আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

ফোনে কল রেকর্ডিং ফিচার বন্ধ করবে গুগল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ এপ্রিল 20২২ | ৭৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ১১ মে থেকে অ্যানড্রয়েড ফোনে কল রেকর্ডিং ফিচার বন্ধ করে দিচ্ছে বিশ্বের অন্যতম প্রযুক্তি কোম্পানি গুগল। স্মার্টফোনের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ডেভেলপ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

গুগলের পক্ষে এক ব্লগ পোস্টে জানানো হয়েছে, থার্ডপাটি অ্যাপসের মাধ্যমে অ্যানড্রয়েড ফোনে কল রেকর্ডিং করা যাবে না। কল রেকর্ডিং করতে হবে ফোনের বিল্টইন রেকর্ডার দিয়ে। তবে অনেকের ফোনে বিল্টইন রেকর্ডিং ফিচার না থাকায় ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন ধরনের থার্ডপার্টি অ্যাপ ব্যবহার করেন। যদিও নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী এবার থেকে সেই সুবিধা পাবেন না ব্যবহারকারীরা।

জানা গেছে, গুগল প্লে স্টোরের পলিসি পরিবর্তিত হয়েছে। তাই বন্ধ করা হয়েছে এই পরিষেবা। তবে যে সব ব্যবহারকারীর ফোনে বিল্টইন কল রেকর্ডিং ফিচার রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে কোনো সমস্যা হবে না। সহজেই তারা ফোনে কল রেকর্ড করতে পারবেন। অ্যান্ড্রয়েডে এখন যেভাবে বিল্টইন অ্যাপের মাধ্যমে রেকর্ড করা হয়, ঠিক তেমনই কল রেকর্ড করা সম্ভব হবে।

থার্ডপার্টি কল রেকর্ডিং ব্লক করা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই কাজ করে আসছে গুগল। যেসব ফোন অ্যানড্রয়েড ১০, ১১ এবং ১২ অপারেটিং সিস্টেমে চলে তাদের ফোনে কল রেকর্ডিং ফিচার রয়েছে। যাদের ফোনে পুরনো ভার্সনের অপারেটিং সিস্টেম তারা ১১ মে থেকে অসুবিধায় পড়বেন। তবে গুগল ঠিক কী কারণে থার্ডপার্টি অ্যাপের মাধ্যমে কল রেকর্ডিং বন্ধ করছে সে বিষয়ে স্পষ্ট করেনি।

ধারণা করা হচ্ছে, থার্ডপার্টি অ্যাপসগুলো নিজেদের সার্ভারে ওই কল রেকর্ডিংয়ের ডেটা সেভ করতে পারে। ফলে ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



ঈদের আগে কমল স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্ববাজারে দাম কমার প্রেক্ষিতে ঈদের আগে কমল স্বর্ণের দাম। সব থেকে ভালো মানের স্বর্ণের দাম ভরিতে ১ হাজার ১৬৭ টাকা কমিয়ে নতুন দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে ভালো মানের প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৭৭ হাজার ৬৮২ টাকা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) থেকে স্বর্ণের এ নতুন দাম কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

ভালো মানের স্বর্ণের পাশাপাশি কমানো হয়েছে সব ধরনের স্বর্ণের দাম। মান অনুযায়ী প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম কমানো হয়েছে ৭৫৮ টাকা থেকে ১ হাজার ১৬৭ টাকা পর্যন্ত। তবে রুপার দামে কোনো পরিবর্তন আসেনি।

বাজুসের মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটি সোমবার (২৫ এপ্রিল) বৈঠক করে স্বর্ণের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়। পরবর্তী সময়ে মূল্য নির্ধারণ ও মূল্য পর্যবেক্ষণ সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এনামুল হক ভূইয়া লিটন সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে দাম কমানোর এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে।

নতুন মূল্য অনুযায়ী, সবচেয়ে ভাল মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৭ টাকা কমিয়ে করা হয়েছে ৭৭ হাজার ৬৮২ টাকা।

২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৭৪ হাজার ১৮৩ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ৯৯১ টাকা কমিয়ে ৬৩ হাজার ৫৬৯ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৭৫৮ টাকা কমিয়ে ৫৩ হাজার ৭১ টাকা করা হয়েছে।

স্বর্ণের দাম বাড়লেও রুপার আগের নির্ধারিত দামই বহাল রয়েছে। ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে এক হাজার ৫১৬ টাকা, ২১ ক্যারেটের এক হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের এক হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি রুপার দাম ৯৩৩ টাকা।

