আজঃ বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭ ছাত্রকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মিয়ানমার

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মিয়ানমারের জান্তার বিরুদ্ধে ফের গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, চলতি সপ্তাহে অন্তত সাতজন ছাত্রকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে মিয়ানমারের জান্তা। খবর এনডিটিভির।

তবে এই অভিযোগের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি মিয়ানমারের জান্তার এক মুখমাত্র। জাতিসংঘের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, মিয়ানমার সেনাবাহিনী বিরোধীদের দমন করতে মৃত্যুদণ্ডকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনার ভলকার তুর্ক এক বিবৃতিতে জানান, গত বুধবার সামরিক আদালত অন্তত সাতজন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন। দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, চলতি বছরের এপ্রিলে ইয়ানগনভিত্তিক শিক্ষার্থীদের গ্রপ্তার করা হয়। তাদের ব্যাংকে গোলাগুলির সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয়। 

দাগন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ইউনিয়ন এক বিবৃতিতে বলেছে, শিক্ষার্থীদের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া সামরিক বাহিনীর প্রতিশোধমূলক কাজ।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার দেশটিতে আরও চার তরুণ অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে-এমন খবরের তদন্ত করছে জাতিসংঘ।

২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে নেয় দেশটির সেনাবাহিনী। এরপর থেকে দেশটিতে সংঘাত বেড়েই চলেছে।


আরও খবর



কোটা নিয়ে আপিল বিভাগে শুনানি রোববার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

কোটা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চের শুনানি আগামী রোববার (২১ জুলাই) অনুষ্ঠিত হবে। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সন্ধ্যায় বিশেষ চেম্বার আদালত এই আদেশ দেন।

এর আগে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক দুপুরে জানিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আগামী ৭ আগস্ট ২০২৪ সালে যে মামলাটার শুনানি হওয়ার কথা ছিল সেই শুনানি এগিয়ে আনার জন্য ব্যবস্থা নিতে। আমি সেই মর্মে বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেলকে নির্দেশ দিয়েছি যে, আগামী রোববার বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালতের আপিল বিভাগে আবেদন করবেন যাতে মামলার শুনানির তারিখ তারা এগিয়ে আনেন।

পরে অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, কোটা বাতিল চেয়ে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানি করতে সরকারের পক্ষ থেকে আমাকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আমরা রোববার (২১ জুলাই) সকালেই আপিল বিভাগে লিভ টু আপিল দ্রুত শুনানির জন্য মেনশন করব। আশা করছি, জনগুরুত্ব বিবেচনায় আদালত আমাদের আবেদন গ্রহণ করবেন। শুনানিতে আমরা হাইকোর্টের রায় বাতিল চাইব।


আরও খবর
আন্দালিব রহমান পার্থ ৫ দিনের রিমান্ডে

বৃহস্পতিবার ২৫ জুলাই ২০২৪




আজ নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ ১৮ জুলাই আশা ও ঐক্যের আরেক নাম নেলসন ম্যান্ডেলার জন্মদিন। তিনি সর্বকালের শ্রেষ্ঠ নেতাদের একজন। নেলসন ম্যান্ডেলা তার জীবনের দীর্ঘ ২৭ বছর কাটিয়েছেন কারাগারে। পাড়ি দিয়েছেন হাজারো ঝড়-ঝঞ্ঝা।

১৯৬২ সালে ম্যান্ডেলাকে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদী সরকার গ্রেপ্তার করে। ২৭ বছর কারাগারের জীবনে ১৮ বছরই ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার কুখ্যাত রোবেন দ্বীপের কারাগারে।

প্রায় তিন দশক পর ১৯৯০ সালের ১১ ফেব্রুয়ারিতে কারাগার থেকে মুক্ত পান তিনি। পরে ১৯৯৪ সালের এই দিনে দক্ষিণ আফ্রিকার গণতান্ত্রিক নির্বাচনে প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন এই অবিসংবাদিত নেতা। ন্যায়ের প্রতি অসামান্য অবদান রাখা এই নেতার আজ জন্মদিন।

বর্ণবাদবিরোধী অবিসংবাদিত এই নেতা ১৯১৮ সালের ১৮ জুলাই দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। ২০০৯ সালে এই বিশেষ দিনকে আন্তর্জাতিক নেলসন ম্যান্ডেলা দিবস হিসেবেও ঘোষণা করে জাতিসংঘ।

এছাড়া একই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ইংরেজ দার্শনিক ও স্থপতি রবার্ট হুক। ১৬৬০ সালে বিজ্ঞানী হুক পদার্থের স্থিতিস্থাপকতার সূত্র আবিষ্কার করেন। এটি হুকের সূত্র নামে পরিচিত।

