আজঃ মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২
শিরোনাম

বন্যায় রেলপথে ক্ষতি, ঈদযাত্রায় শঙ্কা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ জুন ২০২২ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বন্যায় রেলপথের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন রেলওয়ে স্টেশন, রেললাইন পানির নিচে তলিয়ে গেছে। গুরুত্বপূর্ণ রেলওয়ে ব্রিজও ভেঙে গেছে। শুরুতে বেশ কিছু ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয়। বর্তমানে ক্ষতিগ্রস্ত কিছু এলাকায় ৫ থেকে ৮ কিলোমিটার গতিতে ট্রেন চালানো হচ্ছে। চালক ও গার্ডরা বলছেন, চরম ঝুঁকি নিয়ে ট্রেন চালাতে হচ্ছে। অপরদিকে রেলওয়ে প্রকৌশল দপ্তর বলছে, তলিয়ে যাওয়া রেললাইন থেকে ধীরে ধীরে পানি সরছে। কিন্তু লাইনে দীর্ঘ সময় পানি থাকায় মাটি নরম হয়ে গেছে। ফলে উনিশ থেকে বিশ হলেই লাইন দেবে যাচ্ছে। ব্রিজের দুপাশের মাটি ধসে যাচ্ছে। এ অবস্থায় আসছে ঈদ। এ সময় স্বাভাবিকের চেয়ে দ্বিগুণের বেশি যাত্রী নিয়ে একেকটি ট্রেন চলে।

পরিস্থিতি মোকাবিলার বিষয়টি মাথায় রেখে দ্রুত সংস্কার কাজ চলছে। তবে বন্যা দীর্ঘস্থায়ী হলে শঙ্কা আরও বাড়বে। রেলপথ সচিব ড. হুমায়ুন কবির বলেন, বন্যায় রেলওয়ে স্টেশন, রেললাইন, ব্রিজের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। সবচেয়ে উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, তলিয়ে যাওয়া লাইন, স্টেশন থেকে ধীরে ধীরে পানি নামলেও ওইসব স্থানে মাটি নরম। ট্রেন যথেষ্ট লোড নিয়ে চলাচল করে। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় আমরা ঝুঁকি নিয়েই গতি কমিয়ে ট্রেন চালাচ্ছি। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় অতিরিক্ত লোকবল দিয়ে দ্রুত কাজ করানো হচ্ছে। বিভিন্ন দপ্তর মাঠ পর্যায়ে সরঞ্জাম নিয়ে রয়েছে। মজুত করা হয়েছে নির্মাণসামগ্রী। বন্যায় রেলসেতুর দুপাশ থেকে মাটি ধসে গিয়ে বেশি সমস্যার সৃষ্টি করেছে।

ড. হুমায়ুন কবির বলেন, ঢাকা-মোহনগঞ্জ রেলপথের বারহাট্টা রেলওয়ে ব্রিজের বেশ ক্ষতি হয়েছে। ওই লাইনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। ব্রিজটি মেরামত করতে দিন-রাত কাজ চলছে। এ ছাড়া সিলেট লাইনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় খুবই কম গতি নিয়ে ট্রেন চালাতে হচ্ছে। ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাসহ সন্দেহজনক এলাকায় মালামাল মজুত করে রাখছি। যে কোনো পরিস্থিতিতে যেন দ্রুত সংস্কার কাজ সম্পন্ন করা যায়। সামনে ঈদুল আজহা, ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় থাকার জন্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

পূর্বাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী মো. আবু জাফর মিয়া জানান, শুধু সিলেট লাইনে নয়, আখাউড়া-চট্টগ্রাম, ঢাকা-মোহনগঞ্জ রেলপথেও রেললাইন, ব্রিজের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এসব লাইন এলাকায় রেলপথ থেকে বন্যা এবং পাহাড়ি ঢলের পানি নেমে গেছে। বেশ কয়েকদিন লাইন এলাকায় পানি জমা ছিল। ব্রিজের দুপাশের মাটি ঠেকাতে কিছু ব্রিজের দুপাশে বালির বস্তাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সিলেট রেলওয়ে স্টেশনসহ ওই এলাকায় রেললাইন পানির নিচে ছিল। শনিবার ওই পথে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। বর্তমানে ট্রেন চলছে, তবে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় খুব কম গতি নিয়ে ট্রেন চালানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

