আজঃ মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
শিরোনাম

আজ বিশ্ব আনফ্রেন্ড দিবস

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ নভেম্বর ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ নভেম্বর ২০২৩ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সোশ্যাল মিডিয়ায় যাদের চাইলেও এতদিন আনফ্রেন্ড করতে পারছিলেন না, আজ করে দিন। কেননা এসব বিরক্তিকর এবং অপছন্দের মানুষকে ছাঁটাই করার দিন আজ। আজ যে (শুক্রবার, ১৭ নভেম্বর) আনফ্রেন্ড দিবস।

বর্তমান সময়ে এসে সব বয়সী মানুষই সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করেন। আর এই প্ল্যাটফর্মগুলোতে পরিচিতদের পাশাপাশি অপরিচিতদের সঙ্গেও বন্ধুত্ব করা যায় সহজেই। আর এখানে আপনার যাকে ভালো লাগে না, কিংবা কেউ আপনাকে বিরক্ত করেন, এমন ব্যক্তিকে চাইলেই সরিয়ে দিতে পারেন নিজের প্রোফাইল থেকে।

আনফ্রেন্ড শব্দটির সঙ্গে আমরা পরিচিত হয়েছি সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মের মাধ্যমে। তবে ফ্রেন্ড বা বন্ধু শব্দটি অনেক আগে থেকেই আমাদের খুব পরিচিত। জানেন কি? ভাইরাল বা ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট শব্দগুলোর মতো আনফ্রেন্ড শব্দটির প্রচলন শুরু হয় এই সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম থেকেই।

অক্সফোর্ড ডিকশনারির ২০০৯ সালের সেরা শব্দ ছিল আনফ্রেন্ড। যার সংজ্ঞা হলো: ফেসবুকের মতো সোশ্যাল মিডিয়া সাইটে কাউকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দেয়া।

আনফ্রেন্ড দিবস বিশ্বের অনেক দেশেই পালন করা হয় বেশ আনন্দের সঙ্গে। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় এ দিবসটি নিয়ে নানান স্ট্যাটাস এবং লেখালেখি চোখে পড়ে।

২০১৪ সালে কৌতুক অভিনেতা জিমি কিমেল আনফ্রেন্ড ডে বা বন্ধু ছাঁটাই করার দিন প্রতিষ্ঠা করেন। দিনটি প্রচলনের উদ্দেশ্য ছিল: সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অপরিচিত ও বিরক্তিকর ব্যক্তিকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দেয়া। যাদের সারা বছর সহ্য করেছেন বা আজ কাল করে করে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিতে পারছেন না, আজ করে দিন।

আনফ্রেন্ড দিবস উদযাপন করতে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলের বন্ধু তালিকা স্ক্রল করুন। দেখবেন অনেকেই আছেন যাদের সঙ্গে কখনো কথা কিংবা যোগাযোগ হয়নি। আর ওই মানুষটির সঙ্গে কোনও কথা হবেও না - এসব অপ্রয়োজনীয় প্রোফাইলকে আপনার প্রোফাইল থেকে আনফ্রেন্ড করতে পারেন।

আবার অনেকেই আছেন বন্ধু তালিকায় তবে ওই ব্যক্তির প্রোফাইল দেখে তখন ভালো মনে হলেও দিন দিন তাকে বিরক্ত লাগছে। তার পোস্টগুলোও ভালো লাগছে না। অথবা আপনাকে টেক্সট দিয়ে বিরক্ত করছে, তাদের সবাইকে আনফ্রেন্ড করে দিন।

নিউজ ট্যাগ: আনফ্রেন্ড দিবস

আরও খবর



শীতের রাতে রাজধানীতে হঠাৎ বৃষ্টি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

রাজধানীতে হঠাৎ করেই মাঝরাতে নেমেছে বৃষ্টি। যদিও বৃষ্টির স্থায়িত্ব কম সময় ছিল, তবুও তীব্র শীতে চরম কষ্টে পড়েছে ছিন্নমূল মানুষরা। যাদের রাতযাপনের ঠিকানা ফুটপাত বা যাত্রী ছাউনি, সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছেন তারা।

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) রাত ১টার দিকে রাজধানীর হাইকোর্ট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ এলাকায় এসব মানুষের কষ্ট আর দুর্ভোগের চিত্র দেখা গেছে।

