আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

ধামরাইয়ে ঐতিহ্যবাহী পৌষ সংক্রান্তি ও সাকরাইলের মেলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন

Image

ধামরাই (ঢাকা ) প্রতিনিধি:

সনাতনধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎসব এর মধ্যে শুভ পৌষ সংক্রান্তি বা মকর সংক্রান্তি উৎসব দেশের বিভিন্ন স্থানে উদযাপন করা হয় সেই পৌষ সংক্রান্ত বা মকর সংক্রান্তি উৎসব উপলক্ষে সমগ্র দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌষ মেলায় হাজার হাজার মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয়।

বাঙালি সংস্কৃতিতে পৌষ মাসের এই শেষ দিনটি নানান বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসব মুখর পরিবেশে পালিত হয়। মনের মাধুরীতে গঙ্গা অঞ্জলি দিয়ে এইদিনে সূর্যোদয়ের পূর্বেই গঙ্গাস্নান সেরে নেওয়া হয়।

সূর্য ধনুরাশি ত্যাগ করে মকরে সঞ্চারিত হবে বলে দিনটি শুভ, এজন্য একে মকর সংক্রান্তি বলে এবং উক্ত সময় স্নান করলে আয়ুবৃদ্ধি হয়। তা ছাড়াও পৌষ সংক্রান্তি ভারতের নানা রাজ্যে ভিন্ন নামে পালন করেন যেমন:- পুঙ্গল, লহরি, বেহু এটাই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশেষ ঐতিহ্য।

তারই ধারাবাহিকতায় রাজধানী ঢাকার ধামরাই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে পৌষ মেলা হচ্ছে তার মধ্যে প্রতিবারের মতো এবারও ধামরাই পৌরসভার ঐতিহাসিক শ্রীশ্রী যশোমাধব দেবের মন্দির ও রথোৎসব এর মেলাঙ্গনের মাঠে পৌষ মেলায় আগত ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল শ্রেণী-পেশার হাজার হাজার মানুষ মেলায় আগমন ঘটেছে। মেলায় হরেক রকম দোকানীরা নানা কুটিরজাত শিল্প সরঞ্জাম জিনিস পত্র নিয়ে দোকান বসিয়েছে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা তাদের পছন্দ মতো সাংসারিক পণ্য সামগ্রী, মাটির সরঞ্জাম, প্লাস্টিকের খেলনা শীতকালীন খাবার বিন্নি, খই, মুড়ি, চিড়া, কদমা, নানা প্রকার খাবারসহ নানা প্রকার সরঞ্জাম ক্রেতার ক্রয়, খরিদ করছেন। বাচ্চাদের খেলনা থেকে শুরু সাংসারিক দা, বটি, ছুরিসহ নানা সামগ্রী।

বলাবাহুল্য এদেশের প্রতিটি লোক-উৎসবেই রয়েছে গ্রামীণ কুটির শিল্পজাত পণ্যের সমাবেশ যা ছিল এককালে এদেশের অর্থনীতির মূল ভিত্তি। সে যুগে ধামরাইয়ের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ছিল অগনিত কুটিরশিল্প যা এককালে ধামরাইকে কুটির শিল্প নগরী হিসেবে সমৃদ্ধ করেছিল।

এ মেলা দুপুর পর্যন্ত চলবে এর পর সানোড়া বটগাছের তলায়, বারবাড়িয়া কালীমন্দিরের মাঠে, কামারপাড়া বিনদুটি ভিটায়, ধামরাই সদর ইউনিয়নের হাজীপুর গ্রামে বটগাছের সামনে বুড়বুড়ি মন্দির কমিটির উদ্যোগে বাৎসরিক পৌষ মেলার আয়োজন করা হয়। সেখানেও বিরাট মেলা অনুষ্ঠিত হইবে।


আরও খবর



‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গড়তে হবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | ১০৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (আইইবি)-এর কাউন্সিল হলে মুজিববর্ষ ও মহান বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে  বঙ্গবন্ধু  প্রকৌশলী পরিষদ আয়োজিত 'বঙ্গবন্ধু ও মহান বিজয় দিবসের তাৎপর্য' শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এ আহ্বান জানান।


