আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেন জামালপুর থেকে ছাড়ার দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
জামালপুর প্রতিনিধি

Image

ময়মনসিংহ থেকে চট্টগ্রামগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনটি জামালপুর থেকে চালুর সরকারি প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের দাবিতে সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন জামালপুর নাগরিক কমিটি ও সম্মিলিত সমাজিক আন্দোলন জামালপুর জেলা শাখা।

বুধবার (১৫ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জামালপুর রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মে এ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সাংবাদিক ও মানববাধিকারকর্মী জাহাঙ্গীর সেলিমের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক কমিটির সভাপতি অজয় কুমার পাল, সহ-সভাপতি অধ্যাপক কায়েদুজ্জামান, পরিবেশ আন্দোলন জামালপুর জেলা শাখার সভাপতি এনামুল হক রতন, সম্প্রীতি বাংলাদেশ জামালপুর জেলা শাখার সভাপতি তুষার মল্লিক, জামালপুর প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ কাফি পারভেজ, সিনিয়র সাংবাদিক মোস্তফা মনজু, জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ফজলে এলাহি মাকাম, নাট্যনীড়ের সাধারণ সম্পাদক সাগর মুখার্জি প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, কয়েক বছর আগে ময়মনসিংহ থেকে চট্টগ্রামগামী বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনটি চালু হয়। এরপর থেকেই জামালপুরের সাধারণ জনগণ এই ট্রেনটি জামালপুর থেকে ছাড়ার জন্য দাবি তুলে আসছিলো। এই ট্রেন জামালপুর থেকে চালু হলে হাজারো মানুষ উপকৃত হবে। সম্প্রতি বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেন জামালপুর থেকে ছাড়ার প্রতিশ্রুতি দেন রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এরপর থেকেই ময়মনসিংহের একটি স্বার্থান্বেষী মহল এর বিরোধিতা করে আন্দোলন করে আসছে। 

বক্তারা তাদের এই আন্দোলনের তীব্র নিন্দা জানান এবং অতি দ্রুত বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনটি জামালপুর থেকে ছাড়ার দাবি জানান। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনে যাবার হুশিয়ারি দেন তারা।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




শেষ মুহূর্তে বাদ পড়লেন সাই পল্লবী, সীতা হবেন জাহ্নবী কাপুর

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

ঘোষণার পর থেকে আলোচনায় ভারতীয় মহাকাব্য রামায়ণ নিয়ে বলিউড সিনেমা রামায়ণ। অবশেষে আগামী মাসে শুরু হচ্ছে সিনেমার শুটিং। নীতীশ তিওয়ারির পরিচালনায় এতে রাম চরিত্রে রণবীর কাপুর ও সীতার চরিত্রে সাই পল্লবীর অভিনয়ের কথা। শেষ পর্যন্ত রণবীর টিকে গেলেও শুটিং শুরুর এক মাস আগে পরিবর্তন হয়ে গেল নায়িকা। সাই পল্লবী নয়, শোনা যাচ্ছে সীতা হবেন শ্রীদেবীকন্যা জাহ্নবী কাপুর; এমনটাই জানাচ্ছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম পিঙ্কভিলা।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, নীতীশের পরিচালনায় বাওয়াল সিনেমায় অভিনয় করেছেন জাহ্নবী। সেখানেই নাকি তাঁকে পছন্দ হয়ে গিয়েছিল পরিচালকের। তাঁর মনে হয়েছিল, সীতার চরিত্রে জাহ্নবীকেই সবচেয়ে ভালো মানাবে। সে কারণেই সাই পল্লবীকে বাদ দিয়ে জাহ্নবীকে নেওয়া হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো অফিশিয়াল বক্তব্য পাওয়া যায়নি। সংবাদমাধ্যমটি আরও জানায়, সাই পল্লবীর আগে সীতা চরিত্রের জন্য যোগাযোগ করা হয়েছিল আলিয়া ভাটের সঙ্গে। তিনি রাজি না হলে সেই প্রস্তাব যায় সাই পল্লবীর কাছে। 

আরও পড়ুন>> পরিচালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ফরাসি অভিনেত্রীর

সীতা বদলে গেলেও বাকি চরিত্রগুলোয় কোনো পরিবর্তন হয়নি। রাবণের ভূমিকায় দেখা যাবে কেজিএফ তারকা যশকে। বিভীষণের চরিত্রে অভিনয় করবেন বিজয় সেতুপতি। আর হনুমান হচ্ছেন সানি দেওল।

জানা গেছে, মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে শুরু হবে রামায়ণের শুটিং। মুম্বাইয়ে বেশির ভাগ শুটিংয়ের পর রামায়ণ টিম যাবে লন্ডনে। রামায়ণের লঙ্কা অংশের চিত্রায়ণ হবে সেখানে। এ সময় রণবীরের সঙ্গে যোগ দেবেন যশ। মোট ১২০ দিন চলবে শুটিং।

শোনা যাচ্ছে, রাম চরিত্রের প্রতি সম্মান রেখে প্রস্তুতিস্বরূপ কিছুদিন ধরে অ্যালকোহল, আমিষ এমনকি মধ্যরাতের পার্টিও ছেড়ে দিয়েছেন রণবীর কাপুর।


আরও খবর
ফের বিয়ে করছেন অনুপম রায়, পাত্রী কে?

