আজঃ শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২
শিরোনাম

‘বর্তমান প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৬০জন দেখেছেন
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বর্তমান প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে। স্বাধীনতা বিরোধীচক্র সব সময় মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করতে চেষ্টা চালাচ্ছে। বর্তমান সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের পাশাপাশি সর্বস্তরের জনসাধরণের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের কল্যাণে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উন্নত ও সম্মৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

শুক্রবার দুপুরে পিরোজপুরের স্বরূপকাঠির উত্তর পশ্চিম সোহাগদল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের তিনতলা একাডেমিক ভবনের শুভ উদ্বোধন ও শহীদ মিনারের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে বিদ্যালয় মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সততা, সাহসিকতা, দেশপ্রেম দিয়ে সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে মহামারির সংকট মোকাবিলা করে বাংলাদেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখেছেন। বছরের শুরুতেই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই পৌঁছে দিয়েছেন। শিক্ষার মান উন্নয়নে সর্বদা কাজ করে চলছেন।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. সরোয়ার হোসেন স্বপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম, পুলিশ কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন ও প্রধান শিক্ষক গ্রীন তালুকদার প্রমুখ। পরে মন্ত্রী ডিজিটাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন, কবি এমদাদ আলী স্মৃতি পাঠাগারে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্ণারের উদ্বোধন ও গুনীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।


আরও খবর



নেত্রকোনায় এশিয়ান টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন

Image

আমিনুল ইসলাম, নেত্রকোনা

নেত্রকোনা পুর্বধলা উপজেলার খলিশাউড় ইউনিয়নের বন্দেরপাড়া গ্রামে  বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে এশিয়ান টিভির ৯ম বর্ষপূর্তি পালন করা হয়েছে ।  

 

মঙ্গলবার বিকেলে বন্দেরপাড়া গ্রামে  হাজী আমির উদ্দিন মুন্সী স্মৃতি পাঠাগারে  আলোচনা সভা, কেককাটা, শিক্ষা সামগ্রী, গেন্জী,সাবান  ও শীতার্ত অসহায় মাদ্রাসা ছাত্রদের মাঝে কম্বল করা হয়।

 

এছাড়া আদিবাসীদের নিয়ে গবেষনায় বিশেষ অবদানের জন্য লেখক ও গবেষক আলী আহাম্মদ খান আইয়োব ও বয়োজ্যেষ্ঠ ব্যক্তি হিসেবে মোসলেম উদ্দিন মাষ্টার কে বিশেষ সম্মাননা স্বারক প্রদান করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদুল ইসলাম সুজন।

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,লেখক গবেষক আলী আহাম্মদ খান আইয়োব, যুবলীগের সহ-সভাপতি জুলফিকার আলী শাহিন, পাঠাগার আন্দোলনের সাধারন সম্পাদক আজিজুর রহমান, শহিদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু রায়হান মাষ্টারসহ অন্যরা।


আরও খবর
ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনায় ৪ জনের মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২২




সৌদি রাজকুমারী কারামুক্ত

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সৌদি আরবের রাজকুমারী বাসমা বিনতে সৌদ প্রায় তিন বছর পর কারামুক্ত হয়েছেন। দেশটির রাজধানী রিয়াদের আল-হাইর কারাগার থেকে ৫৭ বছর বয়সী বাসমা ও তাঁর মেয়ে সুহোউদের মুক্তির বিষয়টি গত শনিবার মানবাধিকার সংস্থা এএলকিইএসটি নিশ্চিত করে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

২০১৯ সালের মার্চে সুইজারল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার আগমুহূর্তে আটক করা হয় তাঁকে। তবে ঠিক কী কারণে তাঁকে আটক রাখা হয়েছিল তা জানা যায়নি।

বলা হয়ে থাকে, সৌদি আরবে নারী অধিকার এবং সাংবিধানিক সংস্কারের কর্মী হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে পরিচিতি রয়েছে রাজকন্যা বাসমা বিনতে সৌদের।