এর আগে স্থানীয় বুলিয়ান মার্কেটে দাম বাড়ার প্রেক্ষিতে গত ১২ এপ্রিল থেকে দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম বাড়ানো হয়। তখন সবচেয়ে ভাল মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৭৫০ টাকা বাড়িয়ে ৭৮ হাজার ৮৪৯ টাকা করা হয়েছিল।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ৭৪৯ টাকা বাড়িয়ে ৭৫ হাজার ৩৪৯ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ৪৫৮ টাকা বাড়িয়ে ৬৪ হাজার ৫৬০ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ১ হাজার ২২৪ টাকা বাড়িয়ে করা হয়েছিল ৫৩ হাজার ৮২৯ টাকা। সোমবার পর্যন্ত দেশের বাজারে এ দামেই স্বর্ণ বেচাকেনা হয়েছে।


আরও খবর



মাঙ্কিপক্স নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে মাঙ্কিপক্সে আরও মানুষ আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকলেও রোগটির বিস্তার নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব বলে আশা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) বিশেষজ্ঞরা সদ্যই আগামী কয়েক সপ্তাহে আরও বেশি মানুষের মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হতে দেখার জন্য বিশ্বের দেশগুলোকে প্রস্তুত থাকতে বলেছেন।

কিন্তু তার মানে এই নয় যে, পরিস্থিতি দিন দিন খারাপের দিকে যাচ্ছে বা রোগটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে। বরং স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই বলেছেন, ‌এ রোগ সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণযোগ্য।

তাদের এ বিশ্বাসের পেছনে কারণ হিসেবে তারা বলেছেন, যদিও রোগের এবারের প্রাদুর্ভাব খানিকটা অস্বাভাবিক। তারপরও বলা যায়, অন্যান্য ভাইরাসজনিত রোগ যেমন কোভিডের মতো এটি সহজে মানুষ থেকে মানুষে ছড়ায় না।

আমরা জানি এজন্য খুবই ঘনিষ্ঠ শারীরিক স্পর্শের প্রয়োজন হয়। সাধারণত আক্রান্ত একজনের চামড়ার সঙ্গে অন্যজনের চামড়ার সংস্পর্শ থেকে এ রোগ ছড়ায়।

এছাড়া, এটা কোভিডের মত বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মৃদু বা উপসর্গহীন নয়। বরং মাঙ্কিপক্সে আক্রান্ত হলে শরীর খারাপ করবে এবং শরীরে ফোস্কার মত গোটা দেখা দেবে। তাই কেউ এ রোগে আক্রান্ত কিনা সেটা জানতে পরীক্ষা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না।

আরেকটি বিষয় হচ্ছে, সরাসরি এই রোগের টিকা এখনো সহজলভ্য না হলেও গুটিবসন্তের টিকা দিয়ে এ ভাইরাস প্রায় ৮৫ শতাংশ প্রতিরোধ করা সম্ভব। কারণ, দুই ভাইরাসের মধ্যে মিল রয়েছে।

এমনকী মাঙ্কিপক্স প্রতিরোধের জন্য সবার টিকা নেওয়াও প্রয়োজন নেই বলেও মত ডব্লিউএইচও বিশেষজ্ঞদের।

টিকার বিষয়ে ডা. রোসামুন্ড লুইস বিবিসি-কে বলেন, বিশ্ব থেকে গুটিবসন্ত বিলুপ্ত হয়েছে। ওই সময়ে কয়েকটি গবেষণায় দেখা গেছে গুটিবসন্তের টিকা মাক্সিপক্সের বিরুদ্ধে প্রায় ৮৫ শতাংশ কার্যকর।

মাঙ্কিপক্সের টিকাও আছে। কিন্তু সেটা তুলনামূলক নতুন এবং সব জায়গায় পাওয়া যায় না। যদিও ডব্লিউএইচও কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা টিকা আরও সহজলভ্য করতে কাজ করছেন।

তবে সবার জন্য টিকার প্রয়োজন নেই বলে মত ডব্লিউএইচও বিশেষজ্ঞ ডা. মারিয়া ফন কেরখোভের। তিনি বলেন, ‘‘এ রোগ শুধুমাত্র ঘনিষ্ঠ শারীরিক সংস্পর্শের মাধ্যমে ছড়ায়।


