আজঃ রবিবার ০১ অক্টোবর ২০২৩
শিরোনাম

এশিয়া কাপের সিদ্ধান্ত নেবে এসিসি

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ মে ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

ভারত-পাকিস্তান দ্বন্দ্বের কারণে অনিশ্চয়তার সুতোয় ঝুলছে এশিয়া কাপের ভাগ্য। ভারতের আপত্তির মুখে ইতোমধ্যে আয়োজক পাকিস্তানের পক্ষ থেকে একাধিক মডেলের প্রস্তাবনা আসলেও কোন কিছুতেই যেন মন গলছে না চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের। এই টুর্নামেন্টকে আলোর মুখ দেখাতে মরিয়া পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। কয়েক দিন আগেই পাকিস্তানি সংবাদ মাধ্যমের খবরে বলা হয়েছিল, হাইব্রিড মডেলে মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপ, যেখানে অংশগ্রহণ করবে ভারতও। কিন্তু চিত্রনাট্যে আরও একবার পরিবর্তন!

পিসিবি প্রস্তাবিত হাইব্রিড মডেলের এশিয়া কাপে রাজি নয় বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। ভারত চায় এশিয়া কাপ হোক একটি নিরপেক্ষ ভেন্যুতে, পাকিস্তান ও অন্য একটি দেশ মিলিয়ে দুই ধাপে নয়।

আরও পড়ুন<< কেন দলে জায়গা পাননি লাউতারো মার্তিনেজ

বিসিসিআই সচিব জয় শাহ বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানদের কাছে ভারতের অবস্থান তুলে ধরেছেন। রোববার আহমেদাবাদে এশিয়ার তিন বোর্ডপ্রধানের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক আলোচনায় মিলিত হন জয় শাহ। বিসিসিআইয়ের এই কর্তা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলেরও (এসিসি) সভাপতি। ভারত পাকিস্তানে খেলতে না যাওয়ার সিদ্ধান্তের মাধ্যমে এশিয়া কাপ নিয়ে যে অচলাবস্থার শুরু, হাইব্রিড মডেলেও বিসিসিআইয়ের অসম্মতি প্রকাশের মাধ্যমে তা আরও জটিল হয়ে উঠেছে।

নিরপেক্ষ ভেন্যুতে টুর্নামেন্ট আয়োজনের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় এসিসির নির্বাহী বোর্ড। এ জন্য প্রেসিডেন্ট জয় শাহকে সভা আহ্বান করতে হবে উল্লেখ করে এসিসি বোর্ডের এক সদস্য বলেছেন, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ আর আফগানিস্তান পিসিবিকে বলেছে, তাদের পাকিস্তানে গিয়ে খেলতে আপত্তি নেই। কিন্তু হাইব্রিড মডেলে আগ্রহী নয় ভারত। এখন অচলাবস্থা ভাঙতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হবে এসিসি নির্বাহী বোর্ডের সভায়, যেটা প্রেসিডেন্ট জয় শাহকে আহ্বান করতে হবে।

আরও পড়ুন<< নেইমারকে ছাড়াই ব্রাজিলের দল ঘোষণা

শনিবার বিসিসিআইয়ের বিশেষ সাধারণ সভা শেষে জয় শাহও বলেছিলেন, এশিয়া কাপের ভেন্যু নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে এসিসি সভায়। এসিসি নির্বাহী বোর্ডের সদস্যদেশ ২৫টি। এর মধ্যে ৫টি আইসিসির পূর্ণ সদস্য তথা টেস্ট মর্যাদার, ৩টি ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মর্যাদার আর বাকি ১৭টি শুধু টি-টোয়েন্টি মর্যাদার।

নিউজ ট্যাগ: এশিয়া কাপ

আরও খবর



জনগণ মেগা প্রকল্পের সুফল পেতে শুরু করেছে: রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
Image

পাবনা প্রতিনিধি

রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বলেছেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ, মেট্রোরেল, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ, কর্ণফুলী টানেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ সব মেগা প্রকল্পের কাজ সময়মতো শেষ হয়েছে। জনগণ এর সুফল পেতে শুরু করেছে।

