আজঃ মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪
শিরোনাম

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তে যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ

প্রকাশিত:রবিবার ২৩ এপ্রিল 20২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২৩ এপ্রিল 20২৩ | অনলাইন সংস্করণ
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার সীমান্ত এলাকা থেকে সাদিকুর রহমান সাধু (৩২) নামে এক যুবকের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ রোববার ভোরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে বিজিবির সহায়তায় মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত সাদিকুর রহমান সাধু শাহবাজপুর ইউনিয়নের উপরচাকপাড়া গ্রামের প্রয়াত তৈয়মুর রহমানের ছেলে। তিনি গরু ব্যবসায়ী ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের সদস্য মনিরুল ইসলাম জানান, ভোরে কৃষকরা ক্ষেতে কাজে যাওয়ার সময় একজনের লাশ পড়ে থাকতে দেখে তাকে খবর দেয়। পরে তিনি সেখানে যান।

আরও পড়ুন: চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে ৪ জনের মৃত্যু

স্থানীয়দের উদ্বৃতি দিয়ে তিনি জানান, উপরচাকপাড়া গ্রামের সাদিকুর রাতে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে যাওয়ার সময় বিএসএফ সদস্যদের গুলিতে আহত হলে তার সঙ্গীরা তাকে নিয়ে পালিয়ে আসার চেষ্টা করে। পথে তার মৃত্যু হলে সঙ্গীরা মরদেহটি ধানক্ষেতের পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

অন্যদিকে ৫৯ বিজিবি ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল গোলাম কিবরিয়া জানান, সীমান্ত থেকে ফায়ারিং রেঞ্জের অনেক দূরে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ধানক্ষেতে লাশটি পাওয়া গেছে। তবে এটি বিএসএফ রিলেটেড নয়। দেশের অভ্যন্তরীণ ইস্যুতে কোনো কারণে সাদিকুর মারা গেছে। তদন্ত করে পুলিশ এর রহস্য বের করবে।


আরও খবর



রাফায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় নিহত ৬

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফা শহরের একটি বাড়িতে বিমান হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ছয়জন নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও বেশ কয়েকজন। ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা ওয়াফা নিউজ এজেন্স এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। রাফা শহরের পূর্বে অবস্থিত জালাতা এলাকায় ওই হামলা চালানো হয়েছে। আহতদের আবু ইউসুফ আল-নাজ্জার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

ওয়াফা আরও জানিয়েছে, ইসরায়েলি বাহিনী মধ্য রাফার ইয়াবনা ক্যাম্পের একটি বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়েছে। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।এদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীরের জেনিন শরণার্থী শিবিরে একটি গাড়িতে ইসরায়েলি বিমান হামলায় আহত ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী গতকাল রাতে একটি গাড়ি লক্ষ্য করে বোমা হামলা চালিয়েছে। এতে আরও একজন নিহত এবং কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছে।

এর আগে দখলকৃত পূর্ব জেরুজালেমে ইসরায়েলি চেক পয়েন্টের কাছে গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়েছে। এতে তিনজন নিহত ও আটজন আহত হয়েছেন। ইসরায়েলের অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের প্রধান এলিন বিন জানান, বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) হামলায় আহতদের মধ্যে দুইজনের অবস্থান মারাত্মক। ইসরায়েলি পুলিশ জানিয়েছে, পশ্চিম তীরের পূর্ব জেরুজালেমের কাছে কেন্দ্রীয় মহাসড়কে ধীর গতির ট্রাফিকের সুযোগ নিয়েছে হামলাকারীরা।

একজন মুখপাত্র বিস্তারিত কোনো তথ্য না জানিয়ে বলেছেন, হামলাকারীরা ফিলিস্তিনি। তবে পাল্টা হামলায় দুই বন্দুকধারীও নিহত হয়েছেন। এদিকে গাজা এখন মৃত্যুকূপে পরিণত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান। সেখানে মানবিক কার্যক্রম পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

প্যালিস্টাইন রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি খান ইউনিসের আল-আমাল হাসপাতালে ভয়াবহ পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে সতর্ক করেছে। কারণ গত এক মাসের বেশি সময় ধরে হাসপাতালটি অবরুদ্ধ করে রেখেছে দখলদার বাহিনী।


