আজঃ শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪
শিরোনাম

গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে দেশে ফিরলেন মাহির স্বামী

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ মার্চ ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুর প্রতিনিধি

Image

গাজীপুর মেট্রোপলিটন বাসন থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক চিত্র নায়িকা মাহিয়া মাহির স্বামী ব্যাবসায়ী রকিব সরকার দুই মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা নিয়ে পবিত্র ওমরা পালন শেষে রোববার দেশে ফিরেছেন। সকাল পৌনে দশটার দিকে তিনি ঢাকায় হযরত শাহজালাল (রাঃ) আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে তিনি নামেন। সেখান থেকে ঢাকায় তার বাস ভবনে চলে যান। তিনি নিজেই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রকিব সরকার বলেন, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই আমার বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলাগুলো আইনিভাবেই মোকাবেলা করবো। সত্যের জয় হবে। আমি কোন অপরাধ করিনি। সকালে স্বামীকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়ার একটি ছবি মাহি তার ফেসবুকে দিয়ে আলহামদুলিল্লাহ লিখে পোষ্ট করেন।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি (মিডিয়া) আসাদুজ্জামান বলেন, তিনি দেশে এসেছেন কিনা বিষয়টি আমাদের জানা নেই। তার বিরুদ্ধে যেহেতু মামলা আছে সেহেতু আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এর আগে শনিবার সকালে ওমরা পালন শেষে ঢাকায় আসেন তার স্ত্রী মাহিয়া মাহি। বিমানবন্দর থেকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে বাসন থানায় নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। বেলা পৌনে দুইটার দিকে তাকে গাজীপুর জেলা কারাগারে নেওয়া হয়। পরে বিকাল ৫ টার দিকে মাহিয়া মাহির আইনজীবীরা আদালতে তার জামিন আবেদন করলে আদালত মাহিয়া মাহিকে জামিন প্রদান করেন। পরে রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি কারাগার থেকে মুক্তি লাভ করেন।

কারামুক্ত হয়ে তিনি তাদের ফারিশতা রেষ্টুরেন্টের সামনে এক প্রেস ব্রিফিং করেন। সেখানে তিনি বলেন, তাকে গ্রেফতারের পর পুলিশ তার সঙ্গে মানবিক আচরণ করেনি। তিনি এক গ্লাস পানি চাইলেও পুলিশ তাকে এক ঘন্টা পর পানি দেয়।

তিনি পুলিশকে বলেছেন, নয় মাসের অন্তঃসত্তা এবং অসুস্থ্য প্রচন্ড গরমে শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। তখন পুলিশ তাকে বলছিল এভাবে যেতে হবে। তারপরও তার প্রতি অমানবিক আচরণ করা হয়। বিমান বন্দরে কারো সাথে কথা পর্যন্ত বলতে দেওয়া হয়নি। তিনি আরো বলেন, ফেসবুক লাইভে তিনি পুলিশ প্রশাসন নিয়ে কোন মন্তব্য করেননি। তিনি একজন ব্যক্তিকে নিয়ে কথা বলেছেন। তিনি আশংকা প্রকাশ করে বলেন, পুলিশ তার সঙ্গে যে আচরণ করেছে তার স্বামী দেশে আসলে তার সঙ্গে আরো বেশি খারাপ আচরণ ও হয়রানি করা হতে পারে। ফেসবুক লাইভে এসে কথা বলার কারণে তিনি ক্ষমা চেয়ে দুঃখ প্রকাশ করেন। তবে পুলিশ কমিশনারের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ থেকে সরে যাননি। সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে তিনি এসব ঘটনার বিচার দাবি করেন। তিনি দাবি করেন অন্যায়ভাবে তাদের গাড়ির শোরুমে হামলা ও ভাংচুর করা হলো অথচ পুলিশ উল্টো আমাদের এবং আমাদের কর্মচারীদের নামে মামলা দিয়েছে। কয়েকজনকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে। তবে তিনি কারা কর্তৃপক্ষ ধন্যবাদ জানান। কারাকর্তৃপক্ষ তাকে অনেক সম্মান দেখিয়ে মানবিক আচরণ করেছেন বলেও জানান।