তিনি আরও বলেন, করোনা মহামারি ও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধসহ নানা চ্যালেঞ্জের মধ্যেও বাংলাদেশ অর্থনীতির নেতিবাচক পরিস্থিতি মোকাবিলা করে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে অগ্রগতির দিকে, উন্নয়নের দিকে। সব ষড়যন্ত্রকে প্রতিহত করে (আমরা) সেই অগ্রযাত্রায় শামিল হবো।

বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পাবনার সাঁথিয়ায় ইছামতি নদীতে নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭তম জন্মদিন উপলক্ষে সাঁথিয়ায় পৌরসভা সপ্তাহব্যাপী নৌকাবাইচের আয়োজন করে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, নৌকাবাইচ আবহমান বাংলার সমৃদ্ধ সংস্কৃতির একটি অনন্য ঐতিহ্য। বাংলার প্রতিটি আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে আছে লোকসংস্কৃতির অমূল্য উপাদান। এসব লোকসংস্কৃতি সঠিকভাবে লালন করা গেলে এগুলো বিশ্ব সংস্কৃতি ও সাহিত্যেরও অমূল্য সম্পদ হয়ে উঠতে পারে। পাবনা জেলা বাঙালি লোক-সংস্কৃতির উর্বর ক্ষেত্র। নৌকাবাইচ আমাদের এলাকার তেমনই একটি ঐতিহ্যবাহী উৎসব।

পাবনার উন্নয়নে নতুন গতি এসেছে উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন বলেন, ২০০৮ সালে পাবনায় মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠিত হলেও এতোদিনে কোনো হাসপাতাল ছিল না। আজ সকালেই পাবনার ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মাণকাজের শুভ সূচনা করা হয়েছে। পাবনা থেকে ঢাকা রেল চলাচল এ মাসেই শুরু করার কথা থাকলেও প্রশাসনিক ও কারিগরি কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবে অল্প সময়ের মধ্যেই তা শুরু হবে। এছাড়া ইছামতি নদী সংস্কার ও পুনঃখননের একটি প্রকল্প চূড়ান্ত অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে।

তিনি বলেন, বাঙালি বীরের জাতি। আমরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে যুদ্ধ করে এদেশ স্বাধীন করেছি। তিনি বাংলার মানুষের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে আমৃত্যু লড়াই-সংগ্রাম করেছেন। জেল-জুলুম ও অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করেছেন। স্বাধীনতার পর দেশকে এগিয়ে নিতে বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাঙালিকে বিশ্ব দরবারে প্রতিষ্ঠিত করতে কাজ শুরু করেছিলেন। সে লক্ষ্যে তিনি অল্প সময়ের মধ্যে পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ একটি সংবিধানও আমাদেরকে উপহার দিয়েছিলেন। কিন্তু স্বাধীনতাবিরোধী ঘাতক চক্রের ষড়যন্ত্রের কারণে স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় আমরা জাতির পিতাকে হারাই। এটা ছিল জাতি হিসেবে আমাদের চরম ব্যর্থতা। কারণ আমরা তাকে ধরে রাখতে পারিনি। বঙ্গবন্ধু আমাদের সঙ্গে না থাকলেও তার নীতি-আদর্শই বাঙালির এগিয়ে যাওয়ার পথ-নির্দেশিকা ও অনুপ্রেরণা।

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন সাঁথিয়া পৌরসভার মেয়র মাহবুবুল আলম বাচ্চু।

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির সহধর্মিণী ড. রেবেকা সুলতানা, পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আ স ম আব্দুর রহিম পাকন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউল রহিম লাল, পাবনা পৌরমেয়র শরিফ উদ্দিন প্রধান, বেড়া মেয়র অ্যাডভোকেট আশিফ শামস রঞ্জন, সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ হোসেন, সাঁথিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান আলী খান প্রমুখ।

নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতা উপভোগ করতে ইছামতি নদীর দুই পাড়ে হাজার হাজার দর্শকের সমাগম ঘটে।


