আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

আজকের রাশিফল: সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০২৩

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

আজ নতুন কী ঘটতে চলেছে? আজ কি আপনার জন্য ভাল কিছু অপেক্ষা করে আছে? কেমন থাকবে আপনার আর্থিক অবস্থা? নাকি খারাপ কিছুর অপেক্ষা করে আছে আপনার ভাগ্যে। বিখ্যাত জ্যোতিষীর দ্বারা বিশ্লেষণের পর আজকের দিন নিয়ে ভবিষ্যত গণনা জানুন আপনার আজকের রাশিফলে।

মেষ : কাজের চাপ যদি মানসিক অবসাদের সাথে ফেলে তবে বাচ্চাদের সঙ্গ মন ভালো করে দেবে। অভিজ্ঞ মানুষদের সংস্পর্শে থেকে তাদের থেকে মতামত নিজের জীবনে কাজে লাগাতে চেষ্টা করুন।

বৃষ : আপনার স্পষ্টবাদিতা আজ করোর রোষের কারণ হতে পারে। খেলা থেকে উপার্জন হতে পারে। কর্মক্ষেত্রে সমস্যার সন্মুখিন হতে পারেন। বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিয়ে মন হালকা হবে।

মিথুন : কোনও কথা বলার আগে সেই কথা কাউকে আঘাত দিতে পারে কিনা সেটা চিন্তা করুন। বাড়িতে টাকাপয়সা এবং মূল্যবান জিনিস সাবধানে রাখুন। মন হালকা করতে গান শুনতে পারেন।

কর্কট : অত্যাধিক ভ্রমণ আপনাকে বিরক্ত করে তুলবে। আজ ব্যবসায় অপ্রত্যাশিত লাভ পাবেন। কর্মক্ষেত্রে ভুলের জন্য ঊর্ধ্বতনের সমালোচনার শিকার হতে পারেন। ভালোবাসার মানুষের সাথে অন্তরঙ্গ মুহূর্ত কাটবে।

সিংহ : আজ প্রেমিক বা প্রেমিকারা ভালোবাসার মানুষের সাথে অনেকটা সময় কাটাবেন। এর ফলে মনের মধ্যে জমে থাকা সব দুঃখ লাঘব হবে। নিজের চালচলনে সাবধান হওয়ার চেষ্টা করুন।

কন্যা : নিজের পছন্দের বই বা সিনেমা আজ আপনাকে এক অন্য জগতে নিয়ে যাবে। যেকোনো বিষয়ে ভয় না পেয়ে আত্মবিশ্বাসের সাথে এগিয়ে যান। সাফল্য আসবেই।

তুলা: আপনার জীবনসঙ্গী অথবা ভালোবাসার মানুষের সাথে কিছু অন্তরঙ্গ মুহূর্ত কাটবে যা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আপনার ব্যক্তিগত সমস্যার সমাধানের ব্যাপারে বন্ধুদের সাথে আলোচনা করতে পারেন।

বৃশ্চিক : নিজের শরীরের যত্ন নিন এর জন্য ব্যায়াম করতে হতে পারে। যে কোনও রকম বিতর্কে আজ সাফল্য আপনার দিকেই থাকবে। আজ কোনও ধর্মীয় স্থানে গিয়ে আধ্যাত্মিক চর্চা করতে পারেন।

ধনু : সম্পত্তি সংক্রান্ত কারবার থেকে লাভ হবে। সন্ধ্যায় বন্ধুদের সাথে কোথাও যাওয়া হতে পারে। বিবাহিত সম্পর্কে প্রেম আজ নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে। ব্যক্তিত্ব ঠিক রাখার চেষ্টা করুন।

মকর : মনের জোর বজায় রাখুন। সমস্ত সমস্যা মিটে যাবে। পুরানো জিনিস বা গহনায় বিনিয়োগে লাভ হবে। পরিবারের কারোর শারীরিক সমস্যা হতে পারে। ভ্রমণের সময় নতুন বন্ধু পেতে পারেন। পত্নীর সাথে সুখকর সময় কাটবে।

কুম্ভ : আজ নতুন কিছু শিখতে পারেন। ভবিষ্যতের কথা ভেবে সাশ্রয় করুন। যেকোনোরকম তর্ক বিতর্ক এড়িয়ে চলুন। আজ আধ্যাত্মিক উন্নতি হবে। ঘুরতে গিয়ে পরিচিত কারোর সাথে দেখা হতে পারে। বিশ্রাম উপভোগ করুন।

মীন : কোনও ধর্মীয় স্থানে গিয়ে স্বর্গীয় জ্ঞান লাভ করবেন। কিছু অনুদান দিতে পারেন। আজ পর্যাপ্ত অর্থ উপার্জন হবে। ভাইয়ের থেকে সাহায্য পেতে পারেন। বিবাহিতদের জন্যও দিনটি ভালো। দাম্পত্যপ্রেম নতুন উচ্চতা পাবে।