২০২০ সালে জাতিসংঘ বরাবর লেখা এক বিবৃতিতে বাসমার পরিবারের সদস্যেরা জানান, নির্যাতনবিরোধী অবস্থান নেওয়ার কারণেই হয়তো তাকে আটক রাখা হয়েছে।

এ ছাড়া গৃহবন্দি সাবেক ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফের সঙ্গে সুসম্পর্কের কারণেও বাসমাকে আটকে রাখা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা তাঁর সমর্থকদের।

শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে এবং নিজেকে নির্দোষ দাবি করে গত বছরের এপ্রিলে সৌদি বাদশাহ সালমান এবং ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের কাছে নিজের মুক্তির জন্য আবেদন করেন।

বাদশাহ সৌদের সর্বকনিষ্ঠ কন্যা বাসমা বিনতে সৌদ। ১৯৫৩ সাল থেকে ১৯৬৪ সাল পর্যন্ত শাসন করেন বাদশাহ সৌদ।


আরও খবর



মুজিববর্ষে শতভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছি: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শতভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, মুজিববর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে শতভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। আমরা সে প্রতিশ্রুতি অক্ষরে অক্ষরে পূরণ করেছি।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সরকারের বর্তমান মেয়াদের ৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে ভাষণে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি কয়েকটি বিষয় আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাই। তার মধ্যে বিদ্যুৎ বর্তমান সময়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পণ্য। ২০০৯ সালে আমাদের সরকারের দায়িত্ব নেওয়ার আগে বিদ্যুৎ সরবরাহ পরিস্থিতির কথা আপনাদের মনে আছে। তখন সর্বসাকুল্যে বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা ছিল ৪২০০ মেগাওয়াট। বর্তমানে দৈনিক বিদ্যুৎ উৎপাদন সক্ষমতা দাঁড়িয়েছে ২৫ হাজার ২৩৫ মেগাওয়াটে। দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অংশ হিসেবে পটুয়াখালীর পায়রাতে এরই মধ্যে ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপিত হয়েছে। রামপাল, পায়রা, বাঁশখালী, মহেষখালী এবং মাতারবাড়িতে আরও মোট ৭ হাজার ৮০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের কাজ চলছে।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালে জাতীয় গ্রিডে ১ হাজার ৭৪৪ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস সরবরাহ করা হতো, বর্তমানে যা ২ হাজার ৫২৫ মিলিয়ন ঘনফুটে দাঁড়িয়েছে। গ্যাসের অব্যাহত চাহিদা মেটাতে ২০১৮ থেকে তরলিকৃত গ্যাস আমদানি করা হচ্ছে। নববর্ষের শুরুতে আমাদের জন্য সুখবর হচ্ছে: বঙ্গোপসাগরে যে গ্যাস হাইড্রেটের সন্ধান পাওয়া গেছে তার পরিমাণ ১৭ থেকে ১০৩ ট্রিলিয়ন ঘনফুট।

সরকারপ্রধান বলেন, আজ খাদ্য উৎপাদনে বাংলাদেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ। বর্তমানে দানাদার খাদ্যশস্য উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ কোটি ৫৫ লাখ মেট্রিক টন। বাংলাদেশ বিশ্বে ধান, সবজি ও পেঁয়াজ উৎপাদনে তৃতীয় স্থানে উন্নীত হয়েছে। অব্যাহত নীতি সহায়তা ও প্রণোদনার মাধ্যমে কৃষিক্ষেত্রে এ বিপ্লব সাধিত হয়েছে। মাছ-মাংস, ডিম, শাকসবজি উৎপাদনেও বাংলাদেশ স্বয়ংসম্পূর্ণ। অভ্যন্তরীণ মুক্তজলাশয়ে মাছ উৎপাদন বৃদ্ধির হারে বাংলাদেশ দ্বিতীয় স্থানে এবং ইলিশ উৎপাদনকারী ১১ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান প্রথম।