আরও খবর



মোদির বাড়িতে আপ্যায়িত হবেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
কূটনৈতিক প্রতিবেদক

Image

জি-২০ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে আগামীকাল শুক্রবার (৮ সেপ্টেম্বর) নয়া দিল্লি যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৯ ও ১০ সেপ্টেম্বর নয়া দিল্লিতে জি-২০ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বৈঠকে বসবেন বলে আগেই জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন।

আজ কলকাতার দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা এক প্রতিবেদনে লিখেছে হায়দ্রাবাদ হাউস অথবা সাউথ ব্লকে নয়, বঙ্গবন্ধু কন্যার সঙ্গে মোদি আলাপচারিতা করবেন নিজের বাসভবন, ৭ লোককল্যাণ মার্গে।

আন্তরিকতার বার্তা দিতেই এই গৃহঅভ্যর্থনার আয়োজন করা হয়েছে বলেও লেখা হয়েছে প্রতিবেদনে। 

শনিবার সকাল থেকে শুরু হবে জি২০ দেশগুলোর শীর্ষ সম্মেলন। বাংলাদেশ ওই গোষ্ঠীর সদস্য নয়। কিন্তু ভারত জি২০ গোষ্ঠীর সভাপতিত্ব পাওয়ার পরই মোদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে অতিথি হিসাবে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশকেই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারত, যা দুই দেশের সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায় পৌঁছানোর দৃষ্টান্ত বলেই মনে করছে কূটনৈতিক মহল।

আনন্দবাজারের ওই প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে শেখ হাসিনা হাসিনা দক্ষিণ কোরিয়া, আর্জেন্টিনা ও সৌদি আরবের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও বৈঠক করবেন। নৈশভোজ এবং সম্মেলন কক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে শেখ হাসিনার দেখা হওয়ার একটা সম্ভাবনার কথাও লিখেছে আনন্দবাজার।


আরও খবর



সাভারে পারিবারিক মন্দির থেকে মূর্তি চুরি: আটক তিন

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
সাভার প্রতিনিধি

Image

সাভারে একটি পারিবারিক মন্দির থেকে ১৩টি মূর্তি চুরি হওয়ার ঘটনা ঘটলে, চুরির সাথে জড়িত তিনজনকে আটক করেছে সাভার থানা পুলিশ। এ সময় উদ্ধারকৃত মূর্তিগুলো সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মন্দিরের মালিকের হাতে তুলে দেয়া হয়।

সোমবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সাভার মডেল থানায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানান ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম, অপস ও ট্রাফিক) আব্দুল্লাহিল কাফি। এরআগে, রোববার রাতে সাভারের মজিদপুর থেকে মূর্তিগুলো উদ্ধার করাসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃত আসামিরা হলেন-সাভারের কাতলাপুরের নিতাইয়ের ছেলে নির্মল (২৫), একই এলাকার মজিদুপুরের জাবেদ আলী ব্যাপারীর ছেলে মো. আমির হোসেন ব্যাপারী (৫৫) ও ভোলা জেলা থানার বেলু মিয়ার চর গ্রামের মৃত ইউসুফ হাওলাদারের ছেলে শহিদ হাওলাদার (৩৫)। 

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ৩০ আগস্ট দুপুরে পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের বরুণ ভৌমিক নয়নের বসতবাড়ির চতুর্থ তলার মন্দিরের ভেতর থেকে বিভিন্ন ধরনের মূর্তি আসামিরা সুকৌশলে জানালা ভেঙে চুরি করে নিয়ে যায়।

পরে ভুক্তভোগী বাদী হয়ে গত ৩ সেপ্টেম্বর সাভার মডেল থানায় একটি মামলা করেন। ঢাকা জেলার পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামানের নির্দেশনায় মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. মাহমুদুল হাসান একটি চৌকস টিম নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে সিসি টিভি ফুটেজের সহায়তায় ১৩টি মূর্তি ও উপসনালয়ের বিভিন্ন সামগ্রী উদ্ধার করে এবং আসামিদের আটক করা হয়।

ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম, অপস ও ট্রাফিক) আব্দুল্লাহিল কাফি জানান, বরুণ ভৌমিক নয়নের মন্দিরের তার প্রয়াত মায়ের রেখে যাওয়া স্মৃতি স্বরূপ দুইটি পিতলের মূর্তি চুরি হয়। পরে তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে সাভার মডেল থানা পুলিশ গুরুত্ব দিয়ে তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে চার ঘণ্টার মধ্যে সব মূর্তি ও মালামাল উদ্ধার করেন। আসামিদের রিমান্ডের আবেদনসহ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: সাভার

আরও খবর



জামালপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
জামালপুর প্রতিনিধি

Image

জামালপুরে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মো. রোহান (১৭) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, সোমবার দিবাগত রাত ১০ টার দিকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত শিক্ষার্থী রোহান জামালপুর পৌরসভার লাঙ্গলজোড়া গ্রামের মো. আজিজল হকের ছেলে। তিনি এবছরে এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিলেন।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ৫ দিন আগে জ্বরে আক্রান্ত হন রোহান। বাড়িতেই তার চিকিৎসা চলছিল। অবস্থা খারাপের দিকে গেলে রোববার তাকে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে পরীক্ষায় তাঁর ডেঙ্গু ধরা পড়ে। পরে সোমবার রাত ১০ টা দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস জানান, শিক্ষার্থী রোহানের ডেঙ্গু শনাক্ত হবার পর জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা চলছিল। সোমবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়, জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৫ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে ১০ জন, মাদারগঞ্জে ২ জন, ইসলামপুরে ১জন, সরিষাবাড়িতে ১জন ও দেওয়ানগঞ্জে ১জন।  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৪৯ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগী।


আরও খবর



রাহুল আনন্দের স্টুডিও ঘুরে দেখলেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত:সোমবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

দুই দিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। রবিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় দিল্লি থেকে ঢাকায় এসে পৌঁছান তিনি। বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে ম্যাক্রোঁকে লাল গালিচা সংবর্ধনা এবং গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।

আগেই জানা গিয়েছিল ঢাকায় দুই দিনের সংক্ষিপ্ত সফরকালে বাংলাদেশের জনপ্রিয় গানের দল “জলের গান” এর সংগীতশিল্পী, গীতিকার ও বাদ্যযন্ত্রী রাহুল আনন্দের ধানমন্ডির বাসার নিজস্ব স্টুডিওতে যাবেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী রবিবার রাতে রাহুল আনন্দের স্টুডিওতে যান ফ্রেঞ্চ প্রেসিডেন্ট। সেখানে রাহুল আনন্দ ছাড়াও আরও তিন শিল্পী আশফিকা রহমান, কামরুজ্জামান স্বাধীন ও আফরোজা সারার সঙ্গে কথা বলেন ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। এ সময় শিল্পীদের গান শোনার পাশাপাশি বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র দেখেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ রাহুল আনন্দের গান শোনেন। এসময় তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টকে একতারা বাজানো শেখান রাহুল, যা নিয়ে সেখানে আনন্দঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়।

এর আগে বিমানবন্দর থেকে ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া নৈশভোজে যোগ দিতে সরাসরি হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে যান। সেখান থেকে রাহুল আনন্দের বাসায় যান তিনি।

সোমবার সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করবেন ম্যাক্রোঁ। এরপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন। তার এই সফরে বেশকিছু দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সই হবে বলে জানা গেছে।

ফরাসি প্রেসিডেন্টের সোমবার বিকেলে ঢাকা ত্যাগের কথা রয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানাবেন। ৩৩ বছর পর এটাই প্রথম কোনো ফরাসি প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর। সর্বশেষ ১৯৯০ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি ফ্রান্সের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট মিত্রান্দের বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট ও অভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি বিবেচনায় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশ সফর অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে। ম্যাক্রোঁর এই সফরের মাধ্যমে ঢাকা ও প্যারিসের মধ্যকার সম্পর্ক নতুন গতি পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।



আরও খবর