আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

গরুর ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, যুবক নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৮০০জন দেখেছেন

Image

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে গরু ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের সংঘর্ষে হোসাইন নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও ২ জন গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ভর্তি রয়েছে।

নিহত হোসাইন (৩৩) উপজেলা সদর ইউনিয়নের চরহোসনপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। হোসাইন পেশায় একজন দর্জি। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

গতকাল (বুধবার) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হোসাইন।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গতকাল বুধবার সকালে আনুমানিক ৮টায় চরহোসেনপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের গরু কাশেম মিয়ার বোরো ক্ষেতে ঢুকে পাকা ধান খেয়ে ফেলে। এতে কাসেমের স্ত্রী ফাতেমা ক্ষিপ্ত হয়ে সিরাজুল ইসলামের পরিবারকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে দুপরিবারের মধ্যে তর্কবির্তক শুরু হলে কাশেম মিয়ার ছেলে রুহুল সিরাজুল ইসলামে ছোট ছেলে মুন্নাকে ছুরিকাঘাত করে। এ অবস্থা দেখে হোসাইন মিয়া ও তার পিতা সিরাজুল ইসলাম এগিয়ে আসলে রুহুল হোসাইনের পেটে ও সিরাজুল ইসলামের পিঠে ছুরিকাঘাত করে মারাত্মক ভাবে জখম করে।

আহত অবস্থায় প্রতিবেশীরা হোসাইন ও তার পরিবারের লোকজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। বুধবার রাত সাড়ে দশটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হোসাইন মারা যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মুন্না ময়মনসিংহ মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

নিহতের স্ত্রী বলেন, আমাদের দেখার আর কেউ রইলো না। আমার স্বামীকে যারা হত্যা করছে, আমি তাদের ফাঁসি চাই।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কাদের মিয়া জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজ ট্যাগ: সংঘর্ষ নিহত

আরও খবর



সিলেটে জামায়াত-পুলিশ সংঘর্ষ, ওসিসহ আহত ৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেটের জেলরোডে জামায়াত-শিবিরের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে দুই পুলিশ সদস্যসহ আরও তিনজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৭ই মে) দুপুর ২টার দিকে এ সংঘর্ষ হয়। এ সময় পুলিশ জামায়াত-শিবিরের দুই নেতাকর্মীকে আটক করে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, দুপুর ২টায় বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী বন্দর বাজার ওরিয়েন্টাল মার্কেটের সামনে থেকে গণকমিশন কর্তৃক ধর্মব্যবসায়ী হিসেবে ১১৬ জন আলেমের তালিকা প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে নগরের জেলরোড পয়েন্টে এক সমাবেশে মিলিত হয়।

এ সময় তারা রাস্তা অবরোধ করে সরকার বিরোধী স্লোগান দিতে থাকে। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাদের ধাওয়া করলে সংঘর্ষ শুরু হয়।

সংঘর্ষকালে জামায়াত-শিবিরের নেতা কর্মীরা বিপুল পরিমাণ ইট-পাটকেল পুলিশের ওপর নিক্ষেপ করে ও লাটিসোটা নিয়ে আক্রমণ করে। এ সময় তারা পুলিশের একটি মোটরসাইকেল ও কয়েকটি দোকান ভাঙচুর করে।

এতে কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলী মাহমুদসহ আরও এক পুলিশ কর্মকর্তা আহত হন। আহত পুলিশ কর্মকর্তাদের সিলেট এম এ জি ওসমানী হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ বলেন, এই ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে এবং আটকদের বিরুদ্ধে নিয়মিত আইনে মামলা রুজু করা হবে।


আরও খবর



বিএনপি নেতা এম এ মান্নান আর নেই

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৫৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র অধ্যাপক এম এ মান্নান আর নেই (ইন্নালিল্লাহি...ইলাইহি রাজিউন)।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

এর আগে, বুধবার (২৭ এপ্রিল) রাতে ইউনাইটেড হাসপাতালের জরুরি বিভাগে অধ্যাপক এম এ মান্নানকে ভর্তি করা হয়। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই তাকে লাইফ সাপোর্ট নেওয়া হয়।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল বলেন, ৭২ বছর বয়সী বিএনপির ওই নেতা দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র থাকাকালে ২০১৫ সালে তাকে বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। বিভিন্ন মামলায় তিন বছর জেলে থাকার সময় তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। ২০১৭ সালে আদালত থেকে জামিন পেয়ে মুক্তি পান। তখন থেকেই তিনি অসুস্থ।