সরকারপ্রধান বলেন, জনগণের সরকার হিসেবে মানুষের জীবনমান উন্নয়ন করা আমাদের দায়িত্ব এবং কর্তব্য বলেই আমি মনে করি। গত ১৩ বছরে আমরা আপনাদের জন্য কী কী করেছি, তা আপনারাই মূল্যায়ন করবেন। তবে, আমি দৃঢ়ভাবে বলতে পারি আমরা যেসব ওয়াদা দিয়েছিলাম, তা সফলভাবে বাস্তবায়ন করতে পেরেছি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে বিজয়ী হওয়ার পর, ২০১৯ সালের ৭ জানুয়ারি শেখ হাসিনা চতুর্থ বারের মতো (টানা তিন বার) প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেন।


আরও খবর



আমি নির্বাচিত হলে কোনো হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না : মান্নান তালুকদার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ৪২৫জন দেখেছেন

Image

শরীয়তপুর ব্যুরো

ষষ্ঠ ধাপে জমে উঠেছে শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিকন্দী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চেয়ারম্যান সাধারণ সদস্যরা। চিকন্দী ইউনিয়নবাসীকে দিয়ে যাচ্ছেন নানানরকম প্রতিশ্রুতি। এই ইউনিয়নে জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে প্রচার প্রচারণায় চশমা প্রতীক নিয়ে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোটারদের বাড়ি  বাড়ি গিয়ে করছেন চশমা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা। এবার নির্বাচিত হলে চিকন্দী ইউনিয়নবাসীকে কোনো হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না বলে জানান অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার।

 

চিকন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী (চশমা প্রতীক) অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার বলেন, আমি এই নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। এর আগে চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণ আমাকে ২০১১ সালে একবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছিল। ২০১১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আমি চেয়ারম্যান ছিলাম আমি চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে চিকন্দী ইউনিয়ন এর জনগণ জানে আমি তাদের জন্য কি করেছি এবং আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পর শুধু আমি চেয়ারম্যান ছিলাম আমার গুষ্টি গীয়াতি বা কোন ভাই-ব্রাদার চেয়ারম্যানী করতে আসে নাই বা কোনো ক্ষমতা দেখাতেও আসেনি। আমার প্রতিপক্ষ যারা আছে তারা যদি চেয়ারম্যান হয় তাদের বংশের পরিবারের সবাই চেয়ারম্যান হবে এবং এই এলাকার লোকজন অনেক চাপে থাকবে। যদি চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে তাহলে আমি পরিকল্পনা করেছি এই ইউনিয়নের রাস্তাঘাট, কালবাটসহ যেসব প্রধান প্রধান সমস্যা আছে আমি সমস্যাগুলো দূর করে দিব ইনশাআল্লাহ। চিকন্দী বাসিকে যে হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হয় আমি নির্বাচিত হলে আমার নিজস্ব অর্থায়নে এই টেক্স দিয়ে দিব। চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণকে হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না।

 


আরও খবর



সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত মেয়র তাপস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ও তাঁর স্ত্রী আফরিন তাপস। এ ছাড়া ডিএসসিসি মেয়রের গানম্যান শেখ আশিকুজ্জামানও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

আগামীকাল শুক্রবার পরিবার নিয়ে লন্ডন যাওয়ার কথা ছিল মেয়র তাপসের।

ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবু নাছের এতথ্য নিশ্চিত করে বলেন, লন্ডনে যাওয়ার জন্য তিনি করোনা টেস্ট করান। কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার করোনা পরীক্ষায় ফল পজিটিভ আসে। তিনি সকাল থেকে অফিস করেছেন। এখন বাসায় চলে যাচ্ছেন। তাঁর হালকা কাশিও রয়েছে। তাঁর স্ত্রীও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

তিনি আরও জানান, এর আগে তাঁর দুই ছেলে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। সম্প্রতি তাঁদের রেজাল্ট নেগেটিভ আসে।

নিউজ ট্যাগ: ডিএসসিসি

আরও খবর
রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেফতার ৫৯

শুক্রবার ২৮ জানুয়ারী ২০২২