মো. আবু জাফর মিয়া বলেন, মোহনগঞ্জ এলাকায় বারহাট্টা রেলওয়ে ব্রিজ ভেঙে গেছে। দুপাশের মাটি ধসে বিশাল গর্ত হয়ে গেছে। আশা করছি, কয়েকদিনের মধ্যে ব্রিজটি অস্থায়ীভাবে মেরামত করা সম্ভব হবে। বর্তমানে ওই ব্রিজ দিয়ে কোনো ট্রেন চলাচল করছে না। ঈদযাত্রায় কোনো শঙ্কা আছে কি না? সবকিছু মাথায় নিয়েই আমরা কাজ করছি। লাইন মেরামত এবং ফের লাইনে পানি উঠলে কী কী করণীয় তা নিশ্চিত করা হচ্ছে।

অভিযোগ রয়েছে, বন্যাকবলিত এলাকায় প্রতিবছরই লাইন পানিতে তলিয়ে যায়। একই সঙ্গে স্টেশনে পানি ওঠাসহ বিভিন্ন ব্রিজের দুপাশের মাটি ধসে বড় বড় গর্ত হয়। কখনো কখনো ব্রিজসহ দুপাশের লাইন পানিতে ভেসে যায়। বন্যাপরবর্তী সময়ে টেকসই এবং সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এগুলো মেরামত এবং পুনর্নির্মাণ করার কথা। কিন্তু বাজেট নেই কিংবা পর্যাপ্ত বরাদ্দ না থাকার অজুহাতে কোনো মতো কাজ শেষ করেই ট্রেন চালানো শুরু হয়। ফলে বন্যা এলে এসব এলাকায় লাইন ব্রিজ এবং স্টেশন এলাকায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

এ বিষয়ে রেলওয়ে অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অবকাঠামো) প্রকৌশলী মো. কামরুল আহসান বলেন, বন্যায় ঝুঁকি নিয়েই ট্রেন পরিচালনা করতে হয়। বন্যায় সড়কপথে ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় রেলপথের প্রতি সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা আরও বাড়ে। এছাড়া বন্যাকবলিত এলাকায় খাদ্যসামগ্রী পৌঁছাতে কম গতি নিয়েও ট্রেন চালাতে হয়। আমরা মাঠ পর্যায়ে পর্যাপ্ত লোকবল এবং সরঞ্জাম রেখেছি। আশা করছি কয়েক দিনের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলো সংস্কার কাজ সম্পন্ন করা যাবে। শুধু সংস্কারই করছি না, নজর দিচ্ছি সামনে ঈদযাত্রা। ঈদযাত্রায় অতিরিক্ত ট্রেন চলে, চলমান ট্রেনের সঙ্গে কোচ বাড়ানো হয়। যাত্রীদের চাপ ২-৩ গুণ বেশি হয়। ওই সময় যাতে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রাখা যায়, সে জন্য বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে কাজ করা হচ্ছে। একইসঙ্গে মজুত রাখা হচ্ছে মালামাল।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মো. মনিরুল ইসলাম ফিরোজী বলেন, বিভিন্ন লাইন এলাকায় এখনো বন্যার পানি রয়েছে। ব্রিজের নিচ দিয়ে তীব্র বেগে পানি নামছে। বারহাট্টা এলাকায় রেলসেতু ভেঙে পড়ায়, সেতুর দুপাশের মাটিও সরে গেছে। কুড়িগ্রাম রেলওয়ে এলাকায় প্রায় ২ কিলোমিটার রেলপথ বন্যায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। পাথর সরে গেছে। কুড়িগ্রামের উলিপুর থেকে রমনা বাজার পর্যন্ত রেলপথে পানি উঠে লাইন তলিয়ে গেছে। ওই পথে ট্রেন চালানো বন্ধ রয়েছে।