আরও খবর
আইনি লড়াইয়ে বড় জয় পেলেন ট্রাম্প

মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪




খুলনায় মুখে সুপার গ্লু ও টেপ লাগিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জেলা প্রতিনিধি

Image

খুলনার পাইকগাছা উপজেলার রাড়ুলি গ্রামে রোববার গভীর রাতে চোখ-মুখে সুপার গ্লু আঠা দিয়ে এক গৃহবধূকে (৪৫) দলবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়েছে। এছাড়া কানের দুল ও স্বর্ণালংকারসহ কিছু মালামাল নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, ওই গৃহবধূর স্বামী ও ছেলে-মেয়ে রোববার রাতে বাড়ির বাইরে ছিলেন। রাত তিনটার দিকে মই বেয়ে বাড়ির ছাদে উঠে শাবল দিয়ে দরজা ভেঙে ঘরের ভেতর ঢোকে দুর্বৃত্তরা। এরপর গৃহবধূর চোখে ও মুখে সুপার গ্লু আঠা দিয়ে তাঁকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। পরে কানের দুল ও গলার চেনসহ কিছু মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায় তারা।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার ডা. মো. কনক হোসেন জানান, স্বর্ণালংকার নেওয়ার সময় ভুক্তভোগীর কানের কিছু অংশ ছিড়ে গেছে। এছাড়া শরীরে আঘাতের একাধিক চিহ্ন রয়েছে। চোখে আঠা লাগানো ছিল। চক্ষু ডাক্তার তাঁর চোখে ড্রপ দিয়েছেন। অন্যান্য চিকিৎসাও দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে সার্জারি বিভাগে ভর্তি রয়েছেন তিনি। তাঁকে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে নেওয়া হবে।

খুলনার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইদুর রহমান জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত এবং তাদের আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এলাকাবাসী জানায়, ভুক্তভোগীর স্বামী কাঁচামাল ব্যবসায়ী। তিনি ব্যবসায়িক কাজে রোববার রাতে গড়ুইখালী বাজারে ছিলেন। তাঁর ছেলে-মেয়ে লেখাপড়ার কারণে বাড়ির বাইরে থাকে।


আরও খবর



স্থল ও সমুদ্রসীমা নির্ধারণে সফল হয়েছে আওয়ামী লীগ: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পূর্বের সরকার ব্যর্থ হলেও স্থলসীমান্ত ও সমুদ্রসীমা নির্ধারণে সফল হয়েছে আওয়ামী লীগ। প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছে বাংলাদেশ।’

সোমবার (০৪ মার্চ) বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দিবস উপলেক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী বীর উত্তম আনোয়ার হোসেন প্যারেড গ্রাউন্ড পিলখানায় আনুষ্ঠানিক কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাদন গ্রহণ করেন।

তিনি বলেন, বিজিবিকে আন্তঃরাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা নিশ্চিতে আধুনিক অস্ত্র দেওয়া হয়েছে।’ এসময় বিজিবি সদস্যদের শৃঙ্খলা ও চেইন অব কমান্ড মেনে চলার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের কথা স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এখানে এলেই মনটা ভারী হয়ে যায়। ২০০৯ সালে কেবল সরকার গঠন করি। ২৫ ফেব্রুয়ারি ঘটে এক অঘটন। এই বিদ্রোহে ৫৭জন অফিসারসহ ৭৪জন জীবন হারায়। নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। স্বজনদের সহমর্মিতা জানাচ্ছি। স্বজন হারার বেদনা কত কঠিন, সেটা বোধহয় আমার থেকে কেউ বেশি জানে না। আমরা এই ঘটনার বিচার করেছি।’

