আজঃ বৃহস্পতিবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি ও কসমেটিকস জব্দ

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার ভুইঘর সংলগ্ন এলাকায় শুল্ক ফাঁকি দিয়ে আনা বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি কাপড় ও কসমেটিকস জব্দ করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।

মঙ্গলবার কোস্ট গার্ড সদর দপ্তরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ তকি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সোমবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে কোস্ট গার্ডের ঢাকা জোনের পাগলা স্টেশনের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট রুহান মনজুরের নেতৃত্বে ওই এলাকায় অভিযান চালানো হয়।

অভিযানকালে সিলেট থেকে ঢাকাগামী বালু বোঝাই ১টি ট্রাকের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে কাঁচপুর ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় কোস্টগার্ড সদস্যরা থামার সংকেত দেন। কিন্তু কোস্ট গার্ডের উপস্থিতি বুঝতে পেরে চালক সংকেত অমান্য করে সামনের দিকে এগিয়ে যান । পরে কোস্টগার্ডের সদস্যরা ট্রাকটিকে ধাওয়া করে এবং ভুইঘর সংলগ্ন এলাকায় থামায়।

কিন্তু ট্রাক চালক ও অবৈধ ব্যবসায়ী দ্রুত পালিয়ে যান। পরে ট্রাকটি তল্লাশি করে বালুর নিচে অভিনব কায়দায় লুকানো অবস্থায় শুল্ক ফাঁকি দিয়ে ভারত থেকে অবৈধভাবে আনা ২ হাজার ৬০৮পিস শাড়ি, ১ হাজার ৩৪৩ পিস চাদর ও ১২ হাজার ৪৮ পিস স্কিন ব্রাইট ক্রিম জব্দ করা হয়েছে।

মুনিফ তকি আরও বলেন, জব্দকৃত শাড়ি-কাপড়, কসমেটিকস সামগ্রী ও ট্রাকের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ফতুল্লা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।


আরও খবর



মেট্রোরেলের সর্বনিম্ন ভাড়া ১০ টাকা করার দাবি

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

মেট্রোরেলে হাফ পাসের দাবি জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে সর্বনিম্ন ভাড়া ১০ টাকা করাসহ স্টুডেন্ট পাসের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা।

আজ রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর ফার্মগেট মেট্রোরেল স্টেশনের নিচে পূর্বঘোষণা অনুসারে মানববন্ধন আয়োজন করা হয়। পরে পুলিশি বাধার মুখে বিক্ষোভ মিছিল করে শাহবাগে জাদুঘরের সামনে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলে, আমরা তো চাকবিজীবী নই। শিক্ষার্থীদের অর্থনৈতিক অবস্থা, চাহিদা ও সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনায় রেখে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কম্পানি লিমিটেড কর্তৃপক্ষকে।

মেট্রোরেলে হাফ পাস চাই আন্দোলনের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র মুহাম্মদ প্রিন্স বলেন, মেট্রোরেল আইন ২০১৫-এর ১৮(২) ধারায় পরিচালনা ব্যয় ও জনসাধারণের আর্থিক সামর্থ্য বিবেচনায় ভাড়া নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে। ছাড়া বিধিমালার ২২(খ) ধারায় গণপরিবহনের ভাড়া বিবেচনায় নেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

অথচ ঢাকা মেট্রোর ২০ কিলোমিটারের ভাড়া ১০০ টাকা করা হয়েছে। ফলে মেট্রো রেল সাধারণ শিক্ষার্থীদের নাগালের বাইরে চলে গেছে।

মেট্রোরেলে হাফ পাস চাই আন্দোলনের যুগ্ম সমন্বয়ক আশরাফুল ইসলাম নির্ঝর বলেন, মেট্রোরেল পুরোপুরি চালু হলেও শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালু করা হয়নি। শিক্ষার্থীদের প্রতি রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে শুধু বাংলাদেশে নয়, প্রতিবেশী ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গণপরিবহনে হাফ পাস পদ্ধতি চালু রয়েছে।


আরও খবর



কুমিল্লায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রবিউল বাশার খান, কুমিল্লা

Image

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কুমিল্লার মেঘনা উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন। তাদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজ সোমবার বিকেলে মেঘনার চালিভাঙ্গা গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। নিহত কামরুল ইসলাম (৪০) চালিভাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা।

জানা যায়, আওয়ামী লীগ নেতা চালিভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির ও জেলা পরিষদের সদস্য আবদুল কাইয়ুমের পক্ষের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলছে। এর জেরে আজ বিকেলে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এতে কাইয়ুমের পক্ষের কামরুল ইসলাম মারা যান। এ ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, এলাকায় আওয়ামী লীগের দুটি পক্ষ করেছে। উভয়পক্ষের সংঘর্ষে গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর চালিভাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবিরের ছোট ভাই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নিজাম টেঁটাবিদ্ধ হয়ে মারা যান।

মেঘনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আজ বিকেলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ ঘটনায় শুনেছি কামরুল ইসলাম নামের একজন মারা গেছেন। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


