আজঃ মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
শিরোনাম

আম্বানি পুত্রবধূ রাধিকার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
বিনোদন ডেস্ক

Image

হাজার কোটি টাকা খরচ করে ছেলের প্রাক বিয়ের জমকালো অনুষ্ঠানে বিশ্বের মানুষকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন মুকেশ আম্বানি ও নীতা আম্বানি। কেউ বাদ যায়নি এই জমকালো বিয়ের আসরে। এই আসরে সবার নজর ছিল আম্বানি পুত্রবধূ রাধিকা মার্চেন্টের দিকে। এবার তার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ উঠেছে।

গুজরাটের জামনগরে আয়োজিত হয়েছে তিন দিনব্যাপী জমকালো অনুষ্ঠান। সেই আয়োজনের বেশ কিছু ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ঝড় তুলেছে। তবে এর মধ্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

গুজরাটের জামনগরে জমকালো প্রাক-বিবাহ অনুষ্ঠানে হবু স্বামী অনন্ত আম্বানিকে উদ্দেশ্য করে আবেগঘন এক বক্তব্য দেন আম্বানি পুত্রবধূ রাধিকা মার্চেন্ট।

অনন্ত আম্বানির উদ্দেশে রাধিকা বলেন, ‍‍`একবার আমাকে একজন জিজ্ঞেস করেছিল, ‍‍`একজন সঙ্গীর মধ্যে আমি আসলে কী খুঁজি, কী পেলে আমরা মনে করি যে সঙ্গী খুঁজে পেয়েছি?

জীবনসঙ্গীর মধ্যে আপনি আসলে আপনার জীবনের একজন সাক্ষী খুঁজে পান। এই পৃথিবীতে এক বিলিয়নেরও বেশি মানুষ আছে। কিন্তু কখন বুঝবেন যে আপনি জীবনসঙ্গী পেয়েছেন? যখন আপনি এমন কাউকে খুঁজে পাবেন যে সবকিছু দেখাশোনা করার প্রতিশ্রুতি দেয়ভালো, খারাপ, সুন্দর, সাহসের, দুঃখের সবকিছুর যত্ন নেবে বলে অনুভব করায় তখনই আপনি আপনার সঙ্গী খুঁজে পান। আপনি তখনই বলে উঠেন, "আমি জীবনের প্রতিটি দিন তোমাকে দেখব। তোমার জীবন কখনোই অগোচরে থাকবে না, কারণ আমি এটি প্রত্যক্ষ করব। আমি সারাজীবন তোমার জীবনের সাক্ষী হয়ে থাকব।"

ভালোবাসা ও বন্ধন নিয়ে তার কথাগুলো মুগ্ধ করেছে দর্শকদের। তবে অনুষ্ঠানের কয়েকদিন পরেই সামনে আসে নতুন তথ্য।

ভারতীয় এক সংবাদ মাধ্যমের বরাতে জানা যায়, ২০০৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‍‍শ্যাল উই ড্যান্স‍  সিনেমায় জীবনসঙ্গী নিয়ে হুবুহু একই বক্তব্য দিয়েছিলেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী সুজ্যান স্যারান্ডন। সেই সংলাপটিই হুবুহু নকল করেছেন রাধিকা।

রাধিকার বক্তৃতা ও সুজ্যান স্যারান্ডনের সংলাপকে পাশাপাশি বসিয়ে বানানো একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটির ক্যাপশনে লেখা, ‍‍তারা অন্তত আমাকে ফোন করে বলতে পারতো, কয়েক কোটি টাকা দিলেই আমি বাক্যগুলো পরিবর্তন করে দিতাম!

৩ দিন ব্যাপি প্রি ওয়েডিং অনুষ্ঠান চলে। অনন্ত আম্বানি ও রাধিকা মার্চেন্টের বিয়ে হবে অবশ্য জুলাই মাসে। তবে তার আগে প্রাক বিবাহ আসর বসেছিল গুজরাটের জামনগরে।

এতে দেখা যায় বিশ্বের সব হাই প্রোফাইল ব্যক্তিত্ব। সারা বিশ্ব থেকে অতিথিরা আসে। ছিলেন মার্ক জাকারবার্গ থেকে বিল গেটস, ইভাঙ্কা ট্রাম্পের মতো অতিথিরাও। এছাড়াও সচীন থেকে ধোনি, শাহরুখ থেকে সালমান-আমির, রণবীর থেকে দীপিকা-আলিয়া সবাই হাজির হয়েছিলেন। তবে হাতে গোনা কিছু তারকা বাদ গিয়েছিলেন এতে। এসেছিলেন পপ স্টার রিহানাও।