২০১৩ সালের ৫ ডিসেম্বর গোটা দুনিয়ার কোটি কোটি ভক্তকে ছেড়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান এ কিংবদন্তী। এ সময় তার বয়স ছিল ৯৫।


আরও খবর



উত্তরায় গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

কমপ্লিট শাটডাউনের অংশ হিসেবে রাজধানীর উত্তরার বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করছেন কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ সময় পুলিশের গুলিতে নর্দান বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

সংঘর্ষে আরও শতাধিক শিক্ষার্থী হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে। যার মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কা জনক বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ মেডিক্যালের চিকিৎসক ডা. রুকনুজ্জামান। তবে, নিহত শিক্ষার্থীদের নাম এখনো জানা যায়নি।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে রাজধানীর উত্তরায় পুলিশ ও র‍্যাবের সংঘর্ষ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে এ সংঘর্ষ শুরু হয়। এ ঘটনায় ঢাকাময়মনসিংহ সড়কের উত্তরা অংশে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

সংঘর্ষের সময় সাউন্ড গ্রেনেড ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ ও র‍্যাব। আন্দোলনকারীরা হাউজ বিল্ডিং থেকে রাজলক্ষী মোড় পর্যন্ত সড়কে অবস্থান করছেন।

এর আগে, বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্কুলের শিক্ষার্থীরা উত্তরার জমজম টাওয়ারের সামনে জড়ো হন। পরে তারা মিছিল নিয়ে মূল সড়কে উঠতে চাইলে পুলিশ ও র‍্যাব তাদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করে। পরে সংঘর্ষ শুরু হয়।


আরও খবর



ফিরিঙ্গি বাজার ওয়ার্ডে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা প্রদান

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

Image

চট্টগ্রাম নগরীর ৩৩ নং ফিরিঙ্গি বাজার ওয়ার্ডে কাউন্সিলর আলহাজ্ব হাসান মুরাদ বিপ্লব কতৃক এসএসসি-২০২৪ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থী ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক/শিক্ষিকাবৃন্দদের নিয়ে এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় নগরীর আলকরনস্থ ড্রীমল্যান্ড কমিউনিটি সেন্টারে রিনিক মুনের সঞ্চালনায় ও আলহাজ্ব হাসান মুরাদ বিপ্লবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন, সাধারণ সম্পাদক, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ। সংবর্ধনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিদারুল আলম দিদার, নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান, পটিয়া উপজেলা পরিষদ এবং অহিদ সিরাজ চৌধুরী স্বপন, সিআইপি পরিচালক, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা। এসময় অনুষ্ঠানে ২০২জন শিক্ষার্থী ও ১৯ জন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক/শিক্ষিকাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ক্ষুদে শীল্পিদের আয়োজনে মনোজ্ঞ নৃত্য পরিবেশিত হয়। তারপর অতিথিদের ফুল দিয়ে বরনের মধ্য দিয়ে উত্তরীয় প্রদান করা হয় এবং আ.জ.ম নাছিরকে বিশেষ প্রেজেন্টেশন প্রদান করা হয়। এছাড়াও স্বপ্নযাত্রী নামক ম্যাগাজিনের মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

এসময় বক্তারা বলেন, সরকারকে বিপাকে ফেলতে সর্বদা একটি অংশ বিরোধীতায় লিপ্ত। মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি গুলো বারবার মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে তাই আমাদের সচেতন থাকতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক সাবেক মেয়র আ.জ.ম নাছির বলেন, চট্টগ্রামে আমার দেখা এটি একটি ব্যাতিক্রমি আয়োজন। একই মঞ্চে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের সম্মাননা দেওয়া হচ্ছে। পরিবারের পর শিক্ষকরাই হলেন আমাদের সন্তানদের অবিভাবক। সন্তানকে ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে শিক্ষকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। তাই রাজনীতিতে আসতে গেলে ছাত্রদের পরিবার ও শিক্ষক কতৃক অর্জিত জ্ঞান কাজে লাগাতে হবে। তবেই ভালো মানুষ হওয়া যাবে এবং রাষ্ট্র যোগ্য নেতৃত্ব খুঁজে পাবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তোমরাই আমাদের সম্পদ। তোমরা ভালো কাজ করলে বাবা মায়ের বুক গর্বে ভরে উঠবে।

সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে পটিয়ার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান দিদারুল আলম বলেন, কোন পেশাই খারাপ না, রাজনীতি হলো মানবসেবা। রাজনীতিতে নিজের স্বার্থের কথা ভাবা যাবেনা, তবেই রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত হওয়া যায়। আমরা কেউ বিপদগামী হইনি। আমাদের উদ্দেশ্য সৎ ছিলো। তাই আমরা আজও সম্মানিত হয়ে আসছি। আমাদের সকলের সামাজিক দায়বদ্ধতা থাকা উচিত। তবেই দেশ এগিয়ে যাবে।

