আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

দ্বিতীয় পদ্মা সেতুর সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শেষ হয়েছে : সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ জুন ২০২২ | ২০০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সেতু বিভাগের আওতায় দৌলতদিয়া-পাটুরিয়ায় দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের লক্ষ্যে সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি জানান, পরে নির্দেশনা পাওয়া গেল প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আজ সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে এ তথ্য জানান তিনি। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে এসংক্রান্ত প্রশ্নটি উত্থাপন করেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা।

লিখিত জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর পদ্মা সেতু প্রকল্পকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে। সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ৯ দশমিক ৮৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সেতুর নির্মাণকাজ শুরু করে। মূল সেতুর নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী আগামী ২৫ জুন স্বপ্নের এই সেতু উদ্বোধন করবেন।

ওয়ার্কার্স পার্টির লুৎফুন নেসা খানের প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী জানান, পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্স ইস্যু ও নবায়নের ক্ষেত্রে এ বছরের ৩০ জানুয়ারি থেকে আবেদনপত্রের সঙ্গে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ডোপ টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ এলে বা বিরূপ মন্তব্য থাকলে লাইসেন্স নবায়ন করা হচ্ছে না।

আওয়ামী লীগের সদস্য বেনজীর আহমেদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, এ পর্যন্ত (মে ২০২২) বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল আদায়ের পরিমাণ সাত হাজার ১৩৫ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ও মুক্তারপুর সেতুর টোল আদায় ১৮৩ কোটি ৮১ লাখ টাকা।

একই দলের এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী জানান, ঢাকা আরবান ট্রান্সপোর্ট নেটওয়ার্ক ডেভেলমেন্ট স্টাডি (ডিএইচইউটিএস) প্রতিবেদন (২০১০) অনুযায়ী, রাজধানী ঢাকার দুই সিটির অধিভুক্ত এলাকায় ১০ দশমিক ৪৬ শতাংশ রাস্তা রয়েছে। ঢাকা মহানগরীর চারপাশে বৃত্তাকার ইনার রিং রোড নির্মাণের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



ডেঙ্গু: ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫ জন হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ জুন ২০২২ | ১৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীতে বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে ৩৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে চলতি বছরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন ৯২০ জন। এ ছাড়া সুস্থ হয়েছেন ৭৯২ জন।

আজ শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৩৩ জনের বাড়ি ঢাকায়, বাকি দুইজন ঢাকার বাইরে। এ ছাড়া বর্তমানে ঢাকার ৪৭টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ভর্তি আছেন ১১৮ জন।


আরও খবর



বজ্রপাতে কক্সবাজারে ৩ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:সোমবার ২০ জুন ২০22 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ জুন ২০22 | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় ও পেকুয়ায় পৃথক বজ্রপাতের ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও বজ্রপাতে দুইজন আহত হয়েছেন। রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে কুতুবদিয়া উপজেলার উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের চুল্লারপাড়া গ্রামে বজ্রপাতে দুইজন নৌকা শ্রমিকের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন।

নিহতরা হলেন- উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের চুল্লারপাড়া গ্রামের জাকের উল্লার ছেলে মো. ইমতিয়াজ (২৫) ও দক্ষিণ ধূরুং ইউনিয়নের ধূরুং কাঁচা গ্রামের ছাবের আহমদের ছেলে মো. করিম (৩৫)। এ ঘটনায় জাকের উল্লার ছেলে মো. আক্কাস (২২) আহত হন।

উত্তর ধূরুং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল হালিম সিকদার জানান, উত্তর ধূরুং ইউনিয়নের চুল্লারপাড়া গ্রামে মাছ ধরার নৌকা মেরামতের সময় বজ্রপাতে ২ জন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। তারা সবাই নৌকার শ্রমিক।

একইদিন দুপুর ১২টার দিকে পেকুয়া উপজেলা মগনামায় বজ্রপাতে রমজান আলী নামের যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মগনামা ইউনিয়নের শরৎ ঘোনা এলাকায় বজ্রপাতের এ ঘটনা ঘটে। রমজান আলী ওই এলাকার মো. হোসেনের ছেলে।