আরও খবর



নিষিদ্ধ পলিথিন ব্যবহার, আড়াই হাজার মামলা

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, নিষিদ্ধ ঘোষিত পলিথিন উৎপাদন ও ব্যবহারের অপরাধে চার বছরে আড়াই হাজার মামলা হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) জাতীয় সংসদে এমপি নূর উদ্দিন চৌধুরী নয়নের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত মোট দুই হাজার ৫১৬টি অভিযান পরিচালনা করে চার হাজার ২০৭টি মামলায় ছয় কোটি ১৭ লাখ ৮৭ হাজার ২৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১৭০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং দুই হাজার ৭১ দশমিক ৩৭ মেট্রিক টন পলিথিন, দানা ও কাঁচামাল জব্দ করা হয়েছে। এ ছাড়া ১৬টি নিয়মিত মামলা করা হয়েছে। জনসচেতনতা বাড়াতে নানাবিধ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে পরিবেশের ওপর প্লাস্টিক পণ্যের বিরূপ প্রভাব নিয়ন্ত্রণে প্লাস্টিক পণ্যের পরিবর্তে পরিবেশবান্ধব পচনশীল প্লাস্টিকের ব্যবহার প্রচলনের বিষয়টি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। ইতোমধ্যে সরকার কর্তৃক কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিধিমালা-২০২১ প্রণয়ন করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, কঠিন বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিধিমালা-২০২১-এ মৌলনীতি হিসেবে ফাইভ-আর (রিফিউস, রিডিউস, রিইউস, রিসাইকেল, রিকোভারি) পলিসি নেওয়া হয়েছে। সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধে হাইকোর্টের আদেশের প্রেক্ষিতে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় ২০২১ সালের বিগত ২১ জুন উপকূলীয় অঞ্চলের ১২ জেলার ৪০টি উপজেলাকে কোস্টাল এরিয়া হিসেবে চিহ্নিত করে ওই এলাকায় সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধে তিন বছর মেয়াদি কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। পলিথিনের ক্ষতিকর দিক বিবেচনায় সরকার ইতোমধ্যে পরিবেশ বিনষ্টকারী পলিথিনের উৎপাদন ও বিপণন কার্যের এবং ব্যবহার বন্ধে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন-১৯৯৫-এ বিধি নিষেধ আরোপ করেছে।


আরও খবর
দেশে ৩০ শতাংশ খাদ্য অপচয় হয়: কৃষিমন্ত্রী

বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আজ শুরু হচ্ছে বাঙালির প্রাণের বইমেলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আজ (১ ফেব্রুয়ারি) থেকে শুরু হচ্ছে বাঙালির প্রাণের বইমেলা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেলা ৩টায় মাসব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করবেন। এবারের বইমেলায় থাকছে ৬৩৫টি প্রতিষ্ঠানের মোট ৯৩৭টি স্টল।

এবারের মেলার প্রতিপাদ্য পড়ো বই, গড়ো দেশ: বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ। কোনো তৃতীয় মাধ্যম ছাড়াই এবারের বইমেলার সার্বিক দায়িত্বে আছে বাংলা একাডেমি।

বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বাংলা একাডেমি প্রকাশিত কালেক্টেড ওয়ার্কস অব শেখ মুজিবুর রহমান: ভলিউম-২ সহ কয়েকটি গ্রন্থ-উন্মোচন করবেন। সেই সঙ্গে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার-২০২৩ বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ করবেন।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে প্রায় সাড়ে ১১ লাখ বর্গফুট এলাকাজুড়ে হচ্ছে বইমেলা। বাংলা একাডেমি মাঠে ১২০টি প্রতিষ্ঠানকে ১৭৩টি এবং সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ৫১৫টি প্রতিষ্ঠানকে ৭৬৪টি স্টল বরাদ্দ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ বছর প্যাভিলিয়ন থাকছে ৩৭টি। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে ১টি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে ৩৬টি।

মেলায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মাসব্যাপী সেমিনারের পাশাপাশি শিশু-কিশোরদের জন্য ছবি আঁকা, সংগীত ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা থাকবে। প্রতি শুক্র ও শনিবার মেলায় বেলা ১১টা থেকে ১টা পর্যন্ত শিশুপ্রহর থাকবে। প্রথমবারের মতো শিক্ষার্থীদের জন্য ৫ শতাংশ ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। পরিচয়পত্র দেখালেই মিলবে এ সুযোগ।

প্রতি কর্মদিবসে বইমেলা বিকেল ৩টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এবং সরকারি ছুটির দিন বেলা ১১টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে এবং দুপুরের খাবার ও নামাজের জন্য এক ঘণ্টা বিরতি থাকবে মেলায়।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কোথায় কী থাকবে : মেলার মূল মঞ্চ থাকবে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে। বইয়ের মোড়ক উন্মোচন ও লেখক বলছি মঞ্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যান প্রাঙ্গণে স্থাপন করা হয়েছে। গত বছরের মতো রমনা কালী মন্দির গেটে প্রবেশের ঠিক ডান দিকে বড় পরিসরে রাখা হয়েছে শিশুচত্বর। লিটল ম্যাগাজিন চত্বর স্থানান্তরিত হয়েছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের উন্মুক্ত মঞ্চের কাছাকাছি গাছতলায়। সেখানে প্রায় ১৭০টি লিটলম্যাগকে স্টল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অন্যান্যবারের মতো খাবারের স্টলগুলো এলোমেলো না রেখে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশন অংশে বিন্যস্ত করা হয়েছে। নামাজের স্থান এবং ওয়াশরুম থাকবে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনের পাশে।