আরও খবর



বাঘায় আ. লীগরে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ৫০

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
রাজশাহী প্রতিনিধি

Image

রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার (২২ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইট পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর থেকে বাঘায় থমথম পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

জানা গেছে, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার বাঘা উপজেলার সচেতন নাগরিকের ব্যানারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু এবং বাঘা পৌর মেয়র আক্কাছ আলীর কর্মী সমর্থকরা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিলের আয়োজন করে। অপর দিকে একই দিনে বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাছ আলীর বিরুদ্ধে দুর্নীতি, স্বজন প্রীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগে মানববন্ধনের ডাক দেয় বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগ। উভয় পক্ষের কর্মী সমর্থকরা উপজেলা চত্বরে জড়ো হলে এরমধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। এতে ৫০ জন আহত হন।

এ ঘটনায় আহতরা হলেন- বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম বাবলু, আড়ানী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, বাঘা পৌরসভার মেয়র আক্কাছ আলী, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দলের (জাসদ ইনু) কেন্দ্রীয় কার্যকারী কমিটির সদস্য ও জেলা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান শফি, পাকুড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম, আবদুল খালেক, জারমান আলী, আশিক হোসেন, সুলতান আলী, ফিরোজ হোসেন, শাহাদত হোসেন, ইশতিয়াক হোসেন, কামাল হোসেনসহ অনন্ত ৫০ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের উদ্ধার করে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। দিকে পথচারী উজ্জল হোসেন নামে এক ব্যক্তি পুলিশের টিয়ারসেলে আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এছাড়া আশরাফুল ইসলাম বাবুল ও চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামসহ দুজনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ টিআর শেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করেন। এ ঘটনায় বাঘা বাজার এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। এছাড়া এমপি শাহরিয়ার আলম গ্রুপ ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক অ্যাভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু এবং বাঘা পৌর মেয়র আক্কাছ আলীর অনুসারীরা দেশিয় অস্ত্র হাতে বাঘা বাজারের দুই প্রান্তে অবস্থান নিয়েছিল। এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিএইচএ ডা. আসাদুজ্জামান বলেন, এখানে ১৮ জন ভর্তি হয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। আরও অনেকেই বিভিন্নস্থানে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানা গেছে। এরমধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুত্ব হওয়ায় তাদের রামেক হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। আর যারা ভর্তি রয়েছেন তাদের চিকিৎসা চলছে।

বিষয়টি নিয়ে বাঘা থানার ওসি আমিনুল ইসলামের মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে বাঘ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তরিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানে অনেকে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। এছাড়া বাবুলকে রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

লায়েব উদ্দিন লাভলু ও আক্কাছ আলীর পক্ষে পাকুড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মেরাজুল ইসলাম মেরাজ বলেন, কয়েব বছর ধরে দলিল লেখক সমিতির সভাপতি-সম্পাদক অতিরিক্ত টাকা নিয়ে ক্রেতার দলিল সম্পন্ন করতেন। এ নিয়ে সমিতি ভেঙ্গে দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়। কিন্তু বর্তমান কমিটি পেশি শক্তি ব্যবহার করে সমিতির কাজকর্ম চালাতে চায়। আমরা এ সমিতির নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায় বন্ধ ও অবৈধ কমিটি বাতিল এবং অনিয়ম দূর্নীতির প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভের আয়োজন করা হলে তারা আমাদের ওপর হামলা চালায়। এতে আমাদের পক্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।

এ বিষয়ে বাঘা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহেদ সাদেক কবীর বলেন, কিছুদিন হলো শাহিনুর রহমান পিন্টুকে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের দলিল লেখক সমিতির সভাপতির দায়িত্ব নিয়েছেন। আগে তারাই সমিতি কীভাবে চালাতেন ভাল বলতে পারবেন। তবে সমিতির নিয়মের বাইরে সাবেক সভাপতি চলতে চান। এ নিয়ে একটি পক্ষ মিছিল করার নামে আমাদের শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনে হামলা চালিয়ে পণ্ড করে দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর



মারা গেছেন কিংবদন্তি পেলের মা

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

২০২২ সালের ২৯ ডিসেম্বর মারা যান ব্রাজিলের কিংবদন্তি ফুটবলার পেলে। ছেলের মৃত্যুর পরও বেঁচে ছিলেন তাকে জন্ম দেওয়া রত্নগর্ভা মা সেলেস্তে আরান্তেস।

শুক্রবার (২১ জুন) ১০১ বছর বয়সে মারা গেছেন কিংবদন্তি এই ফুটবলারের মা।

পেলের মায়ের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন তার বড় ছেলে বার্তায় এদিনহো। ইনস্টাগ্রামে এক বার্তায় তিনি লেখেন, শান্তিতে ঘুমাও দাদি মা।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে, আরান্তেস ৮ দিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার পর শুক্রবার মারা যান তিনি। পেলের মৃত্যুর সময় পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, আরান্তেসের কগনিটিভ জটিলতা আছে এবং ছেলের মৃত্যু সম্পর্কে কিছুই জানতেন না তিনি।


আরও খবর



দেশের ১০ জেলায় দুপুরের মধ্যে ঝড়ের আভাস

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, দেশের ১০ অঞ্চলের ওপর দিয়ে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে। শুক্রবার দুপুর ১টা পর্যন্ত দেশের অভ্যন্তরীণ নদীবন্দরগুলোর জন্য দেওয়া আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ ড. মুহাম্মদ আবুল কালাম মল্লিকের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, যশোর, কুষ্টিয়া, খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, সিলেট এবং ময়মনসিংহ অঞ্চলগুলো ওপর দিয়ে দক্ষিণ অথবা দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টিসহ অস্থায়ীভাবে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এসব এলাকার নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর (পুনঃ) ১ নম্বর নৌ সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া অফিসের অপর এক বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, সন্ধ্যা পর্যন্ত দেশের সব বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। বৃষ্টিপাতের এ প্রবণতা কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে।

সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে। বৃষ্টিপাতের এ প্রবণতা কয়েক দিন অব্যাহত থাকতে পারে।


আরও খবর



ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে দলীয় নেতাদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন।

সোমবার (১৭ জুন) সকালে তিনি তার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগ ও দলটির সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলের শীর্ষ নেতারা প্রধানমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এরপর ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর আওয়ামী লীগ, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ ও ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।


আরও খবর



শেষ মুহূর্তে ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ, ফাঁকা হচ্ছে ঢাকা

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আগামীকাল সারাদেশে পালিত হবে পবিত্র ঈদুল আজহা। ঈদ উদযাপনে শেষ সময়ে নাড়ির টানে রাজধানী ছাড়ছে মানুষ। রোববার (১৬ জুন) ভোর থেকে রেলস্টেশন ও বাস টার্মিনালে রয়েছে যাত্রীদের ভিড়। কমলাপুর থেকে আগাম টিকিট না পেয়ে ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকিট কেটে বাড়ি ফিরছেন অনেকে।

এদিকে রাজধানীর বেশির ভাগ বাস টার্মিনালেও যাত্রীদের ভিড় দেখা গেছে। কিছু রুটে বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ করেছেন অনেকে। কমলাপুর রেলস্টেশনে দেখা যায় যাত্রীর চাপ রয়েছে। ট্রেনের অপেক্ষায় প্ল্যাটফর্মে অপেক্ষায় যাত্রীরা।

এদিকে বাস টার্মিনালগুলোরও একই অবস্থা। সকাল থেকে সময় মতোই উত্তর ও দক্ষিণ অঞ্চলের বাস ছেড়ে যাচ্ছে। বাড়তি ভাড়া আদায় বা ভোগান্তির অভিযোগ যাত্রীদের। বিকেল নাগাদ ভিড় কমে যাবে বলে ধারণা পরিবহন সংশ্লিষ্টদের।

তবে অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে রাজধানীর বাস, রেল ও লঞ্চ টার্মিনালের বিভিন্ন সড়কে দেখা দিয়েছে যানজট। এতে অনেকে বাস, রিকশা, সিএনজি অটোরিকশা থেকে নেমে ব্যাগ হাতে নিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন টার্মিনালের দিকে। টার্মিনালগুলোর সামনে রয়েছে বাসের লম্বা সারি।

এসব সড়কে ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা ঠিক রাখতে দায়িত্বে রয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সদস্য। সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালেও অন্য সময়ের চেয়ে যাত্রীর চাপ বেশি। দক্ষিণাঞ্চলগামী লঞ্চের ডেক যাত্রীতে পূর্ণ।


আরও খবর