আরও খবর



প্রভার কণ্ঠে ফের বিচ্ছেদের সুর

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ২৩ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলতি বছরের শুরুতেই গুঞ্জন চাউর হয় যে, ফের প্রেমে পড়েছেন টিভি পর্দার জনপ্রিয় মুখ সাদিয়া জাহান প্রভা। গায়ক ইমরান মাহমুদুলের সঙ্গে নাকি চুটিয়ে প্রেম করছেন এ অভিনেত্রী। প্রভার সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে ইমরানের সঙ্গে তোলা ছবিগুলো নিয়ে পরবর্তীতে বেশ চর্চা হয়। যদিও এ গুঞ্জন নিয়ে সরাসরি কিছু বলেননি প্রভা বা ইমরানের কেউ। সে গুঞ্জনের কয়েক মাস না যেতেই নতুন গুঞ্জন, প্রভা-ইমরানের প্রেম ভেঙে গেছে। 

নতুন এই গুঞ্জন চাউরের কারণ প্রভা নিজেই। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরহ-বিচ্ছেদের পোস্ট দিয়ে আসছেন প্রভা। তার সেসব স্ট্যাটাসে ভক্ত-অনুরাগীদের ধারণা ব্রেকআপ হয়েছে প্রভার। সম্প্রতি এক স্ট্যাটাসে প্রভা লিখেছিলেন সঠিক মানুষ তোমার অতীত নিয়ে প্রশ্ন না তুলেই ভালোবাসবে

গত ২০ মে ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি লেখা শেয়ার করেছেন প্রভা। সেখানে লেখা রয়েছে কখনও খেয়াল করেছ, একটা বিচ্ছেদের পর, সৎ মানুষটি একাই থাকে এবং যন্ত্রণাগুলোর সঙ্গে লড়ে যায়। আর প্রতারক মানুষটি ততক্ষণে আরেকটি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে।


উল্লেখ্য, গত বছর ছোটপর্দার তরুণ অভিনেতা শ্যামল মওলার সঙ্গে প্রভার সম্পর্ক ছিল বলে শোনা যায়। সেই সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ায় অনেক দিন বিরহ-অবসাদে ডুবে ছিলেন অভিনেত্রী। তবে ইমরানের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে সেই বিষাদ কাটিয়ে উঠেন বলেই ধারণা করা হয়। কারণ চলতি বছরের জানুয়ারিতে ইনস্টাগ্রামে প্রভা সব সংকট কাটিয়ে উঠার কথা লিখেছিলেন।

তিনি লিখেছিলেন, গত বছরটি তার জন্য গেম চেঞ্জার ছিল। আপনি নিজেই নিজের রক্ষাকারী এ বিষয়টিও গত বছর আমাকে শিখিয়েছেন। আপনি যদি নিজেকে রক্ষা করতে না পারেন, তবে অন্য কেউ করবে না। গত বছরটি আমাকে বদলে দিয়েছে। জীবনে যত খারাপ কিছুই ঘটুক না কেন, তা গ্রহণ করতে হবে। এটিও আমাকে বিশ্বাস করিয়েছেন। খুব খারাপ কিছু প্রত্যাশা করলেই যে তা ঘটবে তা-ও নয়। ভালোমন্দ দুটোই ক্ষণস্থায়ী। কাউকে ধরে রাখা যায় না উল্লেখ করেই এই অভিনেত্রী লেখেন, কাউকে শক্ত করে ধরলেই যে সে থেকে যাবে কিংবা হালকা করে ধরলেই যে চলে যাবে বিষয়টি তেমন নয়।

প্রসঙ্গত, ক্যারিয়ারের শুরুতে রাজীব নামের এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন প্রভা। তাদের বাগদানও হয়েছিল। কিন্তু পরে ২০১০ সালে অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বকে বিয়ে করেন প্রভা। এর পরই রাজীবের সঙ্গে প্রভার একটি স্ক্যান্ডাল ছড়িয়ে পড়লে অপূর্বর সঙ্গে তার সংসার ভেঙে যায়। ২০১১ সালে মাহমুদ শান্ত নামের এক ব্যক্তিকে বিয়ে করেন প্রভা। সেই সংসার টিকে ছিল ২০১৪ সাল পর্যন্ত।


আরও খবর



বাজেট: বেতন-ভাতায় বরাদ্দ বাড়ছে সরকারি চাকরিজীবীদের

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৭৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্যয় সংকোচন নীতির পথে হাঁটলেও আগামী বাজেটে সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতায় বরাদ্দ বাড়ছে। একইভাবে দেশি ও বিদেশি ঋণের সুদ পরিশোধেও বড় অঙ্ক গুনতে হবে। আর চলমান ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে বিশ্ববাজারে বেড়ে যাওয়া জ্বালানি তেল, সার, গ্যাসের বর্ধিত মূল্য সমন্বয় করতে হচ্ছে সরকারকে।

এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগামী বছরের জন্য ভর্তুকি ও প্রণোদনা খাতে বড় ধরনের বরাদ্দ বাড়াতে হচ্ছে। ফলে উল্লেখিত তিনটি খাতে নতুন বাজেটের ৪৯ শতাংশই ব্যয় হবে। টাকার অঙ্কে এটি ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৮৩২ কোটি টাকা। অবশ্য ৬ লাখ ৭৭ হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা ব্যয়ের লক্ষ্য ধরে আগামী অর্থবছরের (২০২২-২৩) বাজেটের রূপরেখা প্রণয়ন করেছে অর্থ বিভাগ। সংশ্লিষ্ট সূত্রে পাওয়া গেছে এসব তথ্য। আগামী ৯ জুন জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। অর্থ বিভাগ এরই মধ্যে বাজেটের রূপরেখা প্রণয়ন করেছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, সরকার ব্যয় সংকোচন নীতির আলোকে বাজেট প্রণয়ন করছে। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হওয়ার সঙ্গে অর্থনীতির সংকট কাটছে ধীরে ধীরে। তবে এখনো সরকারের করোনামুখী ব্যয় নানাভাবে হচ্ছে। এসব দিক বিবেচনা করেই সব খাতে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু কিছু এরিয়া আছে যেখানে ব্যয় কমানো কোনোভাবেই সম্ভব নয়। সেখানে বরাদ্দ বাড়ানো হবে।

আগামী বাজেটের যে রূপরেখা প্রণয়ন করেছে সেটি বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, সরকারের পরিচালনা ব্যয়ের জন্য লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৪ লাখ ৩১ হাজার ৬৫৭ কোটি টাকা। এটি জিডিপির ৯ দশমিক ৮ শতাংশ। এই ব্যয়ের মধ্যে দেশি ও বিদেশি ঋণের সুদ পরিশোধ, সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা প্রদান এবং ভর্তুকি, প্রণোদনা ও নগদ ঋণ বাবদ ব্যয় করতে হবে ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৮৩২ কোটি টাকা। এ ব্যয় নতুন বাজেটের ৪৯.২৪ শতাংশ।

সূত্র জানায়, আগামী বাজেটে সবচেয়ে বেশি চাপ থাকছে ভর্তুকিতে। চলমান রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে এটি হয়েছে। এই যুদ্ধের প্রভাবে আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য প্রতি ব্যারেল ১০০ মার্কিন ডলার পর্যন্ত অতিক্রম করেছিল। এখন কিছুটা কমছে। পাশাপাশি সার, গ্যাস ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দামও বিশ্ববাজারে অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু এসব পণ্যের দাম দেশের বাজারে খুব বেশি বাড়ানো হয়নি। বিশেষ করে কৃষকের সারের মূল্য আগের অবস্থায় আছে। গ্যাসের মূল্যও বাড়ানো হয়নি। শুধু জ্বালানি তেলের মূল্য এক দফা সমন্বয় করা হয়েছে।

মূল্য সমন্বয় না করায় সরকারের ভর্তুকি ও প্রণোদনা খাতে ব্যয় বেড়েছে। নতুন বাজেটে ভর্তুকি, প্রণোদনা ও নগদ ঋণে বরাদ্দ থাকছে ১ লাখ ৭৭ হাজার ১৪৫ কোটি টাকা। এটি জিডিপির ৪ শতাংশের সমান। চলতি বছরের তুলনায় এ খাতে বরাদ্দ বাড়ানো হচ্ছে ২৭ হাজার ৯১০ কোটি টাকা। এ বছর ভর্তুকি, প্রণোদনা ও নগদ ঋণ বাবদ বরাদ্দ দেওয়া আছে ১ লাখ ৪৯ হাজার ২৩৫ কোটি টাকা।

এদিকে কৃষি ও জ্বালানি খাতে ভর্তুকি না কমানোর পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক সিনিয়র অর্থ সচিব মাহবুব আহমেদ। তিনি বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কৃষিতে ভর্তুকি অব্যাহত রাখতে হবে। রাজস্ব আহরণ বাড়িয়ে ভর্তুকি বরাদ্দ সমন্বয় করার প্রতি জোর দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, রপ্তানির সব খাতে প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। আদৌ সব খাতে প্রয়োজনীয়তা আছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখা উচিত। তবে কিছু এরিয়াতে এই মুহূর্তে ব্যয় সংকোচন করতে হবে। বিশেষ করে কম গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পে অর্থ ব্যয় কমাতে হবে। এদিক থেকে কিছু অর্থ সাশ্রয় হবে।

