আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

আন্তঃবাহিনী আযান ও ক্বিরাত প্রতিযোগিতা সমাপ্ত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তঃবাহিনী আযান ও ক্বিরাত প্রতিযোগিতা-২০২২ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান ঢাকা সেনানিবাসস্থ সেনা কেন্দ্রীয় মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়।

আজ সমাপনী অনুষ্ঠানে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ (এনডিসি) এর কমান্ড্যান্ট লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ আকবর হোসেন, এসবিপি, এসইউপি (বার), এএফডব্লিউসি, পিএসসি, জি+, পিএইচডি, প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় তিন বাহিনীর প্রতিযোগীগণ এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। এই প্রতিযোগিতায় সেনাবাহিনী দল চ্যাম্পিয়ন এবং নৌবাহিনী দল রানারআপ হওয়ার গৌরব অর্জন করে। আযান প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সার্জেন্ট মোঃ রিয়াজ উদ্দীন আযানে ও সার্জেন্ট মোঃ আনোয়ার হোসেন ক্বিরাতে প্রথম স্থান অর্জন করেন।

এ সময় সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণসহ সকল পদবীর সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

গত ১০ মে ২০২২ তারিখে শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতায় আযানে ১৫ জন এবং ক্বিরাতে ১৫ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন । উল্লেখ্য, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী নৌ বাহিনী প্রধান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ শফিউল আজম, এনইউপি, এনডিসি, পিএসসি।

এই প্রতিযোগিতার মাধ্যমে তিন বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে প্রতিযোগিতামূলক মনোভাবের বিকাশ ও পারস্পরিক সৌহার্দ্য আরো মজবুত হবে বলে আশা করা যায়।


আরও খবর



শহীদ শেখ জামালের জন্মদিন আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ ২৮ এপ্রিল সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দ্বিতীয় পুত্র ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গর্বিত অফিসার বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের ৬৯তম জন্মদিন। শেখ জামাল ১৯৫৪ সালের ২৮ এপ্রিল গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ থেকে মাধ্যমিক ও ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। তিনি ছিলেন সংস্কৃতিপ্রেমী ও একজন ক্রীড়াবিদ।

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে শেখ জামালও গৃহবন্দি ছিলেন। সেখান থেকে পালিয়ে তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখসমরে নেতৃত্ব দেন। শেখ জামাল ধানমন্ডি থেকে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ পথচলা শেষে ভারতের আগরতলা পৌঁছান এবং সেখানে মুজিব বাহিনীতে (বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্সেস, বিএলএফ) যোগদান করে প্রশিক্ষণ শেষে মুক্তিযুদ্ধের ৯ নম্বর সেক্টরে সম্মুখসমরে অংশ নেন।

শহীদ শেখ জামাল ছিলেন একজন দেশপ্রেমিক চৌকস-মেধাবী সেনা অফিসার। তিনি ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লং কোর্সের প্রথম ব্যাচের কমিশন্ড অফিসার। ১৯৭৪ সালে শেখ জামাল যুগোস্লাভিয়ার মিলিটারি একাডেমিতে ক্যাডেট হিসেবে প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অংশ নেন। এরপর ব্রিটেনের স্যান্ডহার্স্ট একাডেমি থেকে প্রশিক্ষণ শেষে দেশে ফিরে ঢাকা সেনানিবাসস্থ দ্বিতীয় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পদে যোগদান করেন।

দ্বিতীয় ইস্ট বেঙ্গলে চাকরিকালে স্বল্প সময়েই অফিসার ও সৈনিকদের মাঝে তিনি অসাধারণ পেশাগত দক্ষতা ও আন্তরিকতার ছাপ রেখেছিলেন। কয়েক সপ্তাহেই শেখ জামাল অফিসার ও সৈনিকদের মধ্যে তাদেরই একজন হয়ে যান। ট্রেনিং গ্রাউন্ডে, রণকৌশলের ক্লাসে, অবস্টাকল ক্রসিংয়ে অংশ নিয়ে সৈনিকদের মুগ্ধ করেন।

ব্যাটালিয়ন বক্সিং টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেন। ১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্টও ব্যাটালিয়ন ডিউটি অফিসার হিসেবে ক্যান্টনমেন্টে নিজ দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ওই দিন রাতে ক্যান্টনমেন্ট থেকে ফিরে আসেন ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাড়িতে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাত্রিতে ঘাতকের নির্মম বুলেটের আঘাতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে নিহত হন শেখ জামাল।

জন্মদিন স্বভাবতই সবার কাছে আনন্দের। কিন্তু ১৫ আগস্টের নৃশংসতম মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড সে আনন্দকে ম্লান করে দেয়। স্বাধীনতা ও মুক্তি সংগ্রামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের অবদান বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে চিরদিন স্মরণ করবে।