মন্ত্রী আরো বলেন, "বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতীয়তা বোধের চেতনা থেকে বাঙালি জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সবার একটাই পরিচয়, বাঙালি। বাঙালি জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠার জন্য বঙ্গবন্ধুকে অনেক লড়াই করতে হয়েছে। তিনি দূরদৃষ্টি দিয়ে বুঝেছিলেন বাঙালি জাতীয়তা বোধে উদ্বুদ্ধ করতে না পারলে বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্মে আনা সম্ভব নয়। আর  ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্মে আনতে না পারলে বাঙালির মুক্তি কোনদিন সম্ভব নয়। বাঙালি জাতিসত্তা, স্বাধিকার আন্দোলন এবং পরবর্তীতে স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতিকে এসেছিলেন।"

তিনি আরো বলেন, "আমাদের পরিচয় আমরা বাঙালি। আমাদের আদর্শ বঙ্গবন্ধুর, আর নেতৃত্ব শেখ হাসিনার। আমাদের সৌভাগ্য বঙ্গবন্ধু না থাকলেও তার রক্ত ও আদর্শের উত্তরসূরি শেখ হাসিনা রয়েছেন। বাংলাদেশের উন্নয়নের আর্কিটেক্ট শেখ হাসিনা। তিনি গোটা জাতিকে নিয়ে ক্লান্তহীন এগিয়ে যাচ্ছেন। বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে নিয়ে যাওয়ার কৃতিত্ব শেখ হাসিনা দেখাতে পেরেছেন"।

প্রধান অতিথি আরো বলেন, "বঙ্গবন্ধু, বাঙালি ও বাংলাদেশ অবিচ্ছেদ্য সত্তা। আর সমৃদ্ধ বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি শেখ হাসিনা। বঙ্গবন্ধুকে বলা হতো শোষিতের কণ্ঠস্বর। আর এখন শেখ হাসিনাকে বলা হয় বিশ্বের দুর্গতদের কণ্ঠস্বর"।

তিনি আরো যোগ করেন, "শেখ হাসিনা কারণেই আজ বাংলাদেশের আকাশে বিজয়ের পতাকা সগৌরবে পতপত করে উড়ছে। যুদ্ধাপরাধীদের দম্ভ দেখতে হচ্ছে না। মনে রাখতে হবে স্বাধীনতাবিরোধীরা এখনও দেশ থেকে নিঃশেষ হয়ে যায়নি। তাদের উত্তর প্রজন্ম এখনও দেশের বিভিন্ন জায়গায় প্রতিষ্ঠিত রয়েছে। এ জন্য সতর্ক থাকতে হবে, বিজয়ের পতাকা যেন শকুনরা আবার ছিনিয়ে নিতে না পারে। অবিরাম লড়াইয়ের ভেতর থেকে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের ঐক্যের ইস্পাতকঠিন দৃঢ়তা সৃষ্টি এখন সময়ের দাবি"।

বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ড. এম হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী  মো. আবদুস সবুর। বঙ্গবন্ধু প্রকৌশলী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. নুরুজ্জামানসহ পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এবং ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ-এর নেতৃবৃন্দ আলোচনা সভায় বক্তব্য প্রদান করেন।

আরও পড়ুন

উন্নত, সমৃদ্ধ ও বিজ্ঞানমনস্ক দেশ গড়ে তুলছেন শেখ হাসিনা : শ ম রেজাউল করিম

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন সরকার মুজিবনগর সরকারের লক্ষ্য বাস্তবায়ন করছে : শ ম রেজাউল করিম


আরও খবর



যিশুদা আমার ক্রাশ : শোলাঙ্কি

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নরম আলোয় একে অপরের ঘনিষ্ঠ হচ্ছেন তাঁরা। যিশু সেনগুপ্ত ও শোলাঙ্কি রায়। শোলাঙ্কির গালে আঙুলে আদর আঁকছেন যিশু। আর সেই দৃশ্যের মধ্যেই মিশে যাচ্ছে কথারা সঙ্গোপনের সুখ ইচ্ছে অহেতুক/স্বপ্নে আমার খুঁজেছি তোকেই। এই ভরা প্রেমের খোঁজে শুধু শোলাঙ্কি আর যিশু নয়, শ্রোতারাও এখন উৎসুক। ঈশান মিত্রের কণ্ঠে এই গান, 'রংমশাল' ইতিমধ্যেই আলো জ্বালিয়ে দিয়েছে নেটমাধ্যমে। আনন্দবাজার অনলাইনকে 'বাবা বেবি ও' ছবির অভিনেত্রী শোলাঙ্কি রায় যেমন বললেন, কী অপূর্ব গান। খুব দ্রুত আমি আর যিশুদা গানের জন্য স্টেপসগুলো বুঝে নিয়ে শট দিয়েছি। বিভিন্ন জায়গার দৃশ্য রাখা হয়েছে এই গানে। কিন্তু এত দ্রুত যে একটা গানের এমন আলো আর ক্যামেরা নিয়ে শ্যুট করা যায়, ভাবতে পারিনি।

