আজঃ শুক্রবার ৩১ মে ২০২৪
শিরোনাম

বিএনপির দুই গ্রুপের কর্মসূচি, ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ আগস্ট ২০২২ | অনলাইন সংস্করণ
Image

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:

বরগুনার আমতলী উপজেলায় বিএনপির কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপ একই জায়গায় সমাবেশ ডাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন।

শনিবার (১৩ আগস্ট) বিকেল ৪টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত এ ১৪৪ ধারা জারি থাকবে।

জানা গেছে, গত ২ আগস্ট বরগুনা জেলা জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) জেলা সভাপতি মাহবুবুল আলম ফারুক মোল্লা ও সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম টিটু স্বাক্ষরিত আমতলী উপজেলা বিএনপি ও পৌর বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওই কমিটিতে জালাল উদ্দিন ফকির আহবায়ক ও কামরুজ্জামান হিরু মৃধাকে সদস্য সচিব করে ৭ সদস্যবিশিষ্ট উপজেলা কমিটি এবং কবির উদ্দিন ফকির আহবায়ক ও তুহিন মৃধাকে সদস্য সচিব করে ১০ সদস্য বিশিষ্ট পৌর কমিটি করা হয়।

এদিকে কমিটি ঘোষণার পর থেকে সদ্য ঘোষিত উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জালাল উদ্দিন ফকির ও পৌর কমিটির সদস্য সচিব তুহিন মৃধা উভয় কমিটি বাতিলের জন্য বিরোধিতা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ আগস্ট বুধবার বিকেলে জালাল উদ্দিন ফকির ও তুহিন মৃধার নেতৃত্বে ছাত্রদল ও যুবদলের অর্ধশতাধিক নেতা- কর্মীরা সরকারি একে হাই স্কুল সংলগ্ন দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সহ- শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ উজ জামান মামুন মোল্লার ছবিতে ঝাড়ু ও জুতাপেটা করে এবং জেলা নেতৃবৃন্দের কঠোর সমালোচনা করে প্রতিবাদ জানায়।

অপরদিকে ঘোষিত কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে আজ শনিবার বিকেলে সদ্য ঘোষিত কমিটির উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব কামরুজ্জামান হিরু মৃধা ও পৌর বিএনপির আহবায়ক কবির উদ্দিন ফকিরের নেতৃত্বে আনন্দ শোভাযাত্রা করার ঘোষণা দেওয়া হয়। পরে ওই আনন্দ শোভাযাত্রা প্রতিহতের ঘোষণা দেয় সদ্য ঘোষিত উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জালাল উদ্দিন ফকির ও পৌর বিএনপি'র সদস্য সচিব তুহিন মৃধা। এই পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি নিয়ে বিএনপি'র উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। আইন শৃঙ্খলার অবনতির আশংকায় পুলিশ উপজেলা প্রশাসনের কাছে ১৪৪ ধারা জারি করার জন্য আবেদন করেন।

এ ছাড়া আইন শৃঙ্খলার অবনতির আশংকায় উপজেলা প্রশাসন জেলা প্রশাসনের কাছে ওই আবেদনটি পাঠিয়ে দেয়। পরে আইন শৃঙ্খলা অবনতির আশংকায় আজ শনিবার দুপুরে আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় থেকে মাইকিং করে বিকাল ৪টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত পৌর শহরে সকল প্রকার সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করে ১৪৪ ধারা জারি করেন।

সদ্য ঘোষিত উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মো. কামরুজ্জামান হিরু মৃধা বলেন, উপজেলা ও পৌর বিএনপির নতুন কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আমাদের পূর্ব নির্ধারিত আনন্দ শোভাযাত্রা বানচাল করতে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক জালাল উদ্দিন ফকির ও পৌর বিএনপির সদস্য সচিব তুহিন মৃধা ষড়যন্ত্র করে পাল্টা কর্মসূচি দিয়েছে। বিষয়টি আমরা জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দকে জানিয়েছি। অচিরেই বিএনপির নেতা-কর্মীরা এর সমুচিত জবাব দিবে ইনশাআল্লাহ।

এ বিষয়ে আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুর রহমান বলেন, বিএনপির দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে আইন শৃঙ্খলা অবনতি হওয়ার আশংকা রয়েছে। এ কারণে আমতলী পৌর শহরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।