আরও খবর
খাতনা করার আগে-পরে যেসব বিষয় জানা জরুরি

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নারীর জন্য প্রয়োজনীয় পাঁচ ভিটামিন

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




একজন রোহিঙ্গাকেও ঢুকতে দেবো না : বিজিবির ডিজি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক

Image

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) নবনিযুক্ত মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী বলেছেন, বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত পরিস্থিতি বিজিবির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আমরা কোনোভাবেই নতুন করে আর কোনো রোহিঙ্গা নাগরিককে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেব না।

বিজিবি মহাপরিচালক মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান এবং বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, আমি গতকাল দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে সবচেয়ে বেশি এই সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে ইনভলভ আছি। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) আমি নিজে সরেজমিনে সীমান্ত পরিদর্শনে যাচ্ছি। আমরা ধৈর্য ধারণ করে, মানবিক দিক বিবেচনা করে এবং আন্তর্জাতিকভাবে সুসম্পর্ক বজায় রেখে পরিস্থিতি মোকাবিলার চেষ্টা করছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা সেরকমই। গতকাল প্রধানমন্ত্রী এব্যাপারে কথাও বলেছেন, ধৈর্যধারণের নির্দেশনা দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনা অনুযায়ী বিজিবি কাজ করে যাচ্ছে।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, গতকাল রাত পর্যন্ত ১১৫ জন বিজিপি সদস্য আমাদের কাছে আত্মসমর্পণ করে বা আশ্রয় নিয়েছেন। আজ সকালে আরও ১১৪ জন যুক্ত হয়েছে।  দুপুর পর্যন্ত এই সংখ্যা ছিল ২২৯। দুপুরের পর আরো বিজিপিসহ দেশটির অন্যান্য বাহিনীর ৩৫ জন যোগ হয়ে ২৬৪ জন আশ্রয় নিয়েছেন। তাদের আমরা থাকা ও খাবারের ব্যবস্থা করেছি। তাদের মধ্যে ১৫ জন আহত ছিলেন, এরমধ্যে ৮ জন ছিলেন গুরুতর আহত। এই ৮ জনের মধ্যে চারজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে বিজিবির ব্যবস্থাপনায় ভর্তি করা হয়েছে। বাকি চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বিজিবির ব্যবস্থাপনায় চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সীমান্তে উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে সরকারি পরিকল্পনা সম্পর্কে তিনি বলেন, সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কাজ করছে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মিয়ানমারের সঙ্গে যোগাযোগ করছে। আশ্রিতদের প্রত্যাবর্তন বা ফেরানোর বিষয়ে কীভাবে সমাধান করা যায় তা নিয়ে কাজ চলছে। মিয়ানমার এব্যাপারে সহযোগিতা করবে বলে জানিয়েছে। তারাও প্রত্যাবর্তনের ব্যাপারে নোট নিয়েছে। আশা করি খুব শিগগিরই তাদের প্রত্যাবর্তন করানো হবে।

বিজিবি ডিজি বলেন, একই সঙ্গে দুই দেশের দুই সীমান্ত বাহিনীর মধ্যে যোগাযোগ হচ্ছে। সীমান্তবর্তী পরিস্থিতি আপনারা জানেন। মিয়ানমারে গোলাগুলির মধ্যে কিছু শেল এসে বাংলাদেশে পড়ছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে গতকাল এক রোহিঙ্গা নাগরিক ও একজন বাংলাদেশি নারী মারা গেছেন। এই মৃত্যু কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমরা প্রোটেস্ট নোট দিয়েছি। আমরা বারবার বলেছি আজকেও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি বড় মিটিং হচ্ছে। আর আমি আগামীকাল সরেজমিন সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে যাব।

তিনি বলেন, আজকে মিয়ানমারের ডিএ (ডিফেন্স অ্যাটাচ) আমার সঙ্গে দেখা করেছেন। সবদিক অ্যাঙ্গেজ করে কীভাবে এর আশু সমাধান করা যায়, সে চেষ্টা আমরা করছি।

বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, আজকে ৬৫ জন রোহিঙ্গা বোটের মাধ্যমে নদী পথে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশের প্রবেশের চেষ্টা করেছে। আমাদের টেকনাফ বিজিবি তাদেরকে প্রতিহত করেছে। তাদের পুশব্যাক করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। আমরা নতুন করে কোনো রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে আর প্রবেশ করতে দেব না। এভাবে আমরা বাংলাদেশের অখণ্ডতা রক্ষা করে প্রধানমন্ত্রী দিক-নির্দেশনায় বিজিবি কাজ করে যাচ্ছে। সীমান্তের সার্বিক নিরাপত্তা পরিষদের এখন পর্যন্ত বিজেপি নিয়ন্ত্রণ রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ ফেব্রুয়ারি তিনি বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন।