রকিব সরকারের পুরাতন তিন মামলা সচল হচ্ছে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম শনিবার এক প্রেস ব্রিফিংএ বলেন, রকিব সরকারের বিরুদ্ধে খুন, ধর্ষণ ও অস্ত্র মামলা রয়েছে। মামলা গুলির ঘটান সত্য কিন্তু ওইসব মামলার স্বাক্ষ্য-প্রমাণ না পাওয়া সেসব মামলা পুলিশ ফাইনাল রিপোর্ট দিয়েছিল। পুলিশ যে কোন সময় মামলাগুলি সচল করতে পারে স্বাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে। আমরা মামলাগুলি খতিয়ে দেখছি। মামলা গুলির কিছু স্বাক্ষ্য প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। মামলা গুলি হচ্ছে- জয়দেবপুর থানার মামলা নং ৭১, তারিখ ১২-১০-২০১৭, জয়দেবপুর থানার মামলা নং ৫৯, তারিখঃ ০১-১০-২০১৭ ও জয়দেবপুর থানার মামলা নং ১৪৭, তারিখঃ ২৭-০৪-২০১৭।


আরও খবর



বিদ্যুতের প্রিপেইড মিটারে বাড়তি চার্জ : সংশ্লিষ্টদের আইনি নোটিশ

প্রকাশিত:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

জরুরি ভিত্তিতে বিদ্যুতের বিলিং প্র্যাকটিস পর্যালোচনা ও নিরীক্ষা, স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ড, জনসাধারণের সঙ্গে যোগাযোগ এবং নীতি সংস্কার করার দাবি জানিয়ে সংশ্লিষ্টদের লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এ এম জামিউল হক ফয়সাল, কামরুল হাসান রিগ্যান ও জাকির হায়দারের পক্ষে অ্যাডভোকেট আব্দুল্লাহ আল হাদী এ নোটিশ পাঠান। বুধবার অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সচিব, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন, বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ড, বাংলাদেশ রুরাল ডেভেলপমেন্ট বোর্ড, ডেসকো, ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, নর্দার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি ও ডিপিডিসির কর্তৃপক্ষকে এ লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়।

নোটিশে বলা হয়, প্রিপেইড মিটার চালু হওয়া সত্ত্বেও ভোক্তারা অতিরিক্ত চার্জ, গোপন চার্জ এবং স্বচ্ছতার অভাবসহ বিভিন্ন কারণে অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন। সমস্যাগুলো ব্যাপক অসন্তোষ ও আর্থিক কষ্টের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এখনো কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। এ অবস্থায়, জরুরি ভিত্তিতে বিলিং প্র্যাকটিস পর্যালোচনা ও নিরীক্ষা, স্বচ্ছতা, অতিরিক্ত চার্জের রিফান্ড, জনসাধারণের সঙ্গে যোগাযোগ এবং নীতি সংস্কার প্রয়োজন।

নোটিশে আরও বলা হয়, আগামী ২৬ মের মধ্যে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়েছে। এর ব্যত্যয় হলে প্রয়োজনীয় আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করার ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করেন আইনজীবীরা।

তারা জানান, বাংলাদেশে প্রিপেইড মিটার চালু করা হয়েছে। ২০২৫ সালের মধ্যে সকল বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীকে এর আওতায় আনা হবে বলে ঘোষণা রয়েছে। কিন্তু এরপরও ভোক্তারা অতিরিক্ত চার্জ, গোপন চার্জ এবং স্বচ্ছতার অভাবসহ নানাভাবে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

নিউজ ট্যাগ: প্রিপেইড মিটার

আরও খবর



এইচএসসির প্রবেশপত্র পাওয়ার তারিখ প্রকাশ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রবেশপত্র আগামী ১০ জুন দেওয়া শুরু হবে, শেষ হবে ১১ জুন। এই প্রবেশপত্র কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কাছে বিতরণ করবে ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এক চিঠিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ২০২৪ সালের এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র উল্লিখিত সময়সূচি অনুযায়ী বোর্ডের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা শাখা থেকে বিতরণ করা হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নিজে অথবা তার প্রাধিকারপ্রাপ্ত কোনো শিক্ষককে (স্বাক্ষর সত্যায়িতসহ) কেন্দ্রের আওতাধীন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রবেশপত্র অফিস চলাকালীন গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হলো।

কোনো অবস্থায়ই শিক্ষক ছাড়া অন্য ব্যক্তিকে প্রবেশপত্র গ্রহণ করার ক্ষমতা দেওয়া যাবে না। কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হলে আবেদনপত্রে গভর্নিং বডির সভাপতি-জেলা প্রশাসক-উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রতিস্বাক্ষর থাকতে হবে।