বৃষ্টিতে ফুটপাত ভিজে যাওয়ায় কষ্ট করে থাকতে হচ্ছে তাদের। অনেককেই পলিথিন টানিয়ে বৃষ্টির পানি থেকে নিজেকে রক্ষা করতে দেখা গেছে। যাদের পলিথিনও নেই তাদের কাপড়-চোপড়সহ যাত্রী ছাউনি, ভবনের দেয়ালের পাশে আশ্রয় নিতে দেখা গেছে। কাউকে আবার দেখা গেছে বৃষ্টি থেমে যাওয়ার পর ভেজা কাপড় দিয়ে কোনো রকমে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিতে।

রাস্তার পাশে থাকা এসব ছিন্নমূল মানুষ বলছেন, শীত নিবারণের যথেষ্ট কাপড় না থাকা সত্ত্বেও তারা কোনো রকমে রাস্তার পাশে ঘুমিয়ে রাত কাটাতেন। এখন বৃষ্টি নামার কারণে ঘুমানোর জায়গাটুকুও ভিজে গেছে।

ঢাকা মেডিকেল এলাকায় থাকা কাকলী পারভিন বলেন, আমরা গরিব মানুষ। কী আর করমু? ঝড়-বৃষ্টি হলেও রাস্তায় রাত কাটে। আমাদের শীত-বৃষ্টি নাই। ঘুমায়ে গেছিলাম। বৃষ্টি আসার পর টের পাইছি। খ্যাতা-কম্বল গুটায়ে বসে আছি। রাইতটা কষ্টে যাইবো।

একই এলাকায় থাকা সুরাব নামের আরেকজন বলেন, সারাদিন কাম করি। রাত হলে এইহানে আইসা ঘুমাই। এতদিন আর বৃষ্টি হয় নাই। কষ্ট কইরা থাকছি। আইজ বৃষ্টি নামলো। এহন কষ্ট আরও বাড়বো।

ছিন্নমূল এসব মানুষের পাশাপাশি ভোগান্তিতে পড়েছেন অনেক রিকশাচালকও। কয়েকজন চালককে পলিথিন দিয়ে মুড়িয়ে রিকশায় ঘুমাতে দেখা গেছে ওই এলাকায়।


আরও খবর
ছুটির দিনেও ঢাকার বায়ু ‌‘অস্বাস্থ্যকর’

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




আজকের রাশিফল: শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
জীবন ধারা ডেস্ক

Image

আজকের রাশিফলে চন্দ্র আজ কর্কট রাশি থেকে বেরিয়ে সিংহ রাশিতে প্রবেশ করবে। পাশাপাশই এদিন রবি যোগ, পুষ্য যোগ, শোভন যোগ ও অশ্লেষা নক্ষত্রের শুভ সংযোগ থাকবে। যার ফলে শুক্রবারের দিনটি বেশ কিছু রাশির জাতকরদের জন্য শুভ। জীবনের বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাফল্য লাভ করতে পারেন। পাশাপাশি আটকে থাকা কাজও সম্পন্ন হবে। তবে কিছু কিছু রাশির জাতকদের এ সময়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

মেষ/ Aries রাশিফল ( March 21 April 20 )

আজ, আপনি অর্থ জমা এবং সঞ্চয় করার দক্ষতা শিখতে পারেন এবং এটিকে সঠিক কাজে লাগাতে পারেন। ঘরের তরফে ঝামেলা পাকিয়ে উঠবে বলে মনে হচ্ছে কাজেই আপনি কি বলছেন সে ব্যাপারে যত্নশীল হন। আজ আপনার উপার্জন ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য আপনার সেই মনোবল এবং ব্যবহারিক জ্ঞান থাকবে

বৃষ/ Taurus রাশিফল ( April 21 May 21 )

আজ, আপনি এবং আপনার ভালবাসার সঙ্গী ভালোবাসার সমুদ্র মন্থন করবেন। আপনার বৈবাহিক জীবনের উপর আসা বিষয়গুলি সত্যিই অবিশ্বাস্য। অলীক ভাবনা আপনাকে সাহায্য করবে না। আপনার উচিত পরিবারের প্রত্যাশামাফিক চলার জন্য কিছু করা।

মিথুন/ Gemini রাশিফল ( May 22 June 21 )