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ফিলিপাইনে সোনার খনি ধসে নিহত ৫৪

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ দাভাও দে ওরোর মাকো শহরের কাছে একটি সোনার খনিতে ধসের পর এ পর্যন্ত সেখান থেকে ৫৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও নিখোঁজ রয়েছেন অন্তত ৬৩ জন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি সোনার খনিটিতে ধসে যাওয়া ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন দাভাও দে ওরো প্রদেশ প্রশাসনের কর্মকর্তা এডওয়ার্ড ম্যাকাপিলি।

রয়টার্সকে এডওয়ার্ড ম্যাকাপিলি জানান, সোনার খনিটি ধসের পর থেকে দুর্যোগ মোকাবিলা বিভাগের তিন শর মতো কর্মী উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। গত পাঁচ দিনে ৫৪ জনের মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

কাদা-ধসে পড়া স্তূপের নিচে এখনো ৬৩ জনের মতো আটকা পড়ে আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের বেঁচে থাকার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। তারপরের উদ্ধারকর্মীরা আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছেন।

ওই কর্মকর্তা আরও জানান, ভারী বর্ষণের কারণে কাদায় পুরো খনি ঢেকে গেছে। আরও ভূমিধসের আশঙ্কা করা হচ্ছে। যার ফলে উদ্ধার তৎপরতা বিঘ্ন ঘটছে।

এদিকে, নিখোঁজ তালিকাভুক্ত প্রত্যেককে উদ্ধার না করা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।


আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




উইন্ডোজ ১০ বন্ধ করে দিচ্ছে মাইক্রোসফট!

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক

Image

উইন্ডোজ ১০ সংক্রান্ত সব ধরনের সেবা বন্ধ করে দিচ্ছে মাইক্রোসফট। ইতোমধ্যে তারিখও ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। ২০২৫ সালের ১০ অক্টোবর। এর বদলে আসবে নিউ জেনারেশন উইন্ডোজ। তাহলে ক্রোম আর ব্যবহার করা যাবে না? আপাতত যাবে।

গুগলের পেরেন্ট কোম্পানি অ্যালফাবেট জানিয়েছে, ক্রোমের অটো আপডেটিং ভার্সন ইনস্টল করতে পারবেন ইউজাররা। কোম্পানি জানিয়েছে, ক্রোম ওএস ফ্লেক্স-এ নিয়মিত সিকিউরিটি আপডেট, ডেটা এনক্রিপশনের মতো ফিচার থাকবে। ফলে আপাতত ইউজাররা উইন্ডোজ ১০ সিস্টেম ব্যবহার চালিয়ে যেতে পারবেন।

কিন্তু ২০২৫ সালের ১৪ অক্টোবর থেকে আর উইন্ডোজের এই ভার্সনটি সাপোর্ট করবে না মাইক্রোসফট। সিকিউরিটি আপডেট, বাগ ফিক্স বা অন্যান্য প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদানও বন্ধ করে দেওয়া হবে। ইউজারদের তাই উইন্ডোজ ১১ অপারেটিং সিস্টেম বা অন্য বিকল্প ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে মাইক্রোসফট।

অবশ্য নির্ধারিত সময়ের পরেও ইউজার চাইলে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতে পারবেন। তবে কোনও সিকিউরিটি আপডেট মিলবে না। ফলে সিস্টেমের নিরাপত্তা প্রশ্নের মুখে পড়তে পারে।

ক্যানালিসিস রিসার্চের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উইন্ডোজ ১০-এর সমাপ্তিতে প্রায় ২৪০ মিলিয়ন কম্পিউটার ল্যান্ডফিলে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। কারণ সিকিউরিটি আপডেট ছাড়া ডিভাইসের চাহিদা কম হতে পারে। তবে ওএস সাপোর্ট শেষ হওয়ার পরেও কয়েক বছর উইন্ডোজ ১০ সম্বলিত কম্পিউটার ব্যবহার করা যাবে।

অন্যান্য অপারেটিং সিস্টেমের তুলনায় ক্রোম ওএস-এর জনপ্রিয়তা অনেক কম। চলতি বছরের জানুয়ারিতে গবেষণা সংস্থা স্টেটকাউন্টারের রিপোর্ট অনুযায়ী, সারা বিশ্বের ডেস্কটপ ওএস বাজারের ১.৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে এদের দখলে। উইন্ডোজের প্রায় ৭৩ শতাংশ শেয়ারের তুলনায় অনেক পিছিয়ে এটি। ব্যক্তিগত হোক বা ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে উইন্ডোজের তুলনায় ক্রোম ওএস-এর ব্যবহার কম। লিগ্যাসি উইন্ডোজ এবং প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপ্লিকেশন এর প্রধান কারণ। যদিও গুগল বলেছে, ক্রোম ওএস লিগ্যাসি উইন্ডোজ এবং প্রোডাক্টিভিটি অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের অনুমতি দেবে, যা ডেটা সেন্টার অ্যাপগুলো ডিভাইসে চালাতে সাহায্য করবে।