এতে আরও বলা হয়, টাঙ্গাইল, নরসিংদী, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলায় ১০ জুন এবং ঢাকা মহানগর, ঢাকা জেলা, গাজীপুর, মুন্সিগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও মানিকগঞ্জ জেলায় ১১ জুন প্রবেশপত্র বিতরণ করা হবে। আর প্রবেশপত্রে কোনো ভুল থাকলে তা সংশোধনের জন্য অবশ্যই ২৩ থেকে ২৭ জুনের মধ্যে উপপরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে নির্ধারিত ছক অনুযায়ী আবেদন করে ঠিক করে নিতে হবে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ জুন শুরু হবে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা। এরইমধ্যে পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ করেছে শিক্ষা বোর্ড।


আরও খবর



বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে কঠোর নজরদারি রয়েছে : সেনাপ্রধান

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কঠোর নজরদারি রয়েছে। পরিস্থিতি এখনো নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। যেকোনো পরিস্থিতিতে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী ও নৌবাহিনী প্রস্তুত রয়েছে।

শনিবার (১৫ জুন) দুপুরে শরীয়তপুরের শেখ রাসেল সেনানিবাসে নবগঠিত ১২৯ ব্রিগেড সিগন্যাল কোম্পানির পতাকা উত্তোলন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সেনাপ্রধান বলেন, আমাদের কথা একেবারে পরিষ্কার। দেশে যদি ভবিষ্যতে আক্রমণ হয়, সেক্ষেত্রে প্রতিহত করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী যে প্রস্তুত সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। বর্ডার ভায়োলেশন, যেমন রোহিঙ্গাদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে ওইখানে কোস্ট গার্ড ও বিজিবি রয়েছে। তারা বিষয়টি সম্পূর্ণ তদারকি করছে। সরকারের নিদের্শনা অনুযায়ী ব্যবস্থাও নিচ্ছে। আমরা প্রস্তুত আছি, যদি লেভেল ক্লোজ করে তাহলে সমুচিত ব্যবস্থা আমরা নেব।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী জাতিসংঘ মিশনে সফলভাবে দায়িত্ব পালন করে আসছে। বর্তমানে কুয়েত ও কাতারে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্যরা সফলতার সঙ্গে কাজ করছে। ভবিষ্যতে এসব দেশে সেনাসদস্য সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে। পদ্মা সেতুর নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক কাজ করছে শেখ রাসেল সেনানিবাস।

বিদায়ী সেনাপ্রধান বলেন, আমার দায়িত্বকালীন সময়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে সেবার মানসিকতা নিয়ে প্রদত্ত দায়িত্বসমূহ যথাযথভাবে পালন করতে পারায় আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। বিশ্বব্যাপী বাংলাদেশের মর্যাদা সমুন্নত ও স্বাধীন ভূখণ্ড নিরাপদ রাখতে অর্পিত সকল দায়িত্ব পালন করতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অঙ্গীকারবদ্ধ। দেশের সংকটময় মুহূর্তসহ যেকোনো পরিস্থিতিতে অকুতোভয় দায়িত্ব পালনে সেনাবাহিনী সদা প্রস্তুত।

অনুষ্ঠান শুরুর আগে দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে আকাশপথে বরিশাল থেকে শরীয়তপুরের শেখ রাসেল সেনানিবাসে আসেন সেনাপ্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ। আগামী ২৩ জুন অবসরে যাবেন তিনি। দীর্ঘ ৪৩ বছর সফলতার সঙ্গে একটি বাহিনীতে কাজ করে প্রধান হিসেবে দায়িত্ব শেষ করা ভাগ্যের ব্যাপার বলে উল্লেখ করেন তিনি।

পতাকা উত্তোলন ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নতুন সেনাপ্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামান, সেনা সদরের জ্যেষ্ঠ সামরিক কর্মকর্তাগণসহ ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাগণ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন শরীয়তপুর-২ (নড়িয়া-সখিপুর) আসনের সংসদ সদস্য একেএম এনামুল হক শামীম, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ নিজাম উদ্দিন আহম্মেদ ও পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুল আলম।


আরও খবর



ইয়েমেনে নৌকা ডুবে নিহত ৩৮, নিখোঁজ ১০০

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পশ্চিম এশিয়ার দেশ ইয়েমেনে নৌকাডুবে অন্তত ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া নিখোঁজ রয়েছেন ১০০ জন যাত্রী। স্থানীয় সময় সোমবার (১০ জুন) দেশটির লোহিত সাগর উপকূলবর্তী বন্দর শহর এডেনে এ ঘটনা ঘটে।

রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানায়, হর্ন অফ আফ্রিকা থেকে ইয়েমেনের এডেন শহরে একটি নৌকা যাচ্ছিল। নৌকাটি এডেনের পূর্বে শাবওয়া গভর্নরেটের তীরে পৌঁছানোর আগেই ডুবে যায়। পরে ৩৮ জনের দেহ এবং ৭৮ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। আরও ১০০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধারকাজ চলছে।

অভিযাত্রীদের সবাই আফ্রিকার হর্ন অব অফ্রিকা’ অঞ্চলের চার দেশ ইথিওপিয়া, ইরিত্রিয়া, জিবুতি ও সোমালিয়ার বাসিন্দা।

জাতিসংঘের তথ্যমতে, ২০২৩ সালে আফ্রিকা ও এশিয়া থেকে এডেন বন্দরে অন্তত ৯৭ হাজার অভিবাসনপ্রত্যাশী এসেছেন। সাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার লক্ষ্য তাদের।

উল্লেখ্য, তুরস্ক ও লিবিয়ার পাশপাশি সম্প্রতি ইয়েমেনের এডেন বন্দর শহরও সাগরপথে ইউরোপে যেতে ইচ্ছুক অভিবাসনপ্রত্যাশীদের ভিড় বাড়ছে। তাদের অধিকাংশই আফ্রিকার দেশগুলো থেকে আসা।


আরও খবর



ঠাকুরগাঁওয়ের সেই স্বর্ণের পাহাড়ের মাটি পরীক্ষায় নেমেছে ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তর

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রেদওয়ানুল হক মিলন, ঠাকুরগাঁও

Image

সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে এবার ঠাকুরগাঁওয়ের সেই স্বর্ণের পাহাড়ে মাটি পরীক্ষায় নেমেছে ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে জেলার রাণীশংকৈল উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের কাতিহার এলাকায় আরবিবি ইটভাটার মাটি পরীক্ষা- নিরিক্ষা করেন ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (ভূতত্ত্ব) আনোয়ার সাদাৎ মুহাম্মদ সায়েম ও সহকারী পরিচালক (ভূতত্ত্ব) মোহাম্মদ আল রাজী।

গত এক মাস ধরে ওই ইউনিয়নের আরবিবি ইটভাটায় বিভিন্ন স্থান থেকে আনা মাটি খুড়লেই পাওয়া যাচ্ছে সোনা এ খবরে এলাকার লোকজন হুমড়ি খেয়ে পড়ে। কোদাল-বশিলা ও সাবল নিয়ে স্বর্ণের খোঁজে মাটি খুড়তে থাকে তারা। এভাবে মাটি খোঁড়া চলতে থাকলে উপজেলা প্রশাসন আইনশৃঙ্খলার অবনতি কথা চিন্তা করে শনিবার (২৫ মে) রাত সাড়ে ১০টার দিকে ১৪৪ ধারা জারি করেন এবং সেই স্থানে লাল ফ্লাগ উড়িয়ে দেওয়াসহ অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

তবে সোনা পাওয়ার বিষয়টি কতটুকু সত্য তা যাচাইয়ে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মেহেদী হাসান শুভ ইটভাটার স্তুপের মাটি ও মাটি সরবরাহকৃত স্থানসহ অন্যান্য মাটি পরীক্ষা করতে মঙ্গলবার (২৮ মে) ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তরে আবেদন করেন।

পরবর্তীতে ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তর দুইজন সহকারী পরিচালক (ভূতত্ত্ব) কে সোমবার থেকে আজ বুধবার পর্যন্ত মাটির স্তূপ সহ অন্যান্য স্থানের মাটি পরীক্ষা, অনুসন্ধান ও স্ক্যান করে প্রতিবেদন প্রকাশের জন্য নির্দেশ দেয়।

এ বিষয়ে ভূতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আনোয়ার সাদাৎ মুহাম্মদ সায়েম বলেন, আমরা তিনটি স্থানের মাটির নমুনা সংগ্রহ করেছি। এরপর এ মাটির নমুনা প্রতিবেদনসহ সংশ্লিষ্ট ল্যাবরেটরিতে জমা দেবো পরীক্ষার জন্য। তবে পরীক্ষার আগে কিছুই বলা যাবে না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাণীশংকৈল উপজেলা নির্বাহী অফিসার রকিবুল হাসান, বাচোর ইউপি চেয়ারম্যান জীতেন্দ্রনাথ বর্মণ প্রমুখ।


আরও খবর