আজঃ বুধবার ২৫ মে ২০২২
শিরোনাম

আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি: হানিফ

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগ নির্বাচন নিয়ে কোনো ফন্দিফিকির করে না, এ অভ্যাস বিএনপির আছে। আমরা আগামী নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করতে যা যা করা দরকার তা করব বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ।

সোমবার (৯ মে) বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়ায় বীজ প্রত্যয়ন এজেন্সির নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনের সময় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, আওয়ামী লীগ এ দেশের একমাত্র দল যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে এই দল স্বাধীনতা উত্তরকাল থেকে এ পর্যন্ত নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা হস্তান্তর করে এসেছে।

তিনি আরও বলেন, ২০০১ সালের নির্বাচনে ষড়যন্ত্রের কাছে পরাজিত হওয়ার পরও শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিল আওয়ামী লীগ। এর বাইরে বাংলাদেশে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরের কোনো নজির নেই। তবে ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিয়েছে। এখন মুখে যাই বলুক, আগামী নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কুষ্টিয়া-৪ (খোকসা-কুমারখালী) আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ সরকারি কর্মকর্তারা।


আরও খবর



লক্ষ বছর আগের শিশুর দাঁত খুঁজে পেলেন বিজ্ঞানীরা

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সম্প্রতি লাওসের একটি গুহায় এক লক্ষ ৩০ হাজার বছরের পুরনো একটি মানুষের দাঁত খুঁজে পেলেন বিজ্ঞানীরা। প্রাথমিক ভাবে এটি একটি শিশুর দাঁত বলে মনে করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার একটি গবেষণায় জানানো হয়েছে, উদ্ধার হওয়া এই শিশুর দাঁত মানুষের বিবর্তন সম্পর্কে বিজ্ঞানীদের আরও বেশি তথ্য জানতে সাহায্য করবে।

গবেষকদের দাবি, এই দাঁতটি মানুষের পূর্বপুরুষ ডেনিসোভান প্রজাতির। ডেনিসোভান প্রজাতি মানবজাতির বিলুপ্ত একটি শাখা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার উষ্ণ ক্রান্তীয় অঞ্চলে এই প্রজাতির বসবাস ছিল বলে মনে করা হয়।

মানবজাতির বিলুপ্ত আর একটি শাখা নিয়ানডারথালদের সঙ্গে ডেনিসোভান শাখার সম্পর্ক ছিল বলে ধারণা করা হয়। যদিও ডেনিসোভান শাখা সম্পর্কে খুবই কম তথ্য রয়েছে বিজ্ঞানীদের হাতে।

২০১০ সালে সাইবেরিয়ার গুহায় কাজ করার সময় ডেনিসোভান শাখার খোঁজ পান গবেষকরা। এর আগে এই শাখার বিষয়ে বিজ্ঞানীদের কোনও ধারণা ছিল না। গুহার মধ্যে এক মহিলার আঙুলের হাড় খুঁজে বের করার সময় তাঁরা প্রথম এই শাখার খোঁজ পান।সাইবেরিয়ার ডেনিসোভা গুহায় প্রথম সন্ধান পাওয়া যায় বলে মানুষের পূর্বপুরুষের এই প্রজাতির নাম দেওয়া হয়েছে ডেনিসোভান।

শুধুমাত্র একটি আঙুলের হাড় এবং একটি ছোট দাঁতের জিনের গঠন নিয়ে গবেষণা করে বিজ্ঞানীরা পুরো প্রজাতি সম্পর্কে সম্যক ধারণা পেয়েছেন।

পরে ২০১৯ সালে তিব্বত মালভূমিতে একটি চোয়ালের হাড় খুঁজে পাওয়া যায়। এই চোয়ালের হাড়ও ডেনিসোভান শাখার বলে গবেষকরা জানান। গবেষকরা এ-ও ধারণা করেন, এই প্রজাতির কিছু মানুষ চিনেও বসবাস করতেন।

ডেনিসোভানরা অদৃশ্য হওয়ার আগে সামান্য চিহ্ন রেখে গিয়েছিল। তবে ডিএনএ-র কোনও খোঁজ বিজ্ঞানীদের কাছে ছিল না।

অস্ট্রেলিয়ান এবং পাপুয়া নিউ গিনির আদিবাসীদের মধ্যে মানুষের পূর্বপুরুষের ডিএনএ-র পাঁচ শতাংশ পর্যন্ত রয়েছে।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় মানুষের আধুনিক পূর্বপুরুষের সঙ্গে ডেনিসোভানদের যোগ ছিল বলেও বিজ্ঞানী ক্লেমেন্ট জানোলি জানিয়েছেন। ফ্রেঞ্চ ন্যাশনাল সেন্টার ফর সায়েন্টিফিক রিসার্চ-এর গবেষক ক্লেমেন্ট জানান, সাইবেরিয়া বা তিব্বতের পর্বত থেকে দূরে এশিয়া মহাদেশের এই অংশে ডেনিসোভানদের উপস্থিতির কোনও প্রমাণ নেই।