আরও খবর



তাইওয়ানের আকাশে ফের চিনা যুদ্ধবিমান

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সংখ্যায় তারা অন্তত ৩০টি। তার মধ্যে ২০টিই যুদ্ধবিমান। এই বিশাল বিমানবাহিনী নিয়ে সোমবার তাইওয়ানের আকাশে ফের হানা দিল চিনের বায়ুসেনা।

এ বছর ২৩ জানুয়ারি তাইওয়ানের আকাশ প্রতিরক্ষা সীমান্তে এমনই ৩৯টি যুদ্ধবিমান নিয়ে হানা দিয়েছিল চিন। আড়েবহরে তার পরেই রয়েছে গতকালের বিমানবাহিনী। তাইওয়ানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, চিনা গতিবিধির উপরে নজর রাখতে ইতিমধ্যে তাঁদের বায়ুসেনা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রতিরক্ষামূলক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা প্রস্তুত রাখারও নির্দেশদেওয়া হয়েছে।

স্বায়ত্তশাসিত তাইওয়ানের উপরে চিনের নজর অনেক দিনের। এর আগে, প্রয়োজনে বলপূর্বক তাইওয়ান দখলের হুমকি দিয়েছিল চিন। তবে চাপের মুখে নতি স্বীকার করেনি তাইপেই। আমেরিকাও তাইওয়ানের পাশে দাঁড়িয়ে পাল্টা হুমকি দিয়েছিল, চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে তারা সর্বশক্তি দিয়ে তাইওয়ানের পাশে দাঁড়াবে। যদিও সেই হুমকিতে বেজিং যে সিদ্ধান্ত বদলায়নি, তা গত কালের চিনা অভিযানে এক রকম স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে।


আরও খবর



অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা জিতলেন জনি ডেপ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ জুন 2০২2 | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। অবশেষে প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বার হার্ডের বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলা জিতলেন আমেরিকান অভিনেতা জনি ডেপ। আদালতের জুরি সদস্যরা জানিয়েছেন, অ্যাম্বার গার্হস্থ্য হিংসার যে অভিযোগ জনির বিরুদ্ধে এনেছিলেন তা মিথ্যা এবং অবমাননাকর। অ্যাম্বারকে প্রায় ১১৭ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও নির্দেশ দিয়েছে আদালত। পাশাপাশি জনির বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ আনার পিছনে অ্যাম্বারের অসৎ উদ্দেশ্য ছিল বলেও আদালত জানিয়েছে।

২০১৮ সালে জনির বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ এনেছিলেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী। এর পরেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন জনি। অভিনেতা মিথ্যা বলছেন দাবি করে পাল্টা মামলা করেন অ্যাম্বারও। এই জোড়া মামলার শুনানিতে বিস্তর কাদা ছোড়াছুড়ি দেখছে আদালত। উত্তাল ছিল দুপক্ষের অনুরাগী মহলও। তবে জনির আইনজীবী অ্যাডাম ওয়াল্ডম্যান এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন, তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে অ্যাম্বারের আনা গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ ধাপ্পাবাজি ছাড়া আর কিছু নয়। এই বিবৃতিকেও অবমাননা বলে উল্লেখ করে জনির আইনজীবীকেও প্রায় সাড়ে ১৫ কোটি টাকার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিন দিন ধরে সাত সদস্যের জুরি প্রায় ১৩ ঘণ্টার উপর আলোচনা করার পর এই সিদ্ধান্তে পৌঁছলেন।

 


আরও খবর



ডোমিনিকান পরিবেশমন্ত্রীকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ জুন ২০২২ | ২৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডোমিনিকান রিপাবলিকের পরিবেশমন্ত্রী অরলান্ডো জর্জ মেরা নিজের কার্যালয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। সোমবারের এ ঘটনায় মিগুয়েল ক্রুজ নামে সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। আটক ক্রুজ নিহত মন্ত্রীর বাল্যবন্ধু বলে টুইটারে দেওয়া এক ভিডিও পোস্টে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের মুখপাত্র হোমেরো ফিগুয়েরো। তবে সোমবারের এ হামলার পেছনে সম্ভাব্য কী কারণ থাকতে পারে তা তিনি বলেননি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ডোমিনিকান রিপাবলিকের পরিবেশ ও প্রাকৃতিক সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কর্মীরা সাংবাদিকদের জানান, ভবনের ভেতর থেকে সাতটি গুলির শব্দ শুনতে পান তারা। এর কিছুক্ষণ পরই পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে।

