকবেন।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, সারা দেশের মানুষ দেখেছে প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্ব। বঙ্গবন্ধুর ডাকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা এসেছে। আর তার কন্যার ডাকে যে অর্থনৈতিক মুক্তি হচ্ছে, সেটারই আজ (পদ্মা সেতু) উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

পদ্মা সেতুসহ দেশের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের জন্য আবারও বাংলাদেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগ সরকারের ওপর আস্থা রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, ‌বাংলাদেশের মানুষ বিশ্বাস করে, শেখ হাসিনা যতদিন থাকবে ততদিন বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। যতদিন শেখ হাসিনা ততদিন আলোকিত বাংলাদেশ। কাজেই নির্বাচনের প্রশ্নে বাংলাদেশের মানুষ উদগ্রীব হয়ে বসে আছে আবারও প্রধানমন্ত্রীকে জয়যুক্ত করার জন্য।

আজ ২৫ জুন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা বহুমুখী সেতুর উদ্বোধন করবেন। মাওয়া প্রান্তে সুধী সমাবেশে ভাষণ শেষে তিনি উদ্বোধনী ফলক উন্মোচন করবেন। এর সঙ্গে সঙ্গে খুলে যাবে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৯টি জেলার সঙ্গে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অপরাপর অংশের জন্য সংযোগ, যোগাযোগ ও সম্ভাবনার অনন্ত দুয়ার।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু। মাওয়া থেকে জাজিরা। পদ্মা সেতু সড়ক, রেল, গ্যাস, বিদ্যুতের সংযোগ ঘটাবে উত্তরের সঙ্গে দক্ষিণের। নির্মাণের বিশাল কর্মযজ্ঞের সঙ্গে আছে সংযোগ সড়ক, রেল সংযোগ, নদীশাসন, পুনর্বাসন, পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষা-নানা প্রকল্প ও কর্মকাণ্ড।


আরও খবর



৫ জুন থেকে সারাদেশে ‘ভিটামিন-এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় পুষ্টিসেবা ( এন এন এস) এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় আগামী ৫ জুন রবিবার থেকে ৮ জুন বুধবার পর্যন্ত ৪ দিনব্যাপি দেশব্যাপী জাতীয় ভিটামিন প্লাস ক্যাম্পেইন উৎযাপিত হবে।

জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ৬-১১ মাস বয়সী শিশুদের ১ লক্ষ আইইউ মাত্রার একটি নীল ক্যাপসুল এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুদের ২ লক্ষ আইইউ মাত্রার একটি লাল ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। 

দেশের সকল ইপিআই কেন্দ্র এবং স্থায়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্র সমূহে ৪ দিন ক্যাম্পেইন পরিচালিত হবে। নির্ধারিত ইপিআই সিডিউল অনুযায়ী প্রত্যেক ওয়ার্ডের (পুরাতন) ৮টি সাব-ব্লকে সপ্তাহের ৪ কর্মদিবসে নির্ধারিত ইপিআই কেন্দ্রে পর্যায়ক্রমে স্বাস্থ্য সহকারি, পরিবার কল্যাণ সহকারি ও স্বেচ্ছাসেবী কর্তৃক উদ্দিষ্ট শিশুদের ভিটামিন-এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। তাছাড়া কমিউনিটি ক্লিনিক ও অন্যান্য সরকারি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে শিশুদের ভিটামিন ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশন এলাকায়ও ইপিআই কেন্দ্রসমূহে এই কার্যক্রম পরিচালিত হবে। 

একই সাথে কেন্দ্রে আগত শিশুদের পিতা-মাতা বা অভিভাবকগনকে পুষ্টি বিষয়ক বার্তা প্রদান করা হবে। কোভিড-১৯ মহামারী প্রাদুর্ভাবের কারণে শারীরিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি (মাস্ক পরিধান করা, সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড হাত ধোয়া, স্যানিটাইজার ব্যবহার) সুনিশ্চিত করা হবে।

এই ক্যাম্পেইন কার্যক্রম বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রত্যয়ের অংশ হিসেবে রিয়েল টাইম এ্যাপ-এর মাধ্যমে মনিটর করা হবে। উল্লেখ্য সারাদেশে মোট ২ কোটি ২০ লক্ষেরও অধিক শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষমাত্রা নিয়ে এই ক্যাম্পেইন পরিচালিত হবে।

ভিটামিন শিশুর অন্ধত্বজনিত রোগ প্রতিরোধ করে, রোগ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, ডায়রিয়া ও হামের জটিলতা এবং মৃত্যুঝুকি কমায়। তাই আপনার শিশুর সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতকল্পে ও অন্ধত্ব প্রতিরোধে শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ান। ভিটামিন এ ক্যাপসুল সরকার অনুমোদিত ও গুণগত মানসম্মত। তাই এটি নিশ্চিন্তে শিশুকে খাওয়ানো যায়।  

নিউজ ট্যাগ: ভিটামিন এ

আরও খবর