তিনি বলেন, বিডিআর বিদ্রোহে জড়িতদের বিচারের আওতায় আনা হয়েছে, এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আমরা ব্যবস্থা করছি। যত খাদ্য লাগে আমরা বাইরে থেকেও নিয়ে আসছি। পাশাপাশি দেশের প্রতিটি মানুষকে উৎপাদন করতে হবে। যাতে আমাদের কারও কাছে হাত পাততে না হয়। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই। বিজিবি বিশ্বমানের আধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে উঠবে আমরা চাই।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশমাতৃকা রক্ষায় সদা অতন্দ্র প্রহরী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি চোরাচালান, মাদকরোধ ও দেশের অভ্যন্তরে অগ্নিসন্ত্রাসসহ বিভিন্ন ভূমিকা রেখেছে তারা। বাংলাদেশের মানুষের আস্থার প্রতীক হয়ে সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে এগিয়ে যাবে বিজিবি এটাই আমার প্রত্যাশা।’

শেখ হাসিনা বলেন, বিজিবিকে বিশ্বমানের আধুনিক বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার। বিজিবি হবে স্মার্ট বাহিনী। তাদের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য আমরা নানা পদক্ষেপ হাতে নিয়েছি।’

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বিজিবিতে বীরত্বপূর্ণ ও কৃতিত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ বাহিনীর সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সরকারের পদস্থ কর্মকর্তারা অংশ নিয়েছেন।


আরও খবর



১১ ইটভাটার আগুনে পুড়ছে এক গ্রামের তিন ওয়ার্ডের মানুষ

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নরসিংদী প্রতিনিধি

Image

গ্রামের নাম সররাবাদ। বেলাব উপজেলার সল্লাবাদ ইউনিয়নের সররাবাদ ও পাশের ইব্রাহীমপুর এই দুই গ্রামের তিন ওয়ার্ডে রয়েছে ১১ ইটভাটা। এসব ভাটার বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় বাড়ছে শ্বাসকষ্টসহ নানা রোখ। অন্যদিকে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে ফসলী জমি ও হাছগাছালীর। সররাবাদ গ্রামের পুরাতস ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে পাশাপাশি স্থাপন করা এসব ভাটার অনুমোদ পেল কিভাবে সেটা নিয়ে রয়েছে জনমনে নানা প্রশ্ন। তাছাড়াও বেলাব উপজেলার পাটুলী ইউনিয়ন, আমলাব ইউনিয়ন ও বাজনাব ইউনিয়ন, বেলাব ইউনিয়নেও রয়েছে একাধিক ইটভাটা। এসব ভাটার বেশিরভাগই কাগজপত্রে গড়মিল।

তবে জেলা পরিবেশ অধিদপ্তর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি তারা পরিবেশ দূষণ ও পরিবেশগত ছাড়পত্র না থাকায় সল্লাবাদ ইউনিয়নের সররাবাদ গ্রামে নির্মিত পিএসবি ব্রিকস ও ন্যাশনাল ব্রিকস নামে দুটি ভাটাকে তিন লক্ষ টাকা করে ছয় লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন। তবে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে জরিমানা করা ওইসব ভাটায় নিয়মিত ইট পুড়ানো হয়। 

জানা গেছে সররাবাদ এলাকার পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীরের ফসলী জমির উপর পাশাপাশি রয়েছে বেশকিছু ইটভাটা। এর মধ্যে সচল রয়েছে ১১টি ভাটা। সচল থাকা এসব ইটভাটার মধ্যে বেশিরভাগ ইটভাটারই নেই কোন বৈধ কাগজপত্র। এসব ইটভাটার কারনে এ এলাকায় ফসলী জমিতে এখন আর ফসল ফলেনা। কৃষকরা জানান, যে জমিতে তারা চাষাবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করতো সে জমি এখন ভাটা মালিকদের দখলে।

সররাবাদ এলাকার আবু ছালেহ রনি নামে এক যুবক জানান, এক মাঠে এতগুলো ইটভাটার অনুমোদন কিভাবে দিল। সেটা আমার বুঝে আসেনা। এসব ভাটার বিষাক্ত কারো ধোয়ার কারণে বয়স্ক মানুষ ও বাচ্চাদের শ্বাসকষ্ট রোগ দেখা দিয়েছে।