প্রেমের উচ্চতার অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। ব্যবসায়ীদের জন্য ভালো দিন। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে গৃহীত কোন আকস্মিক সফর ইতিবাচক ফল প্রদান করবে। দিন কে কি করে ভালো করতে হবে তার জন্য আপনাকে নিজের জন্যও সময় বার করা শিখতে হবে।

কর্কট/ Cancer রাশিফল ( June 22 July 23 )

নিজেকে উদ্বুদ্ধ রাখাই সবচেয়ে শ্রেয়। বাজি বা জুয়া খেলায় যারা তাদের অর্থ ব্যয় করেছিল তারা আজ ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে। বন্ধুদের থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। প্রেম-সাহচর্য্য এবং বন্ধন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সিংহ/ Leo রাশিফল ( July 24 August 23 )

যদি আপনি আজ সত্যিই উপকৃত হতে চান- তাহলে অন্যদের দেওয়া উপদেশ শুনুন। আজ, আপনি আপনার প্রাণের বন্ধু কি মনে করেন তা জানতে পারবেন। আপনার কম জীবনীশক্তি সিস্টেমের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী বিষের মত কাজ করবে। নিজের কিছু সৃষ্টিশীল কাজ নিয়োজিত রাখা ভাল।

কন্যা/ Virgo রাশিফল ( August 24 September 23 )

আপনার মনের শান্তি নষ্ট হতে দেবেন না। আপনার প্রণয়ী সমস্ত দিন মারাত্মকভাবে আপনি মিস্ করবে। একটি সারপ্রাইজ পরিকল্পনা করুন এবং এটিকে আপনার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর দিন তৈরি করুন। আপনার নতুন পরিকল্পনা এবং উদ্যোগ সম্পর্কে সঙ্গীরা উত্সাহী হবেন।

তুলা/ Libra রাশিফল ( Sept 24 Oct 23)

আগামী সময়ে সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে আর কিছুই না। আপনার স্ত্রীর শরীর একটু খারাপ হতে পারে। অপ্রয়োজনীয় ভাবনায় শক্তিক্ষয় না করে একে সঠিক দিশা দিন। টাকাপয়সা লাভ আপনার প্রত্যাশামাফিক হবে না। আপনার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কিছু অসুবিধা থাকবে।

বৃশ্চিক/ Scorpio রাশিফল ( Oct 24 Nov 22 )

প্রেমের মেজাজে আকস্মিক পরিবর্তন আপনাকে অত্যন্ত হতাশ করতে পারে। কোন বন্ধুর কাছ থেকে মূল্যবান সমর্থন আপনাকে পেশাদার বিষয়ে সাহায্য করবে। যদি আপনি ভাবেন বন্ধু বান্ধবের সাথে প্রয়োজনের বেশি সময় কাটানো আপনার জন্য ভালো তাহলে আপনি ভুল।

ধনু/ Sagitarious রাশিফল ( Nov 23 Dec 22 )

যা আপনাকে নিজের সম্বন্ধে ভালো বোধ করায় এমন কিছু করার পক্ষে এটি চমৎকার দিন। যারা বিবাহিত তাদের আজকের বাচ্চাদের লেখাপড়ার জন্য প্রচুর অর্থ ব্যয় করতে হতে পারে। পুরোনো যোগাযোগ এবং বন্ধুরা সহায়ক হবে।

মকর/ Capricorn রাশিফল ( Dec 23 Jan 20 )

আপনার অনুপস্থিতিতেও সবকিছু মসৃণভাবেই চলবে। যদি-কোন অজানা কারণে-কোন সমস্যা দেখা দেয় তাহলে আপনি ঘুরে এসে এটি সহজেই ঠিক করবেন। প্রাণোচ্ছল হাসিপূর্ণ একটি দিন যেখানে বেশির ভাগ জিনিসই আপনার ইচ্ছা অনুসারে এগোবে। আজ আত্মীয় আপনার স্ত্রীর সাথে বিতর্কের একটি কারণ হতে পারে।

কুম্ভ/ Aquarious রাশিফল ( Jan 21 Feb 19 )

আপনার অহং আপনাকে অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ জিনিস ভাগ করতে দেবে না। ঝামেলা বাড়বে কেবল। ঘরে সমস্যার উত্থান হতে পারে-কিন্তু ছোট ছোট সমস্যা নিয়ে আপনার সঙ্গীকে সমালোচনা করা পরিত্যাগ করুন। যদি আপনি একদিনের ছুটিতে যেতে চান তাহলে চিন্তা করবেন না।