আরও খবর



ড. ইউনূসের জামিনের মেয়াদ বাড়লো

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আদালত প্রতিবেদক

Image

শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. ইউনূসের জামিনের মেয়াদ ৪ জুলাই পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বেলা ১১টার দিকে কাকরাইলে অবস্থিত শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালে যান তিনি। আজই জামিনের সময়কাল শেষ হওয়ায় নতুন করে জামিন নিতে শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালে আসেন ড. ইউনূস।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবীসহ সংশ্লিষ্টরা।

শ্রম আইন লঙ্ঘনের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় গত ১৬ এপ্রিল ৬ মাসের সাজাপ্রাপ্ত ড. ইউনূসকে ২৩ মে পর্যন্ত জামিন দিয়েছিলেন শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনাল। আজই শেষ তার জামিনের সময়কাল।

গত ২৮ জানুয়ারি মামলার রায় চ্যালেঞ্জ করে ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ চারজনকে জামিন দেন শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনাল। এর আগে শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালে জামিন চেয়েছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে শ্রম আইন লঙ্ঘন মামলার রায়ে ৬ মাসের সাজার বিরুদ্ধে ২৫টি যুক্তি দেখিয়ে খালাস চেয়ে আপিল করেছিলেন।

শ্রম আইন লঙ্ঘনের মামলায় গত ১ জানুয়ারি ৬ মাসের সাজা হয় ড. মুহাম্মদ ইউনূসসহ চার আসামির।


আরও খবর



কালশী পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে অটোরিকশা চালকরা

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করার প্রতিবাদে এবার রাজধানীর মিরপুরের কালশীতে ট্রাফিক পুলিশের বক্সে আগুন দিয়েছে আন্দোলনরত অটোরিকশা চালকরা। রবিবার (১৯ মে) বিকেল ৪টা ২০ মিনিটের দিকে কালশী মোড়ে অবস্থিত ট্রাফিক পুলিশের বক্সে আগুন দেয় আন্দোলনকারীরা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে পল্লবী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোখলেসুর রহমান বলেন, কালশীতে আন্দোলনকারীরা সহিংস আন্দোলন করছে। তারা কালশী মোড়ে অবস্থিত একটি পুলিশ বক্সে আগুন দিয়েছে। এটি ট্রাফিক পুলিশের একটি বক্স। আমরা ঘটনাস্থলে আছি, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিচ্ছি।

এর আগে অটোরিকশা চালকরা এ সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় এবং আগুন ধরিয়ে দেয়। এছাড়া মিরপুর বেনারসি পল্লীর ৪ নম্বর সড়কে অটোরিকশা চালকদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। সেখানে কয়েকট গাড়িও ভাঙচুর করে অটোরিকশা চালকরা। এ সময় বাসে থাকা যাত্রীরা আতঙ্কিত হয়ে বাস থেকে নেমে পড়েন।

দুপুর সোয়া একটার দিকে অটোরিকশা চালকরা কালশী সড়ক আটকে দিয়ে যানচলাচল বন্ধ করে দেয়। এ সময় অনেকের হাতে লাঠি দেখা যায়। তারা গাড়ি ভাঙচুর করতেও উদ্যত হয়। তারা সড়কের মাঝখানে রশি টানিয়ে দিয়ে যানচলাচল বন্ধ করে দেয়। এক পর্যায়ে সড়কে তারা গাড়ি আড়াআড়িভাবে রাখতে বাস চালকদের বাধ্য করেন। এতে ওই সড়ক ব্যবহারকারী হাজার হাজার যাত্রী ভোগান্তিতে পড়েন। গন্তব্যে যেতে মানুষজনকে পায়ে হেঁটে রওনা দিতে দেখা যায়।


আরও খবর



ব্যাংকঋণের সুদহার ১৪ শতাংশের বেশি হবে না: বাংলাদেশ ব্যাংক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

ব্যাংক ঋণের সুদ ১৪ শতাংশের বেশি হবে না বলে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এফবিসিসিআই) নেতাদের আশ্বস্ত করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। তবে ব্যবসায়ী সংগঠনটির মতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বারবার নীতি পরিবর্তনের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দেশের অর্থনীতি নিয়ে গভর্নরের সঙ্গে আলোচনা শেষে এসব কথা জানিয়েছেন এফবিসিসিআই সভাপতি মাহবুবুল আলম।

