আজঃ রবিবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২১
শিরোনাম

দিনাজপুরকে মধু জেলা রূপান্তরের লক্ষে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫০জন দেখেছেন

Image

দিনাজপুর প্রতিনিধি: 

দিনাজপুর জেলাকে মধুময় জেলা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তরুণদের প্রশিক্ষণের আওতায় এনে তাদের মৌখামার স্থাপনে সহযোগিতা করছেন দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন।

সোমবার দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে খামার স্থাপনে উৎসাহী পাঁচজন তরুণকে মৌবক্স উপহার প্রদানের মাধ্যমে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের উৎসাহ প্রদান করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্তুজা আল-মুঈদ। যুব সংগঠন "আলোর পথে জাগো যুব, দিনাজপুর" কর্মসংস্থান সৃষ্টিমূলক কার্যক্রমের সহযোগিতায় পাঁচজন তরুণকে মৌবাক্স প্রদান করা হয়। এসময় আলোর পথে জাগো যুব দিনাজপুরের সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের মাঝে মৌবাক্স প্রদানকালে উপজেলা নির্বাহি অফিসার মর্তুজা আল-মুঈদ বলেন, এই জেলায় বিভিন্ন এলাকা থেকে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের সমন্বয় করে তাদের প্রশিক্ষণের আওতায় এনে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ পরিশ্রমী উদ্যোক্তাদের মৌচাষ প্রদানের জন্য দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতা করবে। এজন্য প্রয়োজন পরিশ্রমী মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তা এবং দিনাজপুরের সকল সুশীল সমাজের একাত্মতা দিনাজপুর জেলাকে মধুময় শিল্প হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আমাদের সবাইকে এই বিষয়টা নিয়ে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। এই কাজ শুধু এই ক্ষুদে তরুণ পরিশ্রমী উদ্যোক্তাদের না, আমরা যে যেখানে আছি তার নিজ নিজ স্থান হতে তাদের এই কাজে উৎসাহ প্রদানের জন্য সার্বিক দিকনির্দেশনা প্রদান করতে হবে।


আরও খবর
উত্তরে বৃষ্টির মতো ঝরছে ঘনকুয়াশা

বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১

দিনাজপুরে বাড়ছে শীতের প্রকোপ

সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১




২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত আরও ৩২ জন হাসপাতালে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১ | ১৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় ২৫ জন ও ঢাকার বাইরে সাতজন ভর্তি হয়েছে।

আজ শুক্রবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৯৪ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছে ২১৬ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছে ৭৮ জন।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২৭ হাজার ৪৮৩ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ২৭ হাজার ৯১ জন। এ সময়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ৯৮ জন।


আরও খবর



ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ২৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দীর্ঘক্ষণ পারাপার বন্ধ থাকায় পাটুরিয়াঘাট এলাকায় ফেরি পারের অপেক্ষায় থাকে অর্ধশতাধিক যাত্রীবাহী বাস, দেড় শতাধিক বিভিন্ন গাড়ি এবং পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক। এতে দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীসাধারণ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহণ করপোরেশন (বিআডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথের অববাহিকায় কুয়াশা দেখা যায়। একপর্যায়ে কুয়াশার তীব্রতা বেড়ে গেলে বুধবার সকাল ৬টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় পথ হারিয়ে উভয়ঘাট থেকে ছেড়ে আসা খানজাহান আলী ও হাসনাহেনা নামের দুটি ফেরি যাত্রী এবং যানবাহন নিয়ে মাঝপদ্মায় নোঙর করতে বাধ্য হয়।

এদিকে পাটুরিয়া প্রান্তে আটটি ও দৌলতদিয়া প্রান্তে ছয়টি ফেরি অবস্থান করে।

পারাপার বন্ধ থাকায় ঘাটে আসা যাত্রীবাহী বাস, ব্যক্তিগত বিভিন্ন গাড়ি ও পণ্যবাহী গাড়ি পাটুরিয়াঘাট এলাকায় আটকা পড়ে। এসব যাত্রীবাহী বাস পাটুরিয়া-উথলীসংযোগ সড়কে নদী পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। ব্যক্তিগতসহ বিভিন্ন গাড়ি পাটুরিয়ার পাঁচ নম্বর ঘাট থেকে আরসিএল মোড় পর্যন্ত দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়েছে। এ ছাড়া পণ্যবাহী গাড়িগুলো পাটুরিয়ায় টার্মিনাল, পাটুরিয়া-উথলী সড়ক ও উথলী মোড় এলাকায় সারিবদ্ধভাবে রাখা হয়েছে।