মীন/ Pisces রাশিফল ( Feb 20 Mar 20 )

অত্যিক উত্তেজনা এবং বিস্ফোরক নেশা আপনার স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি করতে পারে। এটি এড়াতে আপনার আবেগগুলিকে নিয়ন্ত্রণ করুন। আজ, আপনি অর্থের গুরুত্ব এবং অযথা এটি কীভাবে ব্যয় করা আপনার ভবিষ্যতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে তা বুঝতে পারবেন। আপনার পরিবারের সদস্যদের সাথে আপনার সমস্যাগুলি ভাগ করে নেবেন।


আরও খবর
খাতনা করার আগে-পরে যেসব বিষয় জানা জরুরি

সোমবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

নারীর জন্য প্রয়োজনীয় পাঁচ ভিটামিন

রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪




স্বরূপকাঠিতে গৃহবধুর আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
হযরত আলী হিরু, স্বরূপকাঠি

Image

পিরোজপুরের স্বরূপকাঠিতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে শাহীনুর বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে। রবিবার সন্ধ্যায় উপজেলার আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নে খায়েরকাঠি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। শাহীনুর ওই গ্রামের নুর হোসাইনের স্ত্রী।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য পিরোজপুর মর্গে পাঠিয়েছে। আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি।

পুলিশ ও এলাকাবাসি সুত্রে জানাগেছে, ঐদিন সন্ধ্যায় শাহীনুরকে ঘরে দেখতে না পেয়ে স্বজনরা খোঁজাখুজি শুরু করে। এক পর্যায়ে ঘরের পাশের একটি লকট গাছে শাহীনুরকে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে স্বজনরা সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

নেছারাবাদ থানার ওসি (তদন্ত) এইচ এম শাহিন জানান, এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তে লাশ পিরোজপুর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: স্বরূপকাঠি

আরও খবর



রয়্যাল এনফিল্ডের মডেলগুলোতে কী কী ফিচার পাবেন মোটরসাইকেলপ্রেমীরা

প্রকাশিত:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রাচীনতম ব্রিটিশ টু-হুইলার ব্র্যান্ড রয়্যাল এনফিল্ড-৩৫০-এর মাধ্যমে মোটরসাইকেলের ইঞ্জিন ক্ষমতার নতুন মাত্রায় পৌঁছতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। ২০২৩ সালের ৭ সেপ্টেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ৩৭৫ সিসির (কিউবিক সেন্টিমিটার) মাইলফলকের দিকে এই যুগান্তকারী পদক্ষেপটি সম্পন্ন হতে যাচ্ছে চলতি বছরের জুলাইতে। স্থানীয়ভাবে ইফাদ মোটরস নামক একটি মোটরসাইকেল কারখানাজাত প্রতিষ্ঠান দেশের বাজারে চালু করবে রয়্যাল এনফিল্ড

ইতোমধ্যে জানানো হয়েছে যে, বিশ্ব বাজারে এর নামকরা ক্লাসিক, বুলেট, হান্টার ও মিটিওর সিরিজগুলো দেশের ভেতরেই প্রস্তুত করা হবে। কী কী ফিচার পাওয়া যাবে রয়্যাল এনফিল্ড-৩৫০ মোটরসাইকেলের মডেলগুলোতে? আর কতটুকু নাগালের মধ্যে থাকতে যাচ্ছে এগুলোর দাম। চলুন জেনে নেওয়া যাক।

নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের ঐতিহ্যের সঙ্গে আধুনিক প্রযুক্তির এক সঙ্গত সংমিশ্রণ রয়্যাল এনফিল্ড ক্লাসিক ৩৫০। বাতাস চলাচলের মাধ্যমে শীতলীকরণ প্রক্রিয়া সমৃদ্ধ একক সিলিন্ডার ও ৩৪৯ সিসির ইঞ্জিন একটি আদর্শ মোটরসাইকেল হিসেবে মডেলটিকে ন্যায্যতা দেয়।