আরও খবর



বাণিজ্য মেলায় ৪০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ ফেব্রুয়ারী ২০24 | অনলাইন সংস্করণ
অর্থ ও বাণিজ্য ডেস্ক

Image

এবারের বাণিজ্য মেলায় ৪০০ কোটি টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে, যা গতবছরের চেয়ে ১৫ শতাংশ বেশি। মাসব্যাপী ঢাকা আন্তর্জাতিক মেলার সমাপনীতে ৩৯২ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশও পাওয়া গেছে জানিয়েছে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি)।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বাণিজ্য মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল আলম টিটু বলেন, আগামী বছরের পরিকল্পনা হল হস্তশিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া। একটি গ্রাম ও একটি পণ্য প্রকল্পকের হস্তশিল্প বর্ষ সফল করা হবে। এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। হস্তশিল্প বিদেশে রপ্তানির ও ব্যবস্থা করা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, কৃত্রিম সংকট কেউ সৃষ্টি করতে চাইলে তাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স থাকতে হবে।

এসময় বিদেশী পণ্য আমদানী আরও কমানোর আহ্বান জানান তিনি।


আরও খবর
২৪ দিনে প্রবাসী আয় ১৮ হাজার কোটি টাকা

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




বইমেলা মাতালো সিসিমপুর

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ফেব্রুয়ারী 2০২4 | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

অমর একুশে বইমেলায় সপ্তাহে দুইদিন শুক্র ও শনিবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সময়কে শিশুপ্রহর ঘোষণা করেছে বাংলা একাডেমি। এ সময়টা খুদে পাঠকদের মেলাপ্রাঙ্গণে বই কেনার সঙ্গে নেচে-গেয়ে আনন্দ করার।

এ জন্যই গত কয়েক বছর ধরেই মেলা কর্তৃপক্ষ শিশুদের আনন্দ দিতে প্রতি শুক্র-শনিবার সকালে সুযোগ করে দেন বিটিভির শিশুতোষ বিষয়ক জনপ্রিয় অনুষ্ঠান সিসিমপুর লাইভ শো দেখার। এবারের মেলার প্রথম ছুটির দিনেই দেখা মিলল টুকটুকি, হালুম, শিকু, ইকরিদের।

শিশুপ্রহর উপলক্ষে বেলা ১১টায় খোলা হয় মেলার গেট। এরপরই মা-বাবার হাত ধরে আনন্দ করতে করতে মেলাপ্রাঙ্গণে প্রবেশ করে শিশুরা। মেলার গেট খোলার কিছুক্ষণ পরই শিশুচত্বরে একে একে হাজির হয় সিসিমপুরের প্রিয় চরিত্র টুকটুকি, হালুম, শিকু, ইকরি। বেজে ওঠে চলছে গাড়ি সিসিমপুরে, চলছে গাড়ি সিসিমপুরে।

টেলিভিশনের পর্দায় দেখা প্রিয় সিসিমপুর সরাসরি দেখার সুযোগ কেইবা হাত ছাড়া করতে চায়। তাইতো শিশুরা বাবা-মার সঙ্গে মেলাপ্রাঙ্গণে ছুটে আসে। বাবা-মার সঙ্গে মেলা আসা ৮ বছরে শিশু সিনথিয়া বলেন, আমি সিসিমপুর খুব পছন্দ করি। টুকটুকি, হালুম, শিকু, ইকরি দেখতে খুব মজা পাই। তাই আব্বু আমাকে নিয়ে এসেছে। অনেক আনন্দ লাগছে।

মায়ের সঙ্গে আসা জান্নাত অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, আমি প্রতি বছর আম্মুর সঙ্গে মেলায় আসি এই সিসিমপুর দেখার জন্য। নিজের চোখে দেখতে অনেক ভালো লাগে। টিভিতে এই অনুষ্ঠান সবসময় দেখি। আজ কিছু বইও কিনব।

সিসিমপুরের উদ্বোধন ঘোষণা করে শিশুদের উদ্দেশে বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা বলেন, শিশুদেরকে জন্মের পর থেকেই শব্দ শেখাতে হবে। বাঙালি শিশু জন্মের পর বাংলা শব্দ শিখবে, ইংরেজ শিশু ইংরেজি শব্দ শিখবে এবং আরব শিশু আরবি শব্দ শিখবে। সিসিমপুর কিন্তু কোন বিশেষ ভাষার শব্দ নয়। সারা পৃথিবীর ভাষার একটি শব্দ। সিসিম হচ্ছে একটি গুহা। এই গুহাতে যদি তোমরা ঢোকো তাহলে দেখতে পাবে, সারা পৃথিবীর জ্ঞান ভাণ্ডার তোমার সামনে উন্মুক্ত হবে। শিশুরাই এই গুহায় ভালোবাসে। গুহার ভেতরে যে নতুন জিনিস আছে, রহস্য আছে, সেটা তারা বের করতে চাই। এই বইমেলা সারা পৃথিবীর রহস্যের একটি গুহা বিশেষ।


আরও খবর
ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