এ সময় অন্যদের মধ্যে এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন, বিজিএমইএ সভাপতি এস এম মান্নান কচি, বিটিএমএ সভাপতি মোহাম্মদ আলী খোকন, বিকেএমইএর নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম এবং প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আহসান খান চৌধুরীসহ শীর্ষ ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন, হঠাৎ করেই ডলারের দাম ৭ টাকা বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ব্যবসায়ীরা। আমরা গভর্নরকে বলেছি এটি যেন ১১৭ টাকায় থাকে। তিনি আমাদের এক টাকা কম অথবা বেশির মধ্যে রাখার কথা বলেছেন। ডলার নিয়ে এখনো সমস্যা আছে। আমরা এলসি করার সময়ও একই রেট থাকার কথা বলেছি। গভর্নর আমাদের বলেছেন ডলার সংকট রয়েছে, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে সংকট পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হবে।

সুদহার বিষয়ে মাহবুবুল আলম বলেন, ডলারের মতো সুদহার বাজারের ওপরে ছেড়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এখন যে সুদের হার আছে তাতে ১৪ শতাংশের ওপরে উঠবে না বলে আশ্বাস দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ, এর মধ্যেই আটকে দেবে সুদহার। তবে ব্যাংকগুলোর ঋণ বিতরণে খরচ ৬ থেকে ৮ শতাংশ হলে সুদের হার ১২ শতাংশের ওপরে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

ডলার রেটের কারণে একক গ্রাহক ঋণসীমা হঠাৎ বেড়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ডলারের দাম একবারে বেশি হওয়ায় ঋণও বেড়েছে। সেই সঙ্গে ডলারের দাম একসঙ্গে ৭ টাকা বাড়ার কারণে যে পরিমাণ ঋণ বেড়েছে সে পরিমাণ টাকার দীর্ঘমেয়াদি ঋণের আবেদন করেছেন ব্যবসায়ীরা। এখানে বিশেষ বিবেচনায় ছাড় দেয়ার কথা জানিয়েছেন গভর্নর।

তিনি বলেন, বারবার নীতি পরিবর্তনের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। আমরা গভর্নরকে অনুরোধ করেছি পলিসিটা যেন দীর্ঘমেয়াদি নেয়া হয়। কারণ, কেউ একটা প্রজেক্ট করার পরই যখন দর বাড়বে তাকে ক্ষতি মেনে নিতেই হবে। এখানে আমাদের ব্যবসায় পলিসিতেও হ্যাম্পার হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা যেন বেশি ক্ষতিগ্রস্ত না হন, তেমন ব্যবস্থা ভবিষ্যতে নেয়া হবে। আমি মনে করি দেশের মূল্যস্ফীতি বৃদ্ধির সঙ্গে সুদহারের কোনো সম্পর্ক নেই।

প্রসঙ্গত, গত ৮ মে ব্যাংক ঋণের সুদহার নির্ধারণ পদ্ধতি সিক্স মান্থ মুভিং অ্যাভারেজ রেট (স্মার্ট) প্রত্যাহার করে বাংলাদেশ ব্যাংক। ওই নির্দেশনার ফলে এখন থেকে ব্যাংকার-গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে ঋণের সুদহার নির্ধারিত হবে।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশ ব্যাংক

আরও খবর



ওবায়দুল কাদেরের ভাইসহ দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নোয়াখালী প্রতিনিধি

Image

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই শাহাদাত হোসেন (টেলিফোন) ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাদল (দোয়াত কলম)।

বুধবার (২৯ মে) দুপুর ১২টায় ভোট ডাকাতি, কেন্দ্র দখল ও জালভোটসহ এজেন্ট বের করে দেওয়ার অভিযোগ তুলে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন তারা।

দুই প্রার্থীর অভিযোগ, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নেতৃত্বে তার ছেলে ও ভাগ্নেরা কেন্দ্র দখলে নিয়ে ব্যালটে সিল মারছেন। মেয়র আবদুল কাদের মির্জাও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই। তিনি চেয়ারম্যান প্রার্থী ব্যবসায়ী গোলাম শরীফ চৌধুরী পিপুলকে (আনারস) সমর্থন দিয়ে ভাইসহ অন্যদের বিরোধিতা করে আসছেন।

ওবায়দুল কাদেরের ভাই শাহাদাত হোসেন বলেন, মেয়র আবদুল কাদের মির্জার নেতৃত্বে আমার সব এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে আনারসে সিল মারা হচ্ছে। আমার ২০ জন কর্মীকে আহত করেছে মেয়রের হাতুড়ি বাহিনী। পুলিশ তাদেরকে অনৈতিকভাবে সহযোগিতা করছে। আমি এ ভোট বর্জন করে বাতিলের দাবি করছি।