অহিদ সিরাজ চৌধুরী সিআইপি বলেন, তারুণ্যের অবক্ষয় নয়, বিকাশ চাই; তারই আলোকে আজকের অনুষ্ঠান। ছাত্র শিক্ষক আর অভিভাবকের পাশাপাশি এভাবে জনপ্রতিনিধিদের এগিয়ে আসতে হবে। তবেই দেশ এগিয়ে যাবে। রাজনীতি করেও প্রতিষ্ঠিত হওয়া যায়। আমি ছাত্রদের বার্তা দিতে চাই, যারা ছোট বেলা থেকে রাজনীতি করে আসছে তারা আজ রাষ্ট্রের বিভিন্ন পর্যায়ে জনপ্রতিনিধি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত। আমরা সকলে আজ প্রতিষ্ঠিত, আলোকিত বাংলাদেশ বিনির্মানে তাই ছাত্রদেরও রাজনীতিতে এগিয়ে আসতে হবে।

চসিক সংরক্ষিত আসন (৩৩, ৩৪, ৩৫) মহিলা কাউন্সিলর বেবী দোভাষ বলেন, আমি এ অনুষ্ঠানে এসে অত্যন্ত আনন্দিত। আমার ছোট ভাই ওয়ার্ড কাউন্সিলর বিপ্লবের এই মহৎ উদ্যোগের জন্য তাকে সাধুবাদ জানাই। সে এলাকায় সকল ধর্মীয় অনুষ্ঠানেও সহযোগিতা করে থাকেন। তবে শিক্ষার্থীদের উন্নতির পিছনে শিক্ষকদের ভূমিকা যেমন রয়েছে, অভিভাবকদের পরিশ্রমও কম নয়। যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা বিদেশে অনেক পেশায় নিয়োজিত রয়েছে। তবে পেশা হিসেবে রাজনীতি এখন আর সুফলযোগ্য নয়, সেজন্য পড়ালেখাও দরকার।

সভাপতির বক্তব্যে ফিরিঙ্গীবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাসার মুরাদ বিপ্লব বলেন, যে সকল শিক্ষকরা এতদিন পাঠদান করে এসেছেন, যেসব শিক্ষার্থীরা ভালো ফলাফল অর্জন করেছে এই সম্মাননাটুকু তাদের আগামীতে উচ্চশিক্ষায় অনুপ্রাণিত করবে। তারা আগামীতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেয়া ২০৪১ সালের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার পিছনে অবদান রাখবে। যারা আমাদের দীর্ঘদিন ধরে পাঠদান করাচ্ছেন এবং শিক্ষার্থী ভালো ফলাফল অর্জন করেছেন। সেসব শিক্ষার্থীদের এই সম্মাননা দেয়াটুকু আগামীর উচ্চশিক্ষায় অনুপ্রাণিত করবে। আমার প্রাণপ্রিয় শিক্ষার্থীরা ১০টি বছর শ্রম দিয়ে ভাল ফলাফল করেছে, তাদের এই সম্মানটুকু অন্যদেরও ভালো ফলাফল পেতে আগ্রহী করবে। মেধাবীরা কাছে অনুরোধ থাকবে, যারা মেধাবী শিক্ষার্থীরা যাতে পিতা-মাতা কোনদিন অবহেলা না করে। আপনারা আগামীতে দুর্ণীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেয়া ২০৪১ সালের স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার পিছনে আপনার অবদান রাখবেন বলে আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, আ.জ.ম নাছির উদ্দীন আমাদের অভিভাবক। তিনি মেয়র থাকাকালীন নগরীর সকল স্কুল ও কলেজে উন্নতির প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন। সম্প্রতি চসিকের স্মার্ট এলইডি লাইট চুক্তি সম্পন্ন হলো, সেটাও নাছির ভাইয়ের চসিক মেয়র থাকাকালীন প্রকল্প ছিল। সকল সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও তিনি নগরীকে উন্নয়নে আলোকিত করেছিলেন। এখন তাঁরই আর্দশ ও নীতি-নৈতিকতাগুলো অনুসরণ করে থাকি।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা প্রাপ্ত শিক্ষক-শিক্ষিকারা হলেন- আলকরণ নূর আহমেদ সিটি কর্পোরেশন বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের শাহদাৎ হোসেন, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের রতন কুমার চক্রবর্তী, পাথরঘাটা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের খুরশীদা পারভিন চৌধুরী, এয়াকুব আলী দোভাষ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অঞ্চল চৌধুরী, নিপা চৌধুরী, ফিরিঙ্গিবাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আব্দুল লতিফ, মনিশা দাসগুপ্ত, প্রীতি চৌধুরী, মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজের মিলন কান্তি চৌধুরী, সেন্ট ম্যারিস স্কুলের হোসনে আক্তার,জে এম সেন স্কুল এন্ড কলেজের রোকেয়া বেগম,জামান চৌধুরী,নাজনীন বেগম,রত্না দাস,দেবেশ চন্দ্র দাস, বান্ডেল বলিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আন্না চক্রবর্তী, দীপ্তি চক্রবর্তী ও আলকরণ সুলতান আহমেদ দেওয়ান বিদ্যালয়ের কবিতা রানী নাথ।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর



ত্রিশালে কালের সাক্ষী ৫'শত বছরের পুরনো শিমুল গাছ

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ৩০ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

Image

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার সাখুয়া ইউনিয়নের বালির বাজার এলাকার অতি নিকটে চিনু মোড়লের বাড়ির পাশেই একটি বিশাল আকৃতির পুরনো শিমুল গাছ যা কালের সাক্ষী হয়ে ৫শত বছর ধরে দাঁড়িয়ে রয়েছে এখনও। এলাকার মানুষের দাবি গাছটির বয়স অন্তত পাঁচশত বছর হবে। এই পুরনো শিমুল গাছটি নিয়ে জড়িয়ে আছে নানা গল্প কাহিনী।

সৌন্দর্যমন্ডিত প্রাচীণ এই গাছটিকে নিয়ে রয়েছে নানা গল্পকাহিনী। গাছের গোড়ায় দাঁড়ালে নিজেকে উচ্চতার দিক থেকে অতিক্ষুদ্র মনে হয়। আবার কখনও বা মনে হয় পাহাড়ের পাদদেশে দাঁড়িয়ে থাকার অনুভব। এর বিশালতায় দর্শনার্থীদের ভরে যায় মন। আলোচিত এই গাছটি দেখতে দূর থেকেও ছুটে আসেন অনেকে।

পুরাতন এ শিমুল গাছজুড়ে যখন টকটকে লাল শিমুল ফুল ফোটে তখন এক অপরুপ দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। এই গাছটির নিচে অনেকেই মনের বাসনা পূরণের জন্য মানত হিসাবে গরু খাসি, মোরগ, জবাই করে রান্নাবান্না করে। গাছ দেখার জন্য আগত ভক্তদের উদ্দেশ্য একটাই যেন তাদের মনের বাসনা পূর্ণ হয়।

স্থানীয়রা অনেকেই জানান, প্রায় সময় এখানে বিভিন্ন এলাকার লোকজন গাছটি একনজর দেখার জন্য এসে ভিড় করে থাকেন। তারা মানত করেন, স্থানীয়দের মাঝে মোরগ-পোলাও মিষ্টি বিতরণ করেন। তারা মনে করে এ গাছে অলৌকিক কোন কিছু আছে। তাই মনের বাসনা পুরণ করার জন্য দূর থেকে ছুটে আসেন।

স্থানীয় বাসিন্দা মোকছেদ আলী জানান, এই পুরাতন শিমুল গাছটি কাটার জন্য অনেকেই চেষ্টা করেছে কিন্তু কোন অবস্থাতেই কাটা যায় না। যে গাছটি কাটতে যায় সে অসুস্থ হয়ে যায়। শুনেছি অনেক আগে এ গাছ কাটতে এসে নাক, মুখ দিয়ে রক্ত এসেও মারা গিয়েছে একজন। এটি আমাদের এলাকার পুরাতন একটি গাছ। এটি আমাদের ঐতিহ্য।এভাবেই রুপকথার গল্পের মতো কথাগুলো বললেন মোকছেদ আলী। তার কথাগুলো হাস্যকর মনে হলেও এখানকার মানুষজন তাই বিশ্বাস করেন।

জমির মালিক ইউসুফ আলী জানান, এই বিশাল আকৃতির শিমুল গাছটির বয়স কমপক্ষে হলেও পাঁচশত বছর হবে। পূর্বপুরুষের মুখে শুনে এসেছি এই প্রবীণ শিমুল গাছের কথা। এছাড়াও এই গাছটি নিয়ে অনেক অলৌকিক ঘটনা ঘটেছে। তাই মানুষ এ গাছে মানত পূরণ করতে আসে। প্রতিবছর ফাল্গুন মাস এলে গাছে শিমুল ফুলের সমারোহ সৌন্দর্য বৃদ্ধ করে এই প্রবীণ গাছটি। ওই সময় এই গাছটি ফুলে লালে লাল হয়ে যায়। গাছের ফুলে ফুলে মৌমাছি, পাখিদের আনাগোনা বেড়ে যায়। এই শিমুল বৃক্ষটি ত্রিশালের ঐতিহ্য ধরে রেখেছে এমনটাই মনে করেন আগতরা।


আরও খবর