কুয়াশায় পারাপার বন্ধ থাকায় শীতের মধ্যে তারা ভোগান্তিতে পড়েছেন।

ঘাট এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক যুবায়েদ হোসেন বলেন, ফেরি বন্ধ থাকায় যানবাহনের চাপ বাড়ছে। সকাল সাড়ে ৮টার পর কুয়াশা কেটে গেলে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক হয়।

তিনি আরও জানান, সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত অর্ধশতাধিক বাস, দেড় শতাধিক ব্যক্তিগত গাড়ি ও পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী গাড়ি পাটুরিয়া প্রান্তে আটকা পড়ে।

বিআইডব্লিউটিসির আরিচা কার্যালয়ের সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মহিউদ্দিন রাসেল বলেন, ঘনকুয়াশার কারণে ভোর ৬টা থেকে সাড়ে ৮টা পর্যন্ত ফেরি চলাচল বন্ধ থাকে।

তিনি জানান, যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত ছোট গাড়িগুলো আগে পারাপার হওয়ার সুযোগ পাবে। এতে যাত্রীদের দুর্ভোগ কমে আসবে।


আরও খবর



২৬ নভেম্বর আসছে সালমান খানের নতুন সিনেমা

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সামনেই আসছে সালমান খানের নতুন ছবি 'অন্তিম: দ্য ফাইনাল ট্রুথ। ছবিটির ট্রেইলার প্রকাশের পরে অনেক আগ্রহ দেখিয়েছেন দর্শকরাও। তাদের অপেক্ষা শেষ করে এ মাসের ২৬ তারিখে মুক্তি মিলবে ছবিটির।

তবে এ ছবিটিতে মূল চরিত্র ছেড়ে অতিথি চরিত্রে দেখা যাবে সালমানকে। ছবিটির শুটিং শেষ হওয়ার আগে বেশ কয়েকবার চিত্রনাট্যে পরিবর্তন আনা হয়েছে।

শুরুতে সালমানকে রাখা হয় ছবির অতিথি চরিত্রেই। ছবিতে ছিল না সালমানের কোনো গান বা নায়িকাও। এ বিষয়টি সালমানের পছন্দ না হওয়ায় চিত্রনাট্যে আবার পরিবর্তন এনে সালমানের নায়িকা, গান-নাচ রাখেন নির্মাতা মহেশ মাঞ্জেরেকার।

পরে আবার ছবিটিতে সালমানের চরিত্র পছন্দ হওয়ায় তিনি বলেন, কাহিনি যেমন আছে তেমনই থাক। সালমানের চরিত্রের সঙ্গে নায়িকা, গান-নাচ মানাচ্ছে না বলে তার কোনো প্রয়োজন নেই বলে জানান তিনি।

এর পরে আবার ফিরে যাওয়া হয় আগের চিত্রনাট্যেই। কিন্তু সালমানের ভক্তরা এ চরিত্রটি কীভাবে নেবে তা নিয়েও অনেক চিন্তায় ছিলেন ছবির পরিচালক মহেশ।

আসন্ন এ ছবিটির প্রযোজক হচ্ছেন সালমান নিজেই। আর এ ছবির মূল চরিত্রে থাকবেন সালমানের ছোট বোন অর্পিতার স্বামী আয়ুষ শর্মা। এতে সালমানকে শিখ পুলিশ অফিসার আর আয়ুষকে দেখা যাবে গ্যাংস্টার চরিত্রে। দুজনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে দেখা মিলবে এই অ্যাকশন ধাঁচের ছবিটিতে।


আরও খবর



ডিজিটাল আইনে রফিকুল মাদানীর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ২৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আদালতের সরকারি কোঁসুলি নজরুল ইসলাম শামীম বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, আজ আসামির উপস্থিতিতে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন বিচারক