৬,১০০ আরপিএম (ইভোলিউশন পার মিনিট)-এর সঙ্গে রয়েছে ২০.২ বিএইচপির (ব্রেক হর্সপাওয়ার) হর্সপাওয়ার এবং চার হাজার আরপিএমের সঙ্গে প্রতি ফুট দূরত্বে ১৯ পাউন্ডের টর্ক। তাই শহুরে যানজট বা খোলা-রাস্তা উভয় ক্ষেত্রেই চালনায় ভারসাম্য নিয়ে কোনো চিন্তা নেই।

রয়্যাল এনফিল্ড ক্লাসিক ৩৫০ : এনফিল্ড ঐতিহ্যের সমগ্র নান্দনিকতার ছোঁয়া পড়েছে নকশায়। স্টিলের ফ্রেমটি চালক ও যাত্রী উভয়ের জন্যই স্বাভাবিক হ্যান্ড গ্রিপ্স, হ্যান্ডেলবার ও সামঞ্জস্যপূর্ণ ফুট পেগ নিশ্চিত করে। বাইক চড়ার মুহূর্তগুলোকে আরামদায়ক করার জন্য সামনের সাসপেনশনে রয়েছে ৪১ মিলিমিটার টেলিস্কোপিক ফর্ক আর পেছনেরটাতে একটি টুইন সাইড সুইং আর্ম। যথাযথ নিরাপত্তার স্বার্থে এবিএস (অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম) হিসেবে কাজ করবে সামনে এবং পিছনে উভয় দিকের হাইড্রোলিক ডিস্ক ব্রেক। সতর্ক সংকেত দেওয়ার জন্য যন্ত্রাংশ প্যানেলে রয়েছে চিরাচরিত স্পিডোমিটার ও একটি ফুয়েল লেভেল লাইট।

এছাড়াও সঙ্গে বহন করার জন্য আছে হার্ডসাইড কেস, পেছনের র‍্যাক ও ব্যাগ লাইনারসহ আনুষঙ্গিক নানাবিধ সংযোজনের ব্যবস্থা।

রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট ৩৫০ : বুলেট মডেলকে রয়্যাল এনফিল্ড ঐতিহ্যের প্রতীক বলা যেতে পারে। ক্লাসিকের মতো এটাতেও রয়েছে ৩৪৯ সিসির জে-সিরিজ ইঞ্জিন ও ৬,১০০ আরপিএম-এ ২০.২ বিএইচপি হর্সপাওয়ার। পাশাপাশি এটি চার হাজার আরপিএম-এ প্রতি ফুট দূরত্বে ১৯.৯ পাউন্ড টর্ক দিতে সক্ষম। অর্থাৎ উচ্চগতির জন্য নয়; এটি বরং প্রতি ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ মাইল যাত্রার জন্য উত্তম।

সিরিজটি ইতিহাসের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী মোটরসাইকেল ডিজাইন। ১৯৫৫ সালে মূল প্রতিষ্ঠান এনফিল্ড সাইকেল কোম্পানি ভারতের মাদ্রাজ মোটরসের সঙ্গে অংশীদারিত্বে গঠন করেছিল এনফিল্ড অব ইন্ডিয়া। মাদ্রাজ (বর্তমানে চেন্নাই) কেন্দ্রিক এনফিল্ড সাইকেলের উত্তরসূরি তাদের কার্যক্রম শুরু করেছিল এই রয়্যাল এনফিল্ড বুলেট অ্যাসেম্বলির মাধ্যমেই। বুলেটের চিত্তাকর্ষক নকশায় এখনও সেই ঐতিহাসিক ছাপ বিদ্যমান, যা অনায়াসেই যেকোনো মোটরসাইকেল চালকের মন জয় করে নেয়। বুলেটের ভিনদেশী নকশা এবং ইউএসবি চার্জিং পোর্ট বিশেষভাবে নজর কাড়ে।

স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ হ্যান্ডলিং, সাসপেনশন, এবং ডুয়্যাল সিট সেটআপ একা একা বা কাউকে সঙ্গে নিয়ে চালানো উভয় ক্ষেত্রে ন্যাভিগেশনটা চালকের জন্য সহজাত করে তোলে। সিটটি মোটা-প্যাডের হওয়ায় তা ৮০৫ মিলিমিটার উচ্চতায় চালক ও যাত্রী দুইজনের জন্যই বেশ সহজসাধ্য এবং আরামপ্রদ। ১৩ লিটার ধারণক্ষমতার জ্বালানি ট্যাঙ্ক একবার ভরে নিলে ৩০০ মাইলেরও বেশি নিশ্চিন্তে ভ্রমণ করা যাবে।