৫৫ বছর বয়সি আইনজীবী মেরা দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট সালভাদর জর্জ ব্লাঙ্কোর ছেলে। ব্লাঙ্কো ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে ছিলেন। মেরার ছেলে অরলান্ডো জর্জ ভিলেজাস কেন্দ্রীয় আইনপ্রণেতা এবং মডার্ন রেভ্যুলেশনারি পার্টির সদস্য।


আরও খবর



রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১১ জুন ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে জরুরি ভিত্তিতে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার (১০ জুন) দিবাগত রাত আনুমানিক সোয়া ৩টার দিকে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

বিএনপির প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, রাত ২টা ৫০ মিনিটে খালেদা জিয়া হাসপাতালের উদ্দেশে রওয়ানা হন। এরপর রাত সোয়া ৩টার দিকে খালেদা জিয়াকে বহনকারী গাড়ি হাসপাতালে পৌঁছে।

এর আগে রাত ২টা ৫৫ মিনিটের দিকে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে গুলশানের বাসা ফিরোজা ত্যাগ করেন খালেদা। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন ও প্রেস উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার।

 


আরও খবর



গুরুদাসপুরে কোরবানির চাহিদার চেয়ে অর্ধলক্ষের বেশি পশু প্রস্তুত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ জুন ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ জুন ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন

Image

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলায় আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে বিক্রির জন্য ৮৫ হাজার কোরবানির পশু প্রস্তুত করছেন খামারিরা। উপজেলায় কোরবানির পশুর চাহিদা রয়েছে প্রায় ৩৬ হাজার ৬৫২ টি। চাহিদার চেয়ে সাড়ে ৪৮ হাজার উদ্বৃত্ত পশু বাইরে বিক্রি করতে পারবেন খামারিরা।

গুরুদাসপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, গত সপ্তাহের জরিপে উপজেলায় ২ হাজার ৩৫৬ জন খামারি ৮৪ হাজার ১০০ কোরবানির পশুর মধ্যে গরু ২৮ হাজার ২৪৯ টি, মহিষ ৬৮৭, ছাগল ৫০ হাজার ৬১০ ও ৫ হাজার ৫৪৬ টি ভেড়া সামনের ঈদুল আযহার কোরবানির জন্য প্রস্তুত করছেন। এসব পশুর বাজারমূল্য ধরা হয়েছে প্রায় ৫০০ কোটি টাকা।

উপজেলার খুবজিপুর এলাকার খামারি তানজির রহমান তনু বলেন, তিনি আসন্ন কোরবানির জন্যে ১৬টি গরু প্রস্তুত করছেন। বাজারে চাউলের চেয়ে গবাদি পশুর খাদ্যের দাম বেশী। এছাড়া লেবারসহ অন্যান্য খামার ব্যবস্থাপনার খরচ অস্বাভাবিক বেড়ে গেছে। বর্তমানে গরুর বাজারমূল্য মোটামুটি, আশা করছি আরও বাড়বে। তবে বাজারমূল্য কমে গেলে লোকসান গুনতে হবে।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. আলমগীর হোসেন বলেন, কোরবানির দিন এগিয়ে আসার সাথে সাথে বানিজ্যিক খামার ও পশুর সংখ্যাও বাড়বে। বাজারে সব ধরনের গো খাদ্যের দাম বেড়েছে। তাই কৃষক ও খামারিদের গবাদি পশুকে কাঁচা ঘাস খাওয়ানোর ওপড় জোড় দিতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। গো খাদ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় কোরবানির পশুর দামও বাড়বে বলে তিনি আশা করেন।


আরও খবর