৬৯তম জন্মদিনে শহীদ শেখ জামালকে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার সাথে স্মরণ করছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। এ উপলক্ষে আজ সকাল ৮টায় বনানী কবরস্থানে শহীদ শেখ জামালের সমাধিতে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ এবং তার পবিত্র আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।


আরও খবর



ফিনল্যান্ডে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করছে রাশিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ২২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফিনল্যান্ডের জ্বালানিবিষয়ক সরকারি প্রতিষ্ঠান গ্যাসাম বলেছে, শনিবার থেকে দেশটিতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করবে রাশিয়া। একে তো রাশিয়া থেকে কেনা গ্যাসের দাম রুবলে পরিশোধ করতে চায়নি ফিনল্যান্ড। তারই মধ্যে আবার পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগদানের ঘোষণা। ধাক্কাটা এর পরপরই এল।

ফিনল্যান্ডে প্রাকৃতিক গ্যাসের বেশির ভাগই আমদানি করা হয় রাশিয়া থেকে। তবে দেশটির মোট জ্বালানি চাহিদার একদশমাংশের কম পূরণ হয় গ্যাস থেকে। খবর বিবিসির।

গ্যাসামের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মিকা ইউলজানেন বলেন, আমরা এই পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। আমাদের গ্যাস সরবরাহব্যবস্থায় কোনো বাধা আসবে না। আগামী মাসগুলোতে আমরা সব গ্রাহককে গ্যাস সরবরাহ করতে পারব।

এদিকে গত রোববারই ফিনল্যান্ডে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করেছিল রাশিয়া। ন্যাটোতে যোগ দিলে প্রতিশোধ নেওয়া হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল। তবে গ্যাস বন্ধের কারণ জানতে চাইলে রুবলে মূল্য পরিশোধের দিকে ইঙ্গিত করেছে রাশিয়া।

এর আগে গত মাসে পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধের ঘোষণা দেয় রাশিয়া। কারণ সেই একই। দুই দেশই গ্যাসের দাম রুবলে পরিশোধ করতে অসম্মতি জানায়।


আরও খবর



️যশোরে ভুয়া চিকিৎসকের ৩ মাসের জেল ও লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোর চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের ছাতিয়ানতলা মল্লিক পাড়ায় ননী ফল নার্সারির আড়ালে যৌন ও ক্যান্সার চিকিৎসা প্রতারণা ও অবৈধভাবে ওষুধ তৈরির দায়ে খন্দকার কবীর হোসেনকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এ সময় আরও ১ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে যশোরের সিভিল সার্জন ডা. বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস, ওষুধ প্রশাসন যশোরের সহকারী পরিচালক নাজমুল হাসান ও নির্বাহী ম্যাজিস্টেট সৌম্য চৌধুরীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে ভ্রম্যমান আদালতের মাধ্যমে এই জেল- জরিমানা করা হয়। সিভিল সার্জন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

 সিভিল সার্জন ডা. বিপ্লব কান্তি বিশ্বাস জানান, খন্দকার কবীর হোসেন চিকিৎসক পরিচয়ে সাধারণ মানুষের সাথে দীর্ঘদিন প্রতারণা করে আসছিলেন। আসলে তিনি চিকিৎসক নন। কবীরের চিকিৎসা প্রতারণার অভিযোগ পেয়ে মঙ্গলবার তার ডেরায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানের সময় প্রতারণা অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়।

এছাড়া তিনি চিকিৎসক হিসেবে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। ফলে বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন অনিযায়ী ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। সিভিল সার্জন আরও জানান, এছাড়া কবীরের চিকিৎসা কার্যক্রমের চেম্বার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

 ওষুধ প্রশাসন যশোরের সহকারী পরিচালক নাজমুল হাসান জানান, ওষুধ প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই তিনি অবৈধভাবে নিম্নমানের ওষুধ করে বিক্রি মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন। অবৈধভাবে ওষুধ তৈরি ও বিক্রির প্রমান পাওয়ায় ওষুধ আইনের ১৯৪০ এর ১৮ ও ২৭ ধারা অনুযায়ী ১ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। কবীরের তৈরি ভুয়া ওষুধ জব্দ করা হয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা। অভিযানকালে সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. রেহেনেওয়াজ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান ও র‌্যাব সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন রনিল বিক্রমাসিংহে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন দেশটির ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টি (ইউএনপি) নেতা রনিল বিক্রমাসিংহে। বৃহস্পতিবার ৬টা ৩০ মিনিটে তিনি শপথ নেবেন। তার দল থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শ্রীলঙ্কার সংবাদমাধ্যম দ্য ডেইলি মিরর এই তথ্য জানিয়েছে। শপথ গ্রহণের পর তিনি রাজধানী কলম্বোর একটি মন্দিরে যাবেন। সেখান থেকে ফিরে তিনি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন শুরু করবেন।