রয়্যাল এনফিল্ড হান্টার ৩৫০ : উন্নত প্রযুক্তিতে সুসজ্জিত হওয়ায় রয়্যাল এনফিল্ড পরিবারের সবচেয়ে আধুনিক সদস্য হচ্ছে হান্টার। অবশ্য ক্লাসিক মডেলের ধারা অব্যাহত রেখে এর একক সিলিন্ডার ও ৩৪৯ সিসির ইঞ্জিনের ক্ষমতা একই রাখা হয়েছে। অর্থাৎ ৬,১০০ আরপিএমে ১৪.৮৭ কিলোওয়াট এবং চার হাজার আরপিএমে ২৭ এনএম টর্ক।

সামগ্রিক নকশা অনুসারে এই সিরিজ শহুরে পরিবেশের জন্য উপযুক্ত। স্টিলের ফ্রেমটি ন্যাভিগেশন এবং চালক ও যাত্রী দুজনের ফুটপেগের সহায়ক। এখানেও আছে সামনের সাসপেনশনে টেলিস্কোপিক ফর্ক এবং পেছনের সাসপেনশনে টুইন সাইড সুইং আর্ম।

এর আকার ও সর্বোচ্চ ১৮১ কেজি ওজন শামাল দিতে কোনো প্রাপ্তবয়স্ক মোটরসাইকেল চালককে হিমশিম খেতে হয় না। ৩১.১ ইঞ্চি বা ৭৯০ মিলিমিটারের উচ্চতায় বসার জায়গাটি যেকোনো চালক ও যাত্রীর জন্য স্বাভাবিক। তাছাড়া চলন্ত অবস্থায় সুরক্ষার জন্য সামনে এবং পিছনে এবিসসহ হাইড্রোলিক ডিস্ক ব্রেক তো থাকছেই। হান্টার-৩৫০-এর যন্ত্রাদি ডিজিটাল হওয়ায় পাওয়ার আউটলেট, হার্ডসাইড কেস এবং স্টোরেজ কভারের সুবিধা আছে। অ্যালুমিনিয়ামের চাকাগুলোতেও লাগানো আছে টিউবলেস টায়ার।

অন্যান্য সিরিজগুলোর সঙ্গে খুব একটা তারতম্য নেই রয়্যাল এনফিল্ড মিটিওর ৩৫০-এর। ৩৪৯ সিসির একক সিলিন্ডার ইঞ্জিনে অপরিবর্তিত আছে চার হাজার আরপিএমে ২৭ এনএম (নিউটন-মিটার) টর্ক এবং ৬,১০০ আরপিএমে ২০.২ বিএইচপির ক্ষমতা। টেকসই ও পালিশ করা সর্বাঙ্গে জেনুইন মোটরসাইকেল এক্সেসরিজের (জিএমএ) বিশাল বহর। ইঞ্জিন এবং গিয়ারের মাঝে সুষ্ঠু যোগসাজশ এক মসৃণ রাইডিং অভিজ্ঞতা দেয়। প্রতি ঘণ্টায় গতি ৯০ থেকে ১১০ কিলোমিটার ছাড়িয়ে গেলেও কম্পন অনুভূত হবে না।

মিটিওর-৩৫০ ও সমস্বরে জানান দেয় স্টিল ফ্রেম এবং সামনের ও পেছনের সাসপেনশনে যথাক্রমে টেলিস্কোপিক ফর্ক ও টুইন সাইড সুইং আর্মের উপস্থিতি। গ্রাউন্ড থেকে ৩০.১ ইঞ্চি বা ৭৬৪.৫ মিলিমিটারের উচ্চতায় ডুয়্যাল সিট এবং সামনের-পেছনের দুই চাকাতে এবিএসের হাইড্রোলিক ডিস্ক ব্রেক পূর্ণ নিরাপত্তার পরিপূরক। স্পিডোমিটার, ট্যাকোমিটার, ট্রিপ ওডোমিটার, কম্পাস এবং ন্যাভিগেশন সিস্টেমের ডিজিটাল যন্ত্রাংশ বিশ্বমানের সুবিধা হিসেবে আলাদা আকর্ষণ রাখে।