একই ঘটনায় উপজেলার টৈটং ইউপির কাটা পাহাড় এলাকার জুনাইদুল ইসলামের স্ত্রী কলি আক্তার (২৫) গুরুতর আহত হন। কক্সবাজার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম কুতুবদিয়া ও পেকুয়ায় পৃথক বজ্রপাতে তিনজন নিহত ও দুজন আহত হওয়ার বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


আরও খবর



সৌদি পৌঁছেছেন ১১ হাজার ১২০ হজযাত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হজ ফ্লাইট শুরু হওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত (১৫ জুন রাত ২টা) ১১ হাজার ১২০ জন হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩ হাজার ৩৮৩ ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রী ৭ হাজার ৭৩৭ জন।

হজ সম্পর্কিত প্রতিদিনের বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এয়ারলাইনস, সিভিল এভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশ, বাংলাদেশ হজ অফিস ঢাকা এবং সৌদি আরব সূত্রে এ তথ্য জানিয়েছে হেল্পডেস্ক।

মোট ২৮টি ফ্লাইটে সৌদি গেছেন হজযাত্রীরা। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ১৬টি, সৌদি এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৭টি এবং ফ্লাইনাস এয়ারলাইন্স পরিচালিত ফ্লাইট সংখ্যা ৫টি।

বাংলাদেশি হজযাত্রীদের মধ্যে এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে। তিনি হলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের মো. জাহাঙ্গীর কবির। ১১ জুনই BG3013 ফ্লাইটে সৌদি পৌঁছান জাহাঙ্গীর কবির।

সরকারের সর্বশেষ হজ বুলেটিনে বলা হয়েছে, সরকারি ব্যবস্থাপনায় আগত প্রথম থেকে ৭ম ফ্লাইটের সকল হজযাত্রী এখন মদিনায় অবস্থান করছেন। পাশাপাশি সরকারি ব্যবস্থাপনায় আগত ৮ম ফ্লাইটের হজযাত্রীরা আজ সকালে মক্কা থেকে মদিনার উদ্দেশ্যে যাত্রা করে নির্বিঘ্নে মদিনায় পৌঁছেছেন। হজযাত্রীরা মদিনায় আট দিন অবস্থান করবেন এবং মসজিদে নববীতে চল্লিশ ওয়াক্ত নামাজ আদায় শেষে আবার মক্কায় প্রত্যাবর্তন করবেন। যাত্রাকালে প্রশাসনিক দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও আইটি দলের সদস্যরা সংশ্লিষ্ট বাড়িতে উপস্থিত থেকে হজযাত্রীদের বিদায় জানান।

সৌদি আরবে চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রীর কোটা ৪ হাজার জন (রাষ্ট্রীয় খরচ ও গাইডসহ), অন্যদিকে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় কোটা ৫৩ হাজার ৫৮৫ জন। হজযাত্রীদের সৌদি আরবে যাওয়ার ফ্লাইট গত ৫ জুন শুরু হয়েছে। সৌদি আরবে যাত্রার শেষ ফ্লাইট ৩ জুলাই। হজ শেষে ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে আগামী ১৪ জুলাই। ফিরতি ফ্লাইট শেষ হবে ৪ আগস্ট।


আরও খবর



মৌসুমীকে নিয়ে যে সুসংবাদ দিলেন ওমর সানী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ জুন ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সম্প্রতি ঢাকাই সিনেমা জগতে মৌসুমী-ওমর সানীকে নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। জায়েদ খানকে কেন্দ্র করে এই বির্তকের জন্ম হয়। বিয়ের আসরে চড়-পিস্তলকাণ্ড; কত কিছুই ঘটে গেল এই কয়েক দিনে। একই সঙ্গে ঢালিউডের অন্যতম সফল ও জনপ্রিয় দম্পতি ওমর সানী ও মৌসুমীর সংসারে ভাঙনের গুঞ্জনও ভেসে ওঠে। তবে সেই গুঞ্জন উড়িয়ে দিলেন ওমর সানী। ১৬ জুন দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ফেসবুকে তিনি একটি ছবি শেয়ার করেন। যেখানে দেখা যায়, এক টেবিলে বসেই খাবার খাচ্ছেন ওমর সানী-মৌসুমী। সঙ্গে আছেন তাদের ছেলে ফারদিনসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা। ছবিটির ক্যাপশনে ওমর সানী লেখেন সবাই ভালো থাকবেন, দোয়া করবেন আমাদের জন্য।