আরও খবর
ঝিনাইদহ জেলা কারাগারে কয়েদির মৃত্যু

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি প্রকাশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ধর্ম ও জীবন

Image

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এবার রমজান মাস শুরু হবে আগামী ১২ বা ১৩ মার্চ। তবে রমজান শুরুর সময় ১২ মার্চ ধরে ঢাকার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি নির্ধারণ করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। গত ৫ ফেব্রুয়ারি ইসলামিক ফাউন্ডেশন ১৪৪৫ হিজরির রমজান মাসের সেহরি ও ইফতারের এ সময়সূচি চূড়ান্ত করে। সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে এ সময়সূচি প্রকাশ করা হয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানায়, প্রথম রমজান চাঁদ দেখার ওপর নির্ভরশীল। ১২ মার্চ প্রথম রমজানে ঢাকায় সেহরির শেষ সময় ভোর ৪টা ৫১ মিনিট ও ইফতারির সময় ৬টা ১০ মিনিট। তবে দূরত্ব অনুযায়ী ঢাকার সময়ের সঙ্গে সর্বোচ্চ ৯ মিনিট পর্যন্ত যোগ করে ও ৯ মিনিট পর্যন্ত বিয়োগ করে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ সেহরি ও ইফতার করবে ইসলামিক ফাউন্ডেশন।


দেশের অন্যান্য বিভাগ ও জেলার সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয় থেকে প্রকাশ করা হবে।


আরও খবর
শবে বরাত সম্পর্কে হাদিসে যা বলা হয়েছে

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আজ সরকারি ছুটির দিন। শবে বরাতের পরদিন বাংলাদেশে নির্বাহী আদেশে সরকারি ছুটি। এ দিন সকালেও ঢাকার বাতাসের মান অস্বাস্থ্যকর হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

আইকিউএয়ারের বাতাসের মানসূচকে সোমবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টা ৫৩ মিনিটে ঢাকার স্কোর ছিল ১৫৬। এই স্কোর অস্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয়।

চলতি মাসে টানা দুই দিন ঢাকার বায়ু ছিল দুর্যোগপূর্ণ। এ ছাড়া বেশির ভাগ দিনই ছিল অস্বাস্থ্যকর।

আজ ১৮৬ স্কোর নিয়ে দূষিত শহরের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে পাকিস্তানের লাহোর শহর। এ ছাড়া দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ভারতের মুম্বাই শহরের স্কোর ১৭৩, তৃতীয় অবস্থানে থাকা বসনিয়া হার্জেগোভিনার সারাজেভো শহরের স্কোর ১৭২, চতুর্থ অবস্থানে থাকা চীনের হ্যাংজু শহরের স্কোর ১৬৭ এবং সমান স্কোর নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে আছে দেশটির আরেক শহর উহান।

বায়ুদূষণের এই পরিস্থিতি নিয়মিত তুলে ধরে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ার। বাতাসের মান নিয়ে তৈরি করা এই লাইভ বা তাৎক্ষণিক একিউআই সূচক একটি নির্দিষ্ট শহরের বাতাস কতটা নির্মল বা দূষিত, সেটা সম্পর্কে মানুষকে তথ্য দেয় এবং সতর্ক করে।

১০১ থেকে ১৫০ এর মধ্যে হলে বাতাসের মান সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর, ১৫০ থেকে ২০০ এর মধ্যে একিউআই স্কোরকে অস্বাস্থ্যকর বলে মনে করা হয়।

২০১ থেকে ৩০০ এর মধ্যে খুব অস্বাস্থ্যকর বলা হয়, ৩০১+ একিউআই স্কোরকে দুর্যোগপূর্ণ বা বিপজ্জনক হিসেবে বিবেচনা করা হয়, যা বাসিন্দাদের জন্য গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি করে।

বাংলাদেশে একিউআই নির্ধারণ করা হয় দূষণের ৫টি বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে। সেগুলো হলো- বস্তুকণা (পিএম১০ ও পিএম২.৫), এনও২, সিও, এসও২ ও ওজোন (ও৩)।

দীর্ঘদিন ধরে বায়ু দূষণে ভুগছে ঢাকা। এর বাতাসের গুণমান সাধারণত শীতকালে অস্বাস্থ্যকর হয়ে যায় এবং বর্ষাকালে কিছুটা উন্নত হয়।

২০১৯ সালের মার্চ মাসে পরিবেশ অধিদপ্তর ও বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, ঢাকার বায়ু দূষণের তিনটি প্রধান উৎস হলো- ইটভাটা, যানবাহনের ধোঁয়া ও নির্মাণ সাইটের ধুলো।