আরও খবর



ঢাকায় অবৈধ ইটভাটার অর্ধেকেরও বেশি সচল

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা জেলায় ১১৬টি অবৈধ ইটভাটা ধ্বংসের লক্ষ্য নিয়ে চলতি বছরের শুরু থেকে অভিযানে নামে পরিবেশ অধিদপ্তর ঢাকা জেলা। সাড়ে পাঁচ মাস শেষে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৪৪টি ইটভাটায় অভিযান সম্পন্ন করে পরিবেশ অধিদপ্তর। পরিসংখ্যান-মতে, এখন পর্যন্ত ঢাকায় অর্ধেকের বেশি অবৈধ ইটভাটা চালু রয়েছে। ইটভাটায় অভিযানের পর কোনো রকম তদারক করছে না পরিবেশ অধিদপ্তর। ফলে বন্ধের পরও নতুন করে চালু হচ্ছে ইটভাটাগুলো। পরিবেশ দূষণ রোধে অধিদপ্তরের তদারকি জোরদার করার মাধ্যমে অবৈধ ইটভাটা বন্ধ রাখার দাবি জানিয়েছেন পরিবেশবিদরা।

ঢাকা ছাড়াও আশপাশের পাঁচ জেলায় ৩১৯টি অবৈধ ইটভাটা রয়েছে। ইটভাটাগুলো বন্ধ করার জন্য পরিবেশ আইনবিদ অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ হাইকোর্টে রিট করলে গত ১ মার্চ ঢাকা জেলার সব অবৈধ ইটভাটা ধ্বংসের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ১৫ দিনের মধ্যে আদেশ বাস্তবায়নের সময়সীমা বেঁধে দিলেও বেশির ভাগ ভাটাই দিব্যি চলছে। পরিবেশ অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী ঢাকায় এখনো অবৈধ ৭২টি ইটভাটা সচল রয়েছে। পরিবেশ আইনের তোয়াক্কা না করে লোকালয় ও ফসলি জমির পাশে গড়ে উঠেছে এসব ভাটা। ভাটার কালো ধোঁয়ায় জনস্বাস্থ্যের পাশাপাশি ফসল ও গাছপালার ক্ষতি হচ্ছে। পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের জন্য হুমকি বিবেচনায় এসব ভাটাকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়।

অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস করতে তত্পর পরিবেশ অধিদপ্তর। প্রায় প্রতিদিনই অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে সক্ষমতার অভাবে কার্যকারিতা হারাচ্ছে এসব অভিযান। সূত্রমতে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ইটভাটা ভেঙে দেয়া ও জরিমানা আদায়ের পরের দিনই আবার সেগুলো চালু হয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি স্বীকার করেছেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তাও। তিনি  বলেন, আমাদের সক্ষমতায় মারাত্মক অভাব রয়েছে। ১০০টি অবৈধ ইটভাটায় অভিযান করতে অন্তত বছরখানেক সময় লেগে যায়। এ সময়ের মধ্যে যেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে সেখানের অবস্থা পর্যবেক্ষণের সুযোগ আর হয় না। ফলে ওইসব এলাকায় উচ্ছেদ-জরিমানার পর পরই ফের অবৈধভাবে চলতে থাকে ইটভাটাগুলো।

পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের পরও কেরানীগঞ্জেও অবৈধ ইটভাটাগুলো চলছে। সম্প্রতি কেরানীগঞ্জের ঘোষকান্দা, ব্রাহ্মণগাঁও, জাজিরা, রাজেন্দ্রপুর ও বাঘৈর এলাকায় সরেজমিনে দেখা গিয়েছে, অবৈধ ভাটায় ইট পুড়িয়ে পরিবেশ দূষণ চলছে। পোড়ানো হচ্ছে কাঠ। আবাসিক এলাকা এমনকি ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের পাশে রাজেন্দ্রপুরের বাঘৈর এলাকায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের উত্তর পাশে পাঁচটি ইটভাটা চলছে। একাধিকবার পরিবেশ অধিদপ্তর অভিযান পরিচালনা করলেও এখনো চলছে ভাটাগুলো। বাংলাদেশ ইট প্রস্তুতকারক মালিক সমিতির সাবেক মহাসচিব মো. আবু বকর  বলেন, কেরানীগঞ্জে বেশির ভাগ ভাটা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বন্ধ করে দেয়ার পরও অনেক ইটভাটা সচল রয়েছে।