ভাবতে অনেক কিছুই পারেননি শোলাঙ্কি। যিশু সেনগুপ্তর মতো খ্যাতনামীর সঙ্গে জুটি বেঁধে প্রথম ছবিতে কাজ! প্রসঙ্গ উঠতেই আদুরে গলায় বললেন, অনেকেই বলছে, আমাকে আর যিশুদাকে পাশাপাশি দেখতে খুব ভাল লাগছে। তবে প্রথম দিকে যিশুদার মতো স্টারের সঙ্গে কাজ করতে ভয় পেতাম। পরে দেখলাম চমৎকার মানুষ।

রিতম সেনের কথা আর অমিত-ঈশানের সংগীত ভাবনায় এই রংমশাল যে বহু দূর হাঁটবে, তার আভাস স্পষ্ট। যিশুর সঙ্গে প্রেম করে কেমন লাগল? খানিক হেসে ধারাবাহিকের কাদম্বিনী বললেন, যিশুদা আমার ক্রাশ ছিল। সেই কবে থেকে ওর ছবি দেখছি! তবে প্রেমের দৃশ্য করার আগে যিশুদা আর আমি বন্ধু হয়ে গিয়েছিলাম। তাই অভিনয় সহজ হয়েছে।

বাবা বেবি ও কি তবে অসম বয়সের প্রেমের গল্পের ইঙ্গিত দেয়? সম্মতি জানিয়ে শোলাঙ্কি বললেন, প্রেম বিষয়টা সহজাত। কার কখন কেমন করে প্রেম হবে, বলা যায় না। আমাদের সমাজ এখনও অসম বয়সের প্রেম, সমকামী প্রেমকে স্বাভাবিক ভাবে দেখে না। শোলাঙ্কির আশা, ৪ ফেব্রুয়ারির পরে এই ছবি দেখে অনেকেই হয়তো অসম বয়সের প্রেমের স্বাভাবিকত্বকে বুঝতে পারবেন।

নিউজ ট্যাগ: শোলাঙ্কি-যিশু

আরও খবর
টাকা দিয়ে ভোট কিনছেন জায়েদ খান : নিপুণ

শুক্রবার ২৮ জানুয়ারী ২০২২




দিরাইয়ে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় গুলিবিদ্ধ আট

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
রোববার সকালে আহমেদ চৌধুরী এ ঘটনা মীমাংসা করার জন্য ছুফি মিয়ার বাড়িতে যান। সেখানে ছুফি মিয়ার আত্মীয় স্বজনরা আহমেদ চৌধুরীর ওপর চড়াও হন

সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে চতুর্থ ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় অন্তত আটজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। রোববার দুপুরে উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নে এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ দুই জনকে দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতদের সিলেটের বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ২৬ ডিসেম্বর দিরাই উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নে নির্বাচনে তাড়ল গ্রামের বিএনপি নেতা আলী আহমদ নির্বাচিত হন। শনিবার বিকেলে দিরাই বাজারে এই ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আহমেদ চৌধুরীর ভাই সুজন চৌধুরীর সঙ্গে নির্বাচিত আলী আহমদের সমর্থক ছুফি মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সুজন চৌধুরী ছুফি মিয়াকে ঘুষি মারেন। এ ঘটনায় দুই পক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়। রোববার সকালে আহমেদ চৌধুরী এ ঘটনা মীমাংসা করার জন্য ছুফি মিয়ার বাড়িতে যান। সেখানে ছুফি মিয়ার আত্মীয় স্বজনরা আহমেদ চৌধুরীর ওপর চড়াও হন। ঘটনার সংবাদ আহমেদ চৌধুরীর বাড়িতে পৌঁছালে দুইপক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ সময় উভয়পক্ষের ৮ জন গুলিবিদ্ধ হন।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজিজুর রহমান জানান, ফের সংঘর্ষের আশঙ্কায় তাড়ল গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি জানান, আহত ৪ জনকে দেখা গেছে, অন্যদের পাওয়া যায়নি।