আরও খবর



রামের জীবনী পড়ানো হবে ভারতের মাদ্রাসায়

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ জানুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

ভারতের উত্তরাখণ্ডের কিছু মাদ্রাসায় আগামী মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া নতুন শিক্ষাবর্ষে শ্রী রামের জীবনী পড়ানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। উত্তরাখণ্ড ওয়াকফ বোর্ড সোমবার (২৯ জানুয়ারি) এ কথা জানিয়েছে।

ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারপারসন মুহাম্মদ শাদাব শামস জানান, আমাদের অধীনে থাকা মাদ্রাসাগুলো আধুনিক করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে মাদ্রাসায় ন্যাশনাল কাউন্সিল অব এডুকেশনাল রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিংয়ের কারিকুলাম চালু করা হচ্ছে। পড়ানো হবে শ্রী রামের গল্প ও তার গুরুত্ব।

প্রাথমিকভাবে উত্তরাখণ্ডের দেরাদুন, হরিদ্বার, উধম সিং নগর এবং নৈনিতালের একটি করে মোট চারটি মাদ্রাসায় রামের জীবনী পড়ানো হবে। পরবর্তীতে অন্য মাদ্রাসায়ও পড়ানো হবে।

২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত উত্তরাখণ্ড ওয়াকফ বোর্ড রাজ্যটির শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পরিচালিত হয়। রাজ্যটির মোট ৪১৫টি মাদ্রাসার মধ্যে ওয়াকফ বোর্ডের অধীনে রয়েছে ১১৭টি।

মুহাম্মদ শাদাব শামস উত্তরাখণ্ডের বিজেপির সাবেক মুখপাত্র। ২০২২ সালে তিনি ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারপারসন নির্বাচিত হন। দায়িত্ব গ্রহণ করে ওয়াকফ বোর্ডের মাদ্রাসাগুলোয় আরবি ও ইংরেজির পাশাপাশি সংস্কৃতও পড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন শামস।

শামসের সিদ্ধান্ত মতে, এসব মাদ্রাসায় সকাল সাড়ে ৬টা থেকে সাড়ে ৭টা পর্যন্ত ধর্মীয় শিক্ষা দেওয়া হবে। পরবর্তীতে সাধারণ কারিকুলাম পড়ানো হবে।

মাদ্রাসায় শ্রী রামের জীবনী পড়ানোর বিষয়ে শামস বলেন, অযোধ্যায় শ্রী রামের মন্দির সম্প্রতি জাঁকজমকভাবে উদ্বোধ করা হয়েছে। যেভাবে তা করা হয়েছে তাতে করে আমাদের মনে হয়েছে চারটি আধুনিক মাদ্রাসায় শ্রী রাম শিক্ষা দেওয়া উচিত। মার্চ থেকে এসব কারিকুলাম শুরু হবে।

বিজেপির সাবেক এ মুখপাত্র বলেন, আল্লামা ইকবাল পর্যন্ত রামকে ভারতের নেতা বলে উল্লেখ করেছেন। তাই ভারতের মুসলমানদের শ্রী রামকে অনুসরণ করা আমরা কর্বত্য মনে করি। কারণ আমরা আরব নই। আমরা ধর্মান্তরিত মুসলমান। মুসলমান হওয়ার পর আমাদের প্রার্থনার পদ্ধতি বদলে গেছে। তাই বলে আমরা আমাদের পূর্বপুরুষদের পরিবর্তন করতে পারি না।

নিউজ ট্যাগ: শ্রী রাম

আরও খবর
বিশ্ববাজারে আবারো কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




১৫ বছর আগে ভাতের হাহাকার ছিল, এখন তা নেই : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১৫ বছর আগে ভাতের হাহাকার ছিল। ভিক্ষুকরা তখন ভাতের ফেন চাইতো।  এখন তা নেই।

শুক্রবার সকাল ১০টায় গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। জার্মানির মিউনিখে অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর অংশ নেওয়ার অভিজ্ঞতা জানাতে এই সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়।

প্রধানমন্ত্রী মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন ২০২৪-এ যোগ দিতে ১৫ ফেব্রুয়ারি জার্মানি যান।  তিনি দেশে ফিরে আসেন ১৯ ফেব্রুয়ারি। মিউনিখে অবস্থানকালে প্রধানমন্ত্রী সম্মেলনে যোগ দেয়া ছাড়াও বিশ্বনেতাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

এসময় যুদ্ধ এবং নিষেধাজ্ঞা ও পাল্টা নিষেধাজ্ঞা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, যুদ্ধ এবং স্যাংশন ও পাল্টা স্যাংশন বিশ্বের কোনো কল্যাণ বয়ে আনতে পারে না। এগুলো বন্ধ করার জন্য আমি বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছি।


আরও খবর