সরেজমিনে সল্লাবাদ ইউনিয়নের সররাবাদ ও ইব্রাহিমপুরের গ্রামে গিয়ে দেখা যায়,শুধু এই দুই গ্রামের তিনটি ওয়ার্ডেই গড়ে উঠেছে বেশকিছু ইটভাটা। এসব ইটভাটার মধ্যে সিক্সলাইন ব্রিকস, ভরসা ব্রিকস, জেএমবি ব্রিকস, ডিএমপি ব্রিকস, কেএমবি ব্রিকস, ন্যাশনাল ব্রিকস, পিএসবি ব্রিকস, এসআরবি ব্রিকস, আরএসবি ব্রিকস, এশিয়া ব্রিকস, বিবিবি ব্রিক ফিল্ডসহ মোট ১১টি ইট ভাটায় ইট পুড়ানো হচ্ছে নিয়মিত। ভাটাগুলো ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে কয়েকশ একর ফসলী জমির উপর নির্মিত। একেকটা ইটভাটার গা ঘেষে আরেকটি ইটভাটা। এভাবেই ১১টি ভাটার অবস্থান। এসব ইটভাটার মধ্যে বেশিরভাগই পরিবেশ আইন লঙ্গন করে গড়ে উঠা। নদের তীরে ইটভাটা এলাকায় রয়েছে ইব্রাহিমপুর বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ইব্রাহীমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় নামে দুটি বিদ্যালয়সহ কয়েকশ বসতি। ভাটার আগুনে এসব ফসল গাছাগাছালীর ক্ষতিরসহ ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় শ্বাসকষ্টসহ নানা ব্যাধীতে আক্রান্ত হচ্ছে বয়স্ক মানুষ ও শিশুরা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, জনবসতি ও ফসলি জমিতে ইটভাটা স্থাপনে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও সব মহলকে ম্যানেজ করেই গড়ে তোলা হচ্ছে একের পর এক ইটভাটা। অথচ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের এ ব্যাপারে নেই কোন মাথাব্যাথা।

আব্দুল ওহাব মিয়া নামে এক কৃষক জানান, ইটভাটাতে আসা ইছারমাতা নামক অবৈধ যানের কারনে গ্রামের চারপাশে ধুলাবালির আস্তরণ পড়ে। এই অবৈধ যান ইছারমাতা দিয়ে ভাটার মালিকরা ইট বিভিন্ন এলাকার গ্রাহকদের কাছে পৌছে দেয়। এসব যানের বিকট শব্দ ও আনাড়ি ড্রাইভার কারণে প্রায়ই ঘটে ছোটবড় দূঘর্টনা।

সররাবাদ এলাকার মেসার্স বিবিবি ব্রিক ফিল্ড এর স্বত্তাধিকারী মোঃ শাহ আলম বলেন, আমার ইটভাটার কাগজপত্র সঠিক আছে। আমার ভাটায় গাছ বা কাঠ পুড়িনা। ইছারমাতা ছাড়াতো আর ইট আনা নেওয়া করা যায়না। তাই ইছারমাতা ব্যবহার করি। পরিবেশ দূষনের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন ভাটার কারনে পরিবেশের তেমন ক্ষতি হচ্ছেনা।

নরসিংদী জেলা পরিবেশ অধিদপ্তরের ডিডি শেখ মোহাম্মদ নাজমুল হুদা বলেন, আমরা ইতিমধ্যে বেলাব উপজেলার সররাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে পরিবেশ দূষণ ও পরিবেশগত ছাড়পত্র না থাকাসহ বিভিন্ন কারণে দুটি ইটভাটাকে তিনলক্ষ টাকা করে ছয় লক্ষ টাকা জরিমানা করেছি। বাকিগুলোতেও আমরা পর্যায়ক্রমে পরিদর্শন করে যেগুলোর সমস্যা রয়েছে সেগুলোর ব্যাপারে ব্যবস্থা নিব।

নিউজ ট্যাগ: নরসিংদী ইটভাটা

আরও খবর



টাইমড আউটের ইতিহাস গড়া আম্পায়ার এরাসমাসের অবসর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

গেল ওয়ানডে বিশ্বকাপে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো টাইমড আউট হয়েছিলেন শ্রীলঙ্কান অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। তাকে আউট দেওয়া আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আম্পায়ারিংকে বিদায় বললেন। বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) ভোরে ওয়েলিংটনে শুরু হওয়া নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া টেস্টই হবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আইসিসির এলিট প্যানেলের এই দক্ষিণ আফ্রিকানের শেষ ম্যাচ।

ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজে অবসর বিষয়ে ৬০ বছর বয়সী এরাসমাস বলেন, সিদ্ধান্তটা আমি গত বছরের অক্টোবরে নিয়েছি। আইসিসিকে সেটা জানিয়েও দিয়েছি যে এপ্রিলে আমার চুক্তির মেয়াদ শেষ হলে আর থাকছি না।

এরাসমাস তার ১৮ বছরের আম্পায়ারিং ক্যারিয়ারে দুটি ওয়ানডে বিশ্বকাপ ফাইনাল পরিচালনার দায়িত্ব সামলেছেন। এছাড়া মেলবোর্নে ২০১৫ ফাইনালে ছিলেন টিভি আম্পায়ার। আর চার বছর পর লর্ডসে বেয়ারেস্ট অব অল মার্জিনস-এর ফাইনালে ছিলেন মাঠেই। ভালো আম্পায়ারিংয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৬, ২০১৭ ও ২০২১ সালে আইসিসি বর্ষসেরা আম্পায়ারের পুরস্কার (ডেভিড শেফার্ড ট্রফি) জেতেন তিনি।

এরাসমাস অবশ্য একটি জায়গায় সব আম্পয়ার থেকে আলাদা হয়ে আছেন। ভারতে অনুষ্ঠিত ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচে সাকিব আল হাসানের আবেদনে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকে টাইমড আউট দিয়ে ইতিহাসের সাক্ষী হয়েছেন তিনি। কেননা ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথমবার এমন আউটের ঘটনা ঘটে।

অবসর প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, এ কাজ করতে গিয়ে সবচেয়ে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয় সঠিক সিদ্ধান্ত জানানোর মুহূর্তে। এটা সব সময় কঠিন এবং বিশেষ ব্যাপার। কাজটা ঠিকভাবে করতে পারলে আনন্দ লাগে।

এর আগে ২০০৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে জোহানেসবার্গে অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আম্পায়ারিংয়ের অভিষেক হয় এরাসমাসের। তিন সংস্করণে সব মিলিয়ে তিনি ৩৭৮ ম্যাচ (১২৫ টেস্ট, ১৯২ ওয়ানডে, ৬১ টি-টোয়েন্টি) পরিচালনা করেছেন। এছাড়া মেয়েদের ম্যাচ পরিচালনা করেছেন ৭৯টি। ২০১০ সালে স্বদেশি আম্পায়ার রুডি কোয়ের্টজেন অবসর নিলে তার জায়গায় আইসিসির এলিট প্যানেলভুক্ত হন। তবে তার অবসরে আইসিসি এলিট প্যানেলে আম্পায়ারের সংখ্যা কমে হলো ১১। একমাত্র দক্ষিণ আফ্রিকান হিসেবে রয়ে গেলেন অ্যাড্রিয়ান হোল্ডস্টক।

অবশ্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আম্পায়ারিং ছেড়ে দিলেও কিছুদিন বিরতির পর ঘরোয়া ক্রিকেটে চালিয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন এরাসমাস, প্রথম দুই মাস আমি শীতকালীন ছুটি কাটাব। আমরা দেশের মধ্যেই ভ্রমণের পরিকল্পনা করে রেখেছি। সেপ্টেম্বর থেকে আমি ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকার (সিএসএ) অধীন চলে যাব। তারা আমাকে কীভাবে ব্যবহার করবে, সেটা চূড়ান্ত করতে হবে। পরবর্তী মৌসুমে আমি ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারিং করব এবং একই সঙ্গে পরামর্শকের ভূমিকা পালন করব। আমি খায়া মাজোলা উইকে (সপ্তাহব্যাপী আয়োজিত একটি স্কুলের অনুষ্ঠান) অথবা ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপে যেতে পারি। সেখানে আমি খেলা দেখব এবং আম্পায়ারদের পরামর্শ দেব।

আম্পায়ারিং শুরুর আগে পুরোদস্তুর খেলোয়াড় ছিলেন এরাসমাস। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাদেশিক দল বোল্যান্ডের হয়ে খেলেছেন ৫৩টি প্রথম শ্রেণির ও ৫৪টি লিস্ট ম্যাচ।


আরও খবর