রয়্যাল এনফিল্ড-৩৫০ এর সম্ভাব্য মূল্য : পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে বিচিত্র রঙ ও এবিএস চ্যানেল ভেদে ক্লাসিক সিরিজের দাম চলছে এক লাখ ৯৩ হাজার ৮০ রুপি থেকে দুই লাখ ২৪ হাজার ৭৫৫ রুপি পর্যন্ত। যেটি বাংলাদেশি টাকায় আড়াই লাখ থেকে দুই লাখ ৯৭ হাজার ৩৬ টাকা (১ ভারতীয় রুপি = ১.৩২ বাংলাদেশি টাকা)। বেশকিছু নতুন রঙের ভার্সন সংযোজন হয়ে বুলেট মডেলগুলোর মূল্য দাঁড়িয়েছে এক লাখ ৭৩ হাজার ৫৬২ থেকে এক লাখ ৯৭ হাজার ৪৩৬ রুপি, যা প্রায় দুই লাখ ২৯ হাজার ৩৭৯ টাকা থেকে দুই লাখ ৬০ হাজার ৯৩১ টাকার সমপরিমাণ।

এক লাখ ৪৯ হাজার ৯০০ থেকে ১ লাখ ৭৪ হাজার ৬৫৫ রুপি (প্রায় এক লাখ ৯৮ হাজার ১০৭ থেকে দুই লাখ ৩০ হাজার ৮২৩ টাকা) দামে ভারতীয় গ্রাহকদের নিকট পরিবেশিত হচ্ছে বর্ণীল হান্টারগুলো। আর দুই লাখ পাঁচ হাজার ৯০০ থেকে দুই লাখ ২৯ হাজার ৯০০ রুপি (প্রায় দুই লাখ ৭২ হাজার ১১৭ টাকা থেকে তিন লাখ তিন হাজার ৮৩৫ টাকা) দামের পরিধি নিয়ে মোটরসাইকেল চালকদের নজর কেড়েছে অবকাশ রাইডিংয়ের মিটিওর-৩৫০ ক্রুজগুলো।

বাংলাদেশে মোটরসাইকেলগুলোর দাম নির্ভর করছে উদ্বোধনকালীন বাজার পরিস্থিতি এবং ডলার মূল্যের ওপর। ইফাদ মোটরসের তথ্যমতে, ডলার রেট প্রায় ১২৫ (বাংলাদেশি) টাকা হলে রয়্যাল এনফিল্ড-৩৫০ সিরিজগুলোর দাম হতে পারে প্রায় পাঁচ থেকে ছয় লাখ টাকা।

পরিশিষ্ট : রয়্যাল এনফিল্ড-৩৫০ এর চারটি সিরিজই প্রতিনিধিত্ব করছে বিশ্বমানের মোটরসাইকেল শিল্পকে। তবে বাংলাদেশের প্রতিক্রিয়ায় বৈচিত্র্য আসতে পারে মোটরসাইকেলপ্রেমীদের ভিন্ন চাহিদার ভিত্তিতে। বয়সের সীমারেখা নির্বিশেষে ঐতিহ্যবাহী মোটরসাইকেল চালকরা তাদের নস্টালজিয়া অনুশীলনে সাদরে গ্রহণ করে নিতে পারেন ক্লাসিক মডেলটিকে। সাবলীলতা ও নির্ভরযোগ্যতায় ব্যবহারের প্রতি গুরুত্ব দেওয়া শ্রেণির প্রথম পছন্দ হতে পারে বুলেট সিরিজ। শহুরে চালকদের বিশেষ করে স্বল্প বয়সীদের পছন্দের তালিকায় শীর্ষস্থানটি দখল করতে পারে হান্টার ও মিটিওর। তবে এবিএস থাকলেও এগুলোর উচ্চগতি বাংলাদেশের মহাসড়কগুলোতে সতর্কতার দাবি রাখে। আর খারাপ সড়ক বা গ্রাম্য পথে দূর পাল্লায় হান্টারকে পরখ করে দেখা মোটেই উচিত হবে না।

নিউজ ট্যাগ: রয়্যাল এনফিল্ড

আরও খবর
হ্যালোইন কী, কেন পালিত হয় এ উৎসব?