মেলার প্রবেশপথ : এবারের মেলায় প্রবেশদ্বার মোট চারটি। মেট্রোরেল স্টেশনের অবস্থানগত কারণে গতবারের মূল প্রবেশপথ এবার একটু সরিয়ে বাংলা একাডেমির মূল প্রবেশপথের উলটো দিকে অর্থাৎ মন্দির গেটটি মূল প্রবেশপথ হিসেবে ব্যবহার হবে। এছাড়া টিএসসি, দোয়েল চত্বর ও ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটের (আইইবি) দিকেসহ মোট ৩টি প্রবেশপথ থাকবে।

এককভাবে মেলার আয়োজক বাংলা একাডেমি : সমালোচনা এড়াতে এ বছর বাংলা একাডেমি এককভাবে মেলার সব আয়োজন সম্পন্ন করেছে। গ্রন্থমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড. কে এম মুজাহিদুল ইসলাম বলেন, আগের বছরগুলোতে কিছু ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি মেলার আয়োজনে জড়িত ছিল। যার ফলে গত বছর কিছুটা সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। এ বছর একাডেমি সব বাস্তবায়ন করছে।


আরও খবর



জীবন নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত পরিণীতি চোপড়ার

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

গেল বছরের সেপ্টেম্বর মাসে বিয়ে করেছেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া। বিয়ের ৪ মাস না পেরোতেই জীবনের এক নতুন সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি। ক্যারিয়ার নিয়ে এবার ভাবতে শুরু করেছেন তিনি। জীবনের মোড়কে আনতে চাচ্ছেন নতুনত্ব। নতুনভাবে হতে চাইছেন প্রতিষ্ঠিত। ইনস্টাগ্রামে সেই ঝলকও দেখা গেছে।

একজন সঙ্গীতশিল্পী হিসেবে নিজেকে জানান দিতে চান তিনি। হতে চান প্রতিষ্ঠিত। এ নিয়ে কর্মযজ্ঞও শুরু করে দিয়েছেন তিনি। তার স্টুডিওর নির্মাণ কাজও প্রায় শেষের পথে।

স্টুডিও থেকে ছবি পোস্ট করে পরিণীতি লেখেন, গান আমার জীবনের সবচেয়ে ভালোবাসার জায়গা। বিশ্বের বহু গায়ককে স্টেজে পারফর্ম করতে দেখেছি। এ বার আমিও সেই সঙ্গীত জগতের অংশ হতে চলেছি। আমি যেমন উত্তেজিত, তেমনই চিন্তিত জীবনের এক নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছি।

জানা যায়, পরিণীতি চোপড়া, শ্রদ্ধা কাপুর, আলিয়া ভাট, মেধা শংকরসহ বলিউডপাড়ার অনেক নায়িকাই সঙ্গীতের তালিম নিয়েছেন এ কথা শোনা যায়। আলিয়া যদিও পুরোপুরি মন দিয়েছেন নিজের অভিনয়ে। একটি ছবিতে অবশ্য গানও গেয়েছিলেন। অন্য দিকে শ্রদ্ধার গানও খুব একটা শোনা যায় না। টুয়েলভথ ফেইল দিয়ে ব্যাপক আলোচনায় আসা মেধা শংকর তো তার সুর দিয়ে ভক্তদের মায়ায় বেঁধে ফেলেছেন।

পরিণীতিও অভিনয়ের পাশাপাশি গানের চর্চাও চালিয়ে যাচ্ছেন সমানতালে। বোন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াই কি তার অনুপ্রেরণা? তেমনটা হতেই পারে। কারণ, খুব শিগগির নিজস্ব গানের অ্যালবাম তৈরি করতে চলেছেন নায়িকা, সে কথা ঘোষণা করেছেন অভিনেত্রী।

পরিণীতির বোন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও গানে পারদর্শী। তিনিও বেশ কিছু গানের পারফরম্যান্স করেছেন বিদেশে। তার নিজস্ব অ্যালবামও রয়েছে গানের।

প্রসঙ্গত, সেপ্টেম্বর মাসের শেষেই মহা ধুমধাম করে রাজনীতিক রাঘব চাড্ডাকে বিয়ে করেন পরিণীতি। বিয়ের পর বড় পর্দায় তাকে সেভাবে দেখা না গেলেও গানসহ নানা ধরনের কাজে আপাতত ব্যস্ত আছেন তিনি।

নিউজ ট্যাগ: পরিণীতি চোপড়া

আরও খবর
আজ গোয়াতে চার হাত এক হবে রাকুল-জ্যাকির!

বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

জয়ার ইরান জয়

বুধবার ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