জানা গেছে  তাদের মধ্যে এখন কথাবার্তা চলছে। একই সঙ্গে তারা বসছেন, আড্ডা দিচ্ছেন। এদিকে এই ঘটনার সময় মৌসুমী ও তার দেওয়া বক্তব্যের কোনো কোনো জায়গায় এডিট করে তা প্রচার করা থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন ওমর সানী। গত সোমবার এক অডিওবার্তায় এ কথা বলেন তিনি । ওমর সানী বলেন, কিছু দিন যাবৎ দেখছি গণমাধ্যমে আমার আগের দেওয়া বক্তব্য থেকে কিছু কিছু অংশ কেটে কেটে বাদ দিয়ে আপনারা অনেকে প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী ও আমাকে নিয়ে বাজে বাজে কথা প্রচার করছেন। শুধু তাই-ই নয়, আমার আর মৌসুমীকে নিয়ে নিজের মতো করে সংলাপ বানিয়ে কেউ কেউ তা প্রচার করছেন। এটি বিভ্রান্তিকর কাজ। এগুলো বাদ দেন। এগুলো থেকে অবশ্যই দূরে থাকুন। আপনারা কি জানেন, আমাদের মধ্যে যে সমস্যা ছিল, তা সবার দোয়া ও ভালোবাসায় মিটে গেছে। আমরা এখন একই ছাদের নিচে আছি, আমরা একসঙ্গে আছি, এক ঘরেই আছি। আমি, মৌসুমী, ছেলেমেয়ে ফারদিন, ফাইজা, আমার ছেলের বউ আয়েশাআমরা একসঙ্গে আছি। ভালো আছি, সুখে আছি।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুন খল অভিনেতা ডিপজলের বড় ছেলের বিবাহোত্তর সংবর্ধনায় অংশ নেন ওমর সানী। সেখানে তিনি জায়েদ খানকে চড় মেরেছেন বলে দাবি করেছেন। বিপরীতে জায়েদ তাকে পিস্তল ঠেকিয়ে হুমকি দিয়েছে। এরপর শিল্পী সমিতিতে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগও দিয়েছেন সানী। তাতে বলেছেন, জায়েদ খান তার ও মৌসুমীর সংসার ভাঙার চেষ্টা করছে।

যদিও ওমর সানীর অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেন জায়েদ খান। এমনকি চড়-পিস্তলের ঘটনাও সত্য নয় বলে তার দাবি। এর পর সোমবার (১৩ জুন) মৌসুমী নিজেও মুখ খোলেন। তিনি স্বামী ওমর সানী নয়, বরং জায়েদ খানের পক্ষ নিয়ে বক্তব্য দেন। ফলে ঘটনাটি ভিন্ন দিকে মোড় নেয়। এর পর বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন সানী-মৌসুমীর ছেলে ফারদিন। তিনি জানান, তার মা (মৌসুমী) রাগের মাথায় বিবৃতি দিয়েছেন। জায়েদ খান তার মাকে বিরক্ত করেন। এ নিয়ে তার বাবা-মায়ের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: মৌসুমী-ওমর সানী

আরও খবর



কুসিক নির্বাচন : ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার পর বিজিবির লাঠিচার্জ

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ জুন ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের বিষ্ণুপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের কর্মী-সমর্থকদের সাথে বিজিবি সদস্যদের কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটেছে। এক পর্যায়ে ধাওয়া দেওয়া হয় এবং এ সময় লাঠিচার্জ করা হয়।

পরবর্তীতে নৌকার সমর্থকরা স্লোগান দেন এবং সিনিয়র নেতৃবৃন্দ তাদের কর্মী সমর্থকদের সরিয়ে নিলেন পরিস্থিতি শান্ত হয়।

নৌকার সমর্থকরা অভিযোগ করে বলেন, জামায়াত সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী কাজী গোলাম কিবরিয়া ভোটারদের কিনে নিচ্ছেন, এ অভিযোগে নৌকা দলীয় সমর্থকরা স্লোগান শুরু করলে বিজিবি সদস্যরা পরিস্থিতি অনুকূলে আনতে ধাওয়া ও লাঠিচার্জ করে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: কুসিক নির্বাচন

আরও খবর