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের সঙ্গে তিনি রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছিলেন। বৈঠকটির ব্যাপারে ডেইলি মিরর জানিয়েছিল, বৈঠকের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু না জানা গেলেও, আলোচনায় কিছুটা অগ্রগতি হয়েছে। বৈঠকে গোতাবায়া প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য তাকে প্রস্তাব দেন। আর তিনি প্রেসিডেন্টকে গলের বিক্ষোভকারীদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ চালিয়ে যেতে দিতে বলেন।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মাহিন্দা রাজাপাকসে। তার পদত্যাগের ফলে পদটি শূন্য হয়ে পড়ে। এরপর মঙ্গলবার দেশটির প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে বিরোধীদল সামাজি জানা বালাবউইগেয়ায়ার (এসজেবি) নেতা সাজিথ প্রেমাদাসাকে প্রথমে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন। কিন্তু সাজিথ জানিয়েছিলেন, প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ করলেই কেবল তিনি প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেবেন। এরপর বুধবার রনিল বিক্রমাসিংহেকে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রস্তাব দেন প্রেসিডেন্ট।


আরও খবর



চাঁপাইনবাবগঞ্জে মিলছে না পেট্রল-অকটেন

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জে চাহিদামতো সরবরাহ না থাকায় পেট্রল ও অকটেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। জেলা শহরের কিছু স্থানে পেট্রল-অকটেন পাওয়া গেলেও উপজেলাগুলোর প্রায় সব ফুয়েল স্টেশন বন্ধ।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, ডিপো থেকে চাহিদামতো সরবরাহ না পাওয়ায় সংকট সৃষ্টি দেখা দিয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত ডিজেল ও কেরোসিনের সরবরাহ ঠিক রয়েছে।

জেলা শহরের শিবতলা এলাকার মোটরসাইকেল চালক সজিব আলী বলেন, বিভিন্ন ফুয়েল স্টেশন ঘুরে ঘুরে পেট্রল না পেয়ে কাল থেকে বাধ্য হয়ে গাড়িতে অকটেন ব্যবহার করছিলাম। কিন্তু আজ ফুয়েল স্টেশনে গিয়ে দেখি অকটেনও নেই।

শিবগঞ্জ উপজেলার রাজ্জাক নামে এক মোটরসাইকেল চালক বলেন, ঈদের পরদিন থেকেই এখানকার কোনো ফুয়েল স্টেশনে পেট্রল-অকটেন নেই। তবে শিবগঞ্জ ফুয়েল স্টেশনে সকালে কিছু মানুষকে পেট্রল দিয়েছে। ফের দুপুর থেকে বন্ধ।

রানিহাটি এলাকার আশরাফ নামে এক মোটরসাইকেল চালক বলেন, ছোট দুই ছেলেকে নিয়ে জেলা শহরে গিয়েছিলাম ঘুরতে। কিন্তু আশার পথে তেল শেষ হয়ে যায়। পরে বিভিন্ন ফুয়েল স্টেশনে ঘুরেও তেল না পেয়ে অটোরিকশাতে বাড়িতে এসেছি।

মেসার্স শিবগঞ্জ ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার জহিরুল কাইউম বাবর বলেন, গত এক মাস থেকে চাহিদা অনুযায়ী তেল পাচ্ছি না। যা তেল ছিল ঈদের পরেরদিন শেষ হয়ে গিয়েছিল। আগে থেকে টাকা দিয়ে ১২ হাজার লিটার তেলের অর্ডার দিয়ে তিন হাজার লিটার তেল পেয়েছিলাম গত পরশু। তা আজকে দুপুরেই শেষ হয়ে গেছে। তাই এখন বন্ধ। গত কয়েকদিন ধরে সিরাজগঞ্জসহ বেশ কিছু স্থানে খোঁজ নিয়েও তেল পাইনি।

গোমস্তাপুর উপজেলার খয়রাবাদ এলাকার মেসার্স রায়হান ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার রায়হান আলী বলেন, শনিবার বিকেল থেকেই এখানকার কোনো ফুয়েল স্টেশনে তেল নেই। তবে আমাদের কাছে এক হাজার লিটার পেট্রল ছিল। কিন্তু সকাল থেকে এত মোটরসাইকেল তেল নিতে এসেছে যে দুপুরেই শেষ হয়ে গেছে। সিরাজগঞ্জ ডিপোতে কথা বলেছি। পরশু ছড়া তেল তারা দিতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে।

জেলা শহরের পিটিআই এলাকার খান ফিলিং স্টেশনের ম্যানেজার বাবু আলী বলেন, গত সাতদিন থেকেই পেট্রল ও অকটেন সংকট। তবে আমার ফুয়েল স্টেশনে তেল ছিল। কিন্তু এখন প্রায় শেষের পথে। আর পরশু সাড়ে ৯ হাজার লিটার পেট্রল ও অকটেনের অর্ডার দিয়েছিলাম। কিন্তু পেয়েছি মাত্র সাড়ে চার হাজার লিটার। তাও কালকে আসবে। নানা অজুহাতে ডিপো থেকে তেল দিচ্ছে না।


আরও খবর