ভাটায় অভিযান প্রসঙ্গে পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলার উপপরিচালক জহিরুল ইসলাম  বলেন, সামর্থ্য অনুযায়ী আমরা অবৈধ ভাটার বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে ব্যবস্থা নিচ্ছি। ফায়ার সার্ভিস, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীসহ সবার সমন্বয়ে আমাদের এ কাজ করতে হয়। তাই সবার সহযোগিতা না পেলে অভিযান পরিচালনা করাটা জটিল হয়ে পড়ে।

ভাটা বন্ধের পর চালু করা প্রসঙ্গে জহিরুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতা ছাড়া পুরো বিষয়টি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব নয়। আমরা তো ভেঙে আগুন নিভিয়ে দিয়ে আসি। এরপর তারা শুরু করলে, সে তথ্য না পাওয়া পর্যন্ত আসলে কিছুই করার থাকে না। তাছাড়া যাদের সহযোগিতা করার কথা, অনেক সময় বারবার বলেও তাদের সহযোগিতা পাওয়া যায় না।

ইটভাটা বন্ধ ও বায়ুদূষণ রোধে স্থানীয় প্রশাসনের ভূমিকা সন্তোষজনক নয় বলে মন্তব্য করেছেন মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের সভাপতি সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। তিনি বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের সার্বিক সক্ষমতা সন্তোষজনক নয়। তাছাড়া কোথাও অভিযানের পর সেখানের পরবর্তী পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে না পরিবেশ অধিদপ্তর। ফলে জরিমানা ও ভেঙে দেয়ার পরও ইটভাটাগুলো বন্ধ রাখা যাচ্ছে না।

নিউজ ট্যাগ: পরিবেশ অধিদপ্তর

আরও খবর



চাঁদপুরে স্ত্রীকে জবাই করে পালালো স্বামী

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৫১৫জন দেখেছেন

Image

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুর সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের মুন্সিরহাট এলাকায় রুপা বেগম (২৮) নামে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যা করেছে ছেলের অভিযোগ। নারীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে ওই এলাকার দনপর্দ্দি গ্রামের মজিদ প্রদানিয়া বাড়ির নীচতলা থেকে মরদেহ উদ্ধার করে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ।

নিহত রুপা বেগম একই ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের বাংলাবাজার এলাকার প্রধানিয়া বাড়ির নাছির দেওয়ানের স্ত্রী। তার দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। ঘটনার পর থেকে ওই নারীর স্বামী নাছির দেওয়ান পলাতক রয়েছেন। রুপা বেগম এর পিতার বাড়ি সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের কমলাপুর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, নাছির দেওয়ান স্ত্রী সন্তান নিয়ে মজিদ প্রধানিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন। পেশায় রং মিস্ত্রি। রবিবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা সংবাদ দিলে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। কি কারণে এই ঘটনা কেউই এই মুহুর্তে বলতে পারছে না।

এদিকে, সংবাদ পেয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), পিবিআই ও পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।


আরও খবর



বৈঠক চেয়েও পুতিনের জবাব পাননি পোপ

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের যুদ্ধ থামাতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মুখোমুখি বসতে চান পোপ ফ্রান্সিস। যেতে চান মস্কোয়। কিন্তু এই মর্মে তাঁর বার্তা ক্রেমলিনে পৌঁছলেও কোনও উত্তর আসেনি। এ বার পোপ নিজেই সেই কথা জানিয়ে বলেছেন, দোরগোড়ায় নেটোর এসে পড়াটাই হয়তো রাশিয়ার আগ্রাসনের কারণ।

ইতালির একটি সংবাদপত্রকে পোপ বলেছেন, আমার এখন কিভে যাওয়া উচিত নয়। প্রথমে মস্কো গিয়ে পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে হবে। যুদ্ধের দিন কুড়ির মাথায় পুতিনকে বার্তা পাঠিয়েছিলাম। এখনও জবাব আসেনি। আমরা বিষয়টিতে জোর দিয়ে চলেছি। যদিও আশঙ্কা, পুতিন এই সময়ে এই বৈঠকটা করতে চাইবেন না অথবা বলা যায়, এখন বৈঠকে বসতে পারবেন না। ইউক্রেনের যুদ্ধের সমালোচনা করে পোপ বার বার শান্তির বার্তা দিলেও এত দিন তিনি পুতিনের নাম করেননি।