জানা গেছে, অর্থনীতির নানা দিক থেকে চাপের মধ্যে আছে সরকার। ফলে ব্যয় সংকোচন নীতি কৌশল নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কিছু বরাদ্দ খাত আছে যেখানে ব্যয় কাটছাঁট করা সম্ভব নয়। এর একটি হচ্ছে সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন-ভাতা। আগামী বছরে এ খাতে বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে ৭৬ হাজার ৪১২ কোটি টাকা। এটি চলতি বছরের চেয়ে ৬ হাজার ৬৬৬ কোটি টাকা বেশি। চলতি বাজেটে এ খাতে বরাদ্দ আছে ৬৯ হাজার ৭৪৬ কোটি টাকা। অর্থ বিভাগ মনে করছে করোনার কারণে দীর্ঘদিন জনবল নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ থাকলেও সম্প্রতি তা শুরু হয়েছে। এজন্য আগামী বছরে অতিরিক্ত অর্থের প্রয়োজন হবে। এছাড়া চাকরিজীবীদের বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট দেওয়া হয়। সেজন্যও অতিরিক্ত অর্থ গুনতে হবে। যে কারণে বেতন-ভাতা খাতে বরাদ্দ বাড়ছে।

ব্যয়ে একটি বড় খাত ঋণের সুদ পরিশোধে। আগামী অর্থবছরে শুধু সুদ পরিশোধে ব্যয় হবে ৮০ হাজার ২৭৫ কোটি টাকা। এটি অর্থনীতিতে এক ধরনের চাপ সৃষ্টি করবে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের। এই সুদ পরিশোধ হবে মূলত দেশি ও বিদেশ থেকে ঋণ গ্রহণের বিপরীতে। নতুন বছরে সুদ খাতে চলতি বছরের তুলনায় বেশি ব্যয় হবে ১১ হাজার ৬৮৬ কোটি টাকা। এ বছর সুদ পরিশোধে বরাদ্দ আছে ৬৮ হাজার ৫৮৯ কোটি টাকা।

নিউজ ট্যাগ: বাজেট

আরও খবর
যশোরে ১০ ঢাকায় ৮০

বুধবার ২৫ মে ২০২২




আইপিএলে প্লে-অফের সূচি

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ১৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আইপিএলের প্লে-অফে খেলার জন্য চারটি দল নিশ্চিত হয়ে গেছে। গুজরাট টাইটান্স আগেই ২০ পয়েন্ট নিয়ে প্লে-অফে উঠে শীর্ষস্থান দখল করে রেখেছে তারা। বাকি তিনটি দল নির্ধারণে খেলা গড়াতে হয়েছে একেবারে শেষ রাউন্ড পর্যন্ত।

তবে রাজস্থান রয়্যালস আর লখনৌ সুপার জায়ান্টস নিজেদের শেষ ম্যাচ জিতে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান দখল করে নিয়েছে। আর শনিবার মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কাছে দিল্লি ক্যাপিটালসের হারের মধ্য দিয়ে চতুর্থ দল হিসেবে প্লে-অফ নিশ্চিত করেছে বিরাট কোহলির রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু (আরসিবি)।

আইপিএলে প্লে-অফের সূচি:

প্রথম কোয়ালিফায়ার: আগামী ২৪ মে কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে লিগ টপার গুজরাট টাইটান্সের বিরুদ্ধে প্রথম কোয়ালিফায়ারে মাঠে নামবে রাজস্থান রয়্যালস। যারা জিতবে, সরাসরি ফাইনালে পৌঁছে যাবে।

এলিমিনেটর: ২৫ মে কলকাতায় লখনউ সুপার জায়ান্ট ও রয়েল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু এলিমিনেটর ম্যাচ খেলতে নামবে।

দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার: ২৭ মে খেলতে নামবে প্রথম প্রথম কোয়ালিফায়ারের পরাজিত দল বনাম এলিমিনেটরের বিজয়ী দল। যারা জিতবে, দ্বিতীয় দল হিসেবে সরাসরি ফাইনালে পৌঁছে যাবে।

ফাইনাল: ২৯ মে প্রথম কোয়ালিফায়ারের বিজয়ী দল বনাম দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারের বিজয়ী দল।

নিউজ ট্যাগ: আইপিএলে প্লে-অফ

আরও খবর