ইসলামি বক্তা রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা থানায় র‍্যাবের দায়ের করা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আসসামছ জগলুল হোসেন এই অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।

আদালতের সরকারি কোঁসুলি নজরুল ইসলাম শামীম বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করে বলেন, আজ আসামির উপস্থিতিতে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছেন বিচারক। একই সঙ্গে আগামী ৯ জানুয়ারি অভিযোগ গঠনের শুনানির তারিখ নির্ধারণ করেছেন আদালত।

নথি থেকে জানা গেছে, গত ১১ এপ্রিল রফিকুল ইসলাম মাদানীর বিরুদ্ধে স্থানীয় টেকনগরপাড়া এলাকার বাসিন্দা যুবলীগ কর্মী মোস্তাফিজুর রহমান বাসন থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটি করেন। এ মামলায় ১৮ এপ্রিল পুলিশ আদালতে রফিকুল ইসলামের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে। পরে তাঁর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে গত ৭ এপ্রিল রফিকুল ইসলাম মাদানীকে রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) নেত্রকোনার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে। এ সময় তাঁর কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। তারপর র‌্যাবের ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে জিএমপির গাছা থানায় একটি মামলা করেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ২৫, ২৮ ও ৩১ ধারায় মামলা করা হয়েছে।

পরে ১৩ এপ্রিল সংবাদ সম্মেলনের (জিএমপি) উপপুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ ইলতুৎমিশ জানান, রফিকুল ইসলাম মাদানীর মোবাইল জব্দ করে সেটি ফরেনসিক রিপোর্টের জন্য পাঠানো হয়। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরা উক্ত মোবাইল ফোনে আপত্তিকর অশ্লীল পর্নো দেখার প্রমাণ পেয়েছেন। তিনি নিয়মিত পর্নোগ্রাফি ভিডিও দেখাসহ রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করতেন। এ কারণে তাঁর বিরুদ্ধে করা মামলায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনের ধারা যুক্ত করা হয়েছে।


আরও খবর



টানা ১৫ দিন ইন্টারনেট না থাকলে বিল দিতে হবে না

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৮৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টানা ১৫ দিন ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকলে গ্রাহককে ওই মাসে সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানকে কোনো বিল দিতে হবে না। বৃহস্পতিবার আগের নিয়ম সংশোধন করে নতুন এ নির্দেশনা দেয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

এর আগে গত ৫ অক্টোবর বিটিআরসি জানিয়েছিল, টানা ৩ দিন অব্যাহতভাবে ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে ওই মাসের কোনো মাসিক বিল গ্রাহকের কাছ থেকে নেওয়া যাবে না।

নতুন নির্দেশনায় বলা হয়েছে, টানা পাঁচ দিন অব্যাহতভাবে ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে মোট বিলের ৫০ ভাগ নিতে পারবে সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। আর টানা ১০ দিন ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে মোট বিলের ২৫ ভাগ নেওয়া যাবে। আর ১৫ দিন ইন্টারনেট না থাকলে সে মাসে কোনো বিলই নেওয়া যাবে না।

ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবির সভাপতি আমিনুল হাকিম জানান, আমরা বৃহস্পতিবার বিটিআরসির চিঠি পেয়েছি। আমাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিটিআরসি এই সিদ্ধান্ত দিয়েছে। এতে করে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটে এক দেশ এক রেট বাস্তবায়ন আরও সহজ হবে।

এর আগে বিটিআরসি গত পাঁচ অক্টোবর গণমাধ্যমগুলোতে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, এক দিন অব্যাহতভাবে ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে মোট বিলের ৫০ ভাগ নিতে পারবে সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান। দুই দিন অব্যাহতভাবে ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে মোট বিলের ২৫ ভাগ নেওয়া যাবে। আর টানা তিন দিন অব্যাহতভাবে ইন্টারনেট সেবা বিচ্ছিন্ন থাকলে ওই মাসের কোনো মাসিক বিল গ্রাহকের কাছ থেকে নেওয়া যাবে না।



আরও খবর
বিজয়ের মাসেই ফাইভ-জি

বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১