এ বার পুতিনের সঙ্গেই তাঁর পৃষ্ঠপোষক তথা রুশ অর্থোডক্স গির্জার প্রধান পেট্রিয়ার্ক কিরিলের উদ্দেশেও বার্তা দিয়েছেন রোমান ক্যাথলিক চার্চের প্রধান। কিরিল ইতিমধ্যেই পুতিনের সামরিক অভিযানকে সমর্থন করেছেন। পোপ জানান, গত মার্চের ভিডিয়ো-সাক্ষাতে কিরিলকে তিনি বলেছিলেন, রাজনীতি নয়, আমাদের জিশুর ভাষায় কথা বলা উচিত।

ইউক্রেনের মারিয়ুপোলের আজ ভস্টল ইস্পাত কারখানা এত দিন শুধু অবরুদ্ধ করে রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন পুতিন। রাষ্ট্রপুঞ্জের খবর, গত কাল সেখান থেকে উদ্ধার হওয়া ১২৭ জন সাধারণ নাগরিককে নিয়ে প্রথম কনভয় জাপোরিজিয়া শহরে পৌঁছেছে। আর আজই রুশ বাহিনী ওই কারখানার দখল নিতে ঝাঁপিয়ে পড়েছে বলে ইউক্রেনের আজ ভরেজিমেন্টের কমান্ডার জানিয়েছেন।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দাবি, আমেরিকা ও ইউরোপের বিভিন্ন দেশ ইউক্রেনকে যে সব অস্ত্রশস্ত্র দিয়েছিল, তার একটি বড় অংশই আজ ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে, ওডেসা শহরের কাছে একটি বিমানঘাঁটির হ্যাঙারে বেরাকটার টিবি-২ ড্রোন, ক্ষেপণাস্ত্র ও গোলাবারুদ মজুত করে রেখেছিল ইউক্রেনীয় বাহিনী। সেখানেই আজ রাশিয়ার হাই-প্রিসিশন ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত হানে। ওই হ্যাঙার ছাড়াও ইউক্রেনীয় বাহিনীর এক বা একাধিক কমান্ড সেন্টার, একটি এস-৩০০ বিমান-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাও ধ্বংস হয়েছে বলে রাশিয়ার দাবি।

তবে ভরসা জুগিয়েছেন বরিস জনসন। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আজ জানান, ইউক্রেনকে আরও ৩৭.৬০ কোটি ডলারের সামরিক সাহায্য দেবেন তিনি। যুদ্ধ শুরুর পরে প্রথম বিদেশি রাষ্ট্রনেতা হিসেবে আজ ভিডিয়ো লিঙ্কের মাধ্যমে ইউক্রেনের পার্লামেন্টে বক্তৃতা দেন জনসন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নাৎসি বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্রিটেনের লড়াইয়ের সঙ্গে কিভের প্রতিরোধের তুলনা করে তিনি বলেন, ইউক্রেন জিতবে। মুক্ত হবে। ইউক্রেনকে বৈদ্যুতিন যুদ্ধ সরঞ্জাম ও অত্যাধুনিক রেডার ব্যবস্থা দেওয়ার কথাও জানিয়েছে ব্রিটেন।

আজ একটি আমেরিকান সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, ক্যানসারের চিকিৎসার জন্য প্রেসিডেন্ট পদ থেকে কিছু দিনের জন্য অব্যাহতি নিতে পারেন পুতিন। রাশিয়ার এক প্রাক্তন গোয়েন্দা কর্তার চালানো টেলিগ্রাম চ্যানেলের খবরের ভিত্তিতে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চিকিৎসকেরা পুতিনকে অস্ত্রোপচার করানোর পরামর্শ দিয়েছেন।

সে ক্ষেত্রে অস্ত্রোপচারের ধাক্কা সামলে পুরোপুরি সুস্থ না হয়ে ওঠা পর্যন্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব অস্থায়ী ভাবে তিনি দিতে পারেন রাশিয়ার জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব নিকোলাই পাত্রুশেভকে। সাম্প্রতিক কালে পুতিনের কিছুটা শীর্ণ চেহারা, শারীরিক অস্বস্তিতে ভোগার মতো আচরণ এমনকি পার্কিনসন্সের সম্ভাব্য লক্ষণ নিয়েও জল্পনা হয়েছে। ক্যানসার সংক্রান্ত খবরের প্রেক্ষিতে পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কার্বি অবশ্য বলেছেন, এই বিষয়ে নিশ্চিত হওয়ার মতো কোনও তথ্য তাঁদের হাতে নেই।


আরও খবর