বুধবার ০১ নভেম্বর ২০২৩




যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় ইরাকে বেসামরিক নাগরিকসহ ১৬ জন নিহত

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় ইরাকে বেসামরিক নাগরিকসহ অন্তত ১৬ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ২৫ জন। এ হামলার নিন্দা জানিয়ে দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়, এটি ইরাকের সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধে। এই হামলার ফলে এই অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য ভয়াবহ পরিণতি অপেক্ষা করছে। খবর আল জাজিরার

আজ শনিবার এক সরকারি মুখপাত্র বলেছেন, বেসামরিক ও নিরাপত্তা উভয় এলাকা লক্ষ্য করে যুক্তরাষ্ট্র বোমা হামলা করেছে। হামলায় অন্তত ৬ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে বেসামরিক নাগরিকও রয়েছেন। এছাড়াও হামলায় মোট ২৫ জন আহত হয়েছেন।

গাজায় ইসরায়েলের যুদ্ধের মধ্যে জর্ডানে আমেরিকান সৈন্যদের হত্যার প্রতিক্রিয়া হিসেবে ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান নিয়ন্ত্রিত লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করে যুক্তরাষ্ট্র। এজন্য আঘাত করার পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আরও প্রতিশোধমূলক হামলার সতর্ক করেছিল।

আরও পড়ুন>> ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে দুই লাখ বাড়ি হস্তান্তর করবে তুরস্ক

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শিয়া আল-সুদানির কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, এই হামলা ইরাক ও এ অঞ্চলের নিরাপত্তাকে অতল গহ্বরের দ্বারপ্রান্তে ফেলবে। এ সময় বাগদাদের সঙ্গে বিমান হামলার সমন্বয়ে ওয়াশিংটনের দাবিকে মিথ্যাআন্তর্জাতিক জনমতকে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, এই অঞ্চলে মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের উপস্থিতি ইরাকের নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতাকে হুমকির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই হামলার মাধ্যমে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংঘাতে ইরাককে জড়িত করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে বাগদাদের মার্কিন চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্সকে ডেকে পাঠায় ইরাকের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গত ২৮ জানুয়ারি জর্ডানের একটি ঘাঁটিতে ড্রোন হামলায় তিন মার্কিন সেনা নিহত হন। এতে আহত হন আরও ২৫ সেনা। ইরান সমর্থিত গোষ্ঠী এই হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। একই সঙ্গে এই ঘটনায় জড়িতদের চরম মূল্য দিতে হবে বলেও হুঁশিয়ার করেন তিনি।

গত ১৭ অক্টোবর থেকে মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা চলছে। ২৮ জানুয়ারির হামলার আগে আরও অন্তত দেড়শ হামলা হয়েছে। মূলত গত বছরের ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামাসের হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র বিমানবাহী রণতরী, এয়ার ফোর্স ফাইটার স্কোয়াড্রন এবং অন্য সেনাদের মধ্যপ্রাচ্যে পাঠানোর পর থেকেই হামলা হয়ে আসছে।

জর্ডানে মোতায়েন রয়েছে অন্তত ৩ হাজার মার্কিন সেনা। তাদের ঘাঁটি ইরাক, ইসরায়েল, সিরিয়া, ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীর অঞ্চল এবং সৌদি আরবের সীমান্তবর্তী এলাকায় অবস্থিত। 

আরও পড়ুন>> স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে ধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতাসহ রিমান্ডে ৪ জন

হামাস-ইসরায়েল যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর এই প্রথম মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন ঘাঁটিতে হামলায় সেনাদের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। এর আগেও মধ্যপ্রাচ্যে বিভিন্ন জায়গায় মার্কিন ঘাঁটিতে হামলা হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী হতাহতের কোনো খবর দেয়নি।

তবে সম্প্রতি ইরানের অস্ত্রবাহী জাহাজে অভিযান চালাতে গিয়ে নিখোঁজ দুই নেভিসিলকে ১০ দিন পর মৃত ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্র। তারা সাগরের ঢেউয়ে নিখোঁজ হয়েছিল। টানা ১০ দিন অনুসন্ধান চালিয়েও তাদের সন্ধান মেলেনি।


আরও খবর
পেট্রোল রপ্তানি নিষিদ্ধ করল রাশিয়া

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

বাড়িঘর পুড়িয়ে ছাই করে দিচ্ছে জান্তা সরকার

মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