মিজানুর রহমান বাদল বলেন, কোনো কেন্দ্রে আমার এজেন্টদের ঢুকতে দেয়নি কাদের মির্জার লোকজন। তারা ভোটারদের বাধা দিয়ে কেন্দ্রে আসতে দিচ্ছে না। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের এলাকায় এমন ভোট কারো কাম্য নয়। আমরা প্রহসনের এ নির্বাচন বাতিল চাই। এখানে প্রশাসন নিরপেক্ষ নয়। পুলিশ আনারসের পক্ষে সিল মারতে সহযোগিতা করছে। বিষয়টি আমরা জেলা প্রশাসককে লিখিতভাবে জানিয়েছি।

কাদের মির্জার ছেলে মির্জা মাশরুর কাদের তাশিক বলেন, নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশকে অশান্ত করতে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। বরং দোয়াত-কলমের লোকজন হামলা চালিয়ে আনারসের কর্মী চর-এলাহী ইউনিয়নের রাজ্জাক চেয়ারম্যানের ভাই আবদুল আজিজ খোকনসহ সাতজনকে কুপিয়ে জখম করেছে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান বলেন, কোম্পানীগঞ্জে ভোটের পরিবেশ সুষ্ঠু আছে। যদি কেউ সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ করেন তাহলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান জানান, কেউ অভিযোগ দিতেই পারেন। নির্বাচনে পরিবেশ যা থাকার তাই আছে। কোনো কেন্দ্রে অনিয়ম হলে তা বন্ধ করে দেওয়া হবে।


আরও খবর



রেমালের পর আসছে যেসব ঘূর্ণিঝড়

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ মে ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ঘূর্ণিঝড় রেমাল কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই দেশের উপকূলে আঘাত হানবে ঝড়টি। এর মধ্যেই প্রভাব শুরু হয়েছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। দেওয়া হয়েছে ১০ নম্বর বিপদ সংকেত। প্রবল এই ঘূর্ণিঝড়টি রবিবার (২৬ মে) দিবাগত মধ্যরাতে চূড়ান্তভাবে আঘাত হানতে পারে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. মহিববুর রহমান।

এর আগে আবহাওয়া অধিদপ্তরের পরিচালক মো. আজিজুর রহমান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, সন্ধ্যার পর থেকে আঘাত হানবে ঘূর্ণিঝড়। রাত ১২টায় উপকূল অতিক্রম করবে ঝড়ের অগ্রভাগ। পেছনের অংশ পার হতে রাত ৩টা বেজে যাবে। এ সময় তিন থেকে পাঁচ ঘণ্টা তাণ্ডব চালাতে পারে ঝড়টি।

আসন্ন এই ঝড়টির জন্য নেওয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি। উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে নেওয়া হয়েছে বাড়তি ব্যবস্থা। কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। মানুষদের নেওয়া হচ্ছে নিরাপদ আশ্রয়স্থলে।

এত কিছু এ জন্যই করা হচ্ছে যাতে করে রিমালের দুর্যোগ মোকাবিলা করা যায়। তবে এসব প্রস্তুতির পরও প্রভাব রেখে যায় প্রতিটি ঘূর্ণিঝড়। গত বছরের অক্টোবরেই এসেছিল ঘূর্ণিঝড় হামুন। তাণ্ডব চালিয়েছিল ঝড়টি। হামুন ছাড়াও এসেছিল আইলা, আমফান, ইয়াস ও মোখা।

এসব ঝড়ের পর এবার আসছে রেমাল’। এগুলো ছাড়াও অদূর ভবিষ্যতে আরও বেশ কিছু ঘূর্ণিঝড় আসবে যেসব ঝড়ের নাম আগে থেকেই নির্ধারণ করা হয়েছে।

ঝড়গুলোর নাম হলো- আসনা (পাকিস্তান), ডানা (কাতার), ফেঙ্গাল (সৌদি আরব), শক্তি (শ্রীলঙ্কা), মন্থ (থাইল্যান্ড), সেনিয়ার (সংযুক্ত আরব আমিরাত) ও দিত্ত্ব (ইয়েমেন)।

রেমালের নামকরণ যেভাবে-

রেমাল নামটির প্রস্তাব করে ওমান, আরবিতে যার অর্থ বালি’। এটি ২০২০ সালে ওই ১৩ দেশের প্রস্তাবিত ১৬৯টি নামের একটি।


আরও খবর