নিউজ ট্যাগ: সুনামগঞ্জ

আরও খবর
ট্রলি-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ২

রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2




পদ হারিয়ে তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জানালেন তৈমুর

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৯২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ থেকে অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

অব্যাহতির খবর জানেন কী না এমন প্রশ্নের জবাবে তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, আমি বিভিন্ন মিডিয়া এবং সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম। আমার কাছে কোন চিঠি আসেনি। ঘটনা যাই হোক আমি দলীয় সিদ্ধান্তে খুশি। খবর পাওয়ার পর আমি বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে ধন্যবাদ জানিয়েছি।

ধন্যবাদ কেন জানিয়েছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ২০১১ সালে যে প্রার্থীকে পাশ করানোর জন্য আমাকে বসিয়ে দেওয়া হয়েছিল সেই তো এবার আমার প্রতিদ্বন্দ্বী। অতএব এখন আমি আশ্বস্ত হলাম। বহিষ্কার করার কারণে আমার তো কোন গার্ডিয়ানশীপ রইল না। কেও আমাকে বলতে পারবে না যে তুমি বসে যাও। এই সিদ্ধান্তে আমি সন্তুষ্ট।

কী কারণে বহিষ্কার করা হলো জানেন কী না এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আমি জানি না কী কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে দলের সিদ্ধান্তে আমি খুশি এবং এমন সিদ্ধান্তকে আমি স্বাগত জানাই। কোন রাজনৈতিক প্রতিহিংসা আমি বুঝি না। আমি রাজপথের লোক, আমাকে মানুষ মজলুম জননেতা বলে, এতেই আমি সন্তুষ্ট। এবং মেয়র হব ইনশাল্লাহ, জনগণ যেভাবে নেমেছে আমার পক্ষে আমি হয়ে যাব। এবার আর রাতের অন্ধকারে কেও বলতে পারবে না তুমি বইসা গিয়া ঘুমায়া যাও।

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) নির্বাচন তৃতীয়বারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ১৬ জানুয়ারি। এই নির্বাচনে মেয়র পদে লড়ছেন তৈমুর আলম খন্দকার।


আরও খবর



ইন্দোনেশিয়ায় ৭.৩ মাত্রার ভূমিকম্প

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলের মালাকু প্রদেশের বরত দায়া দ্বীপপুঞ্জতে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। যার রিখটার স্কেলের মাত্রা ৭ দশমিক ৩ ছিল বলে জানিয়েছে মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস।

জানা গেছে, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) মালাকু প্রদেশের বরত দায়া দ্বীপপুঞ্জে এ ভূমিকম্প আঘাত হানে। ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল ২শ কিলোমিটার। বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছে দ্য গার্ডিয়ান।

বৃহস্পতিবার গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে ইউরোপীয় ভূমধ্যসাগরীয় ভূকম্পন কেন্দ্রের (ইএমএসসি) বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ভূমিকম্পটির গভীরতা ছিল ২শ কিলোমিটার। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা একই তথ্য জানিয়েছে।

ওই দ্বীপপুঞ্জে জারি করা হয়েছে উচ্চ সতর্কতা। যদিও আশপাশের দ্বীপগুলোতে সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়নি। এছাড়া এখনো ভূমিকম্পে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে, ১৪ ডিসেম্বর একই মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছিল ইন্দোনেশিয়ার পূর্বাঞ্চলে। তখন সুনামি সতর্কতা জারি করা হয়। যদিও সেসময় কোনো মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।

২০০৪ সালে ইন্দোনেশিয়ার সুমাত্রা দ্বীপে ৯ দশমিক ১ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানার পর সুনামি আছড়ে পড়ে। এতে ওই অঞ্চলে দুই লাখ ২০ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়। যা ছিল দেশটির ইতিহাসে ভূমিকম্পে সবচেয়ে ভয়াবহ প্রাণহানির ঘটনা।

ইন্দোনেশিয়ায় ঘন ঘন ভূমিকম্প হওয়ার প্রবণতা রয়েছে। কারণ দেশটি রিং অব ফায়ার এবং আল্পাইড বেল্টের সংযোগস্থলে অবস্থিত। আগ্নেয়গিরি এবং ভূমিকম্প অঞ্চল হিসেবেও এটির পরিচিতি রয়েছে।


আরও খবর