তবে এই ধারণা ভুল প্রমাণিত হয় যখন বিজ্ঞানীদের একটি দল উত্তর-পূর্ব লাওসের কোবরা গুহায় অনুসন্ধান শুরু করেন। ২০১৮ সালে টাম পা লিং গুহার পাশের একটি গুহায় এই দাঁতটি খুঁজে পাওয়া যায়।

দাঁতের বাইরের অংশের প্রোটিন পরীক্ষা করার পর গবেষকরা জানিয়েছেন, এই দাঁত সম্ভবত সাড়ে তিন থেকে সাড়ে আট বছর বয়সি এক নাবালিকার। তাপ এবং আর্দ্রতার কারণে দাঁতটির ডিএনএ অনেকাংশেই নষ্ট হয়ে যায়।

দাঁতের আকৃতি বিশ্লেষণ করার পর বিজ্ঞানীরা মনে করছেন এই দাঁত সম্ভবত ডেনিসোভান মানবের। এক লক্ষ ৩০ হাজার বছর থেকে এক লক্ষ ৬৪ হাজার আগে ডেনিসোভান মানবের অস্তিত্ব ছিল বলেও ধারণা বিজ্ঞানীদের।

নিউজ ট্যাগ: শিশুর দাঁত

আরও খবর



সহিংসতার মধ্যেও শ্রীলঙ্কায় যেতে চায় অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীলঙ্কায় চলমান সহিংসতায় নিবিড় পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড। তবে এই সহিংসতার মধ্যেও শ্রীলঙ্কা সফরের ব্যাপারে পূর্ণ আশাবাদী তারা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বাস, পূর্ব নির্ধারিত সূচিতেই হবে তাদের শ্রীলঙ্কা সফর। সোমবার (৯ মে) রাতে বিক্ষোভকারীদের হামলার পর পদত্যাগ করেছেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকশে। গত কয়েক মাস ধরেই অর্থনৈতিক মন্দার কারণে অস্থির অবস্থা বিরাজ করছে শ্রীলঙ্কায়। এরই মধ্যে নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা করেছে তারা।

রাজাপাকশের পদত্যাগের পর সরকারি সমর্থকরা বিক্ষোভকারীদের ওপর পাল্টা হামলা করেন। যার ফলে সারা দেশে কারফিউ জারি করে রাজধানী কলম্বোয় আর্মি মোতায়েন করা হয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, এই সহিংসতায় এরই মধ্যে চারজনের প্রাণহানি ঘটেছে। এমতাবস্থায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন জাগে, অস্ট্রেলিয়া দল সফরের জন্য রাজি হবে তো? কেননা এর আগে নিরাপত্তার কারণে ২০১৬ সালে বাংলাদেশ সফরসহ বেশ কয়েকটি ভিন্ন সফর বাতিল ও স্থগিতের নজির রয়েছে তাদের।

তবে এবার ভিন্ন অবস্থানে অসিরা। শ্রীলঙ্কায় এখন সহিংসতা চললেও, সফরের ব্যাপারে আশাবাদী তারা। আগামী ৭ জুন থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত শ্রীলঙ্কায় তিন টি-টোয়েন্টি, পাঁচ ওয়ানডে ও দুই টেস্ট খেলার কথা রয়েছে অসিদের। শ্রীলঙ্কা সফরের জন্য এরই মধ্যে ভিন্ন সিরিজের জন্য ভিন্ন ভিন্ন শক্তিশালী স্কোয়াড ঘোষণা করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এই সফরে কলম্বোয় ১৬ দিন থাকতে হবে অস্ট্রেলিয়া দলকে। আর মূলত কলম্বোতেই চলছে মূল সহিংসতা। তবু সফরের ব্যাপারে আশাবাদী বোর্ডের কর্মকর্তারা।

অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ক্রিকেটডটকমডটএইউ তাদের প্রতিবেদনে জানাচ্ছে, গত মাসে অর্থনৈতিক অস্থিরতার মাঝেই শ্রীলঙ্কা সফর করেছিলেন বোর্ডের নিরাপত্তা প্রধান স্টুয়ার্ট বেইলি। তার কাছে শ্রীলঙ্কাকে সফরের জন্য নিরাপদই মনে হয়েছে। তবে এখন নতুন করে সহিংসতা শুরু হওয়ায় শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতি নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। যাতে যেকোনো জরুরি পরিস্থিতি সামনে এলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারে তারা। তাই এ সফরের ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়া আশাবাদী হলেও, একপ্রকার অনিশ্চয়তা থেকেই যাচ্ছে।

শ্রীলঙ্কা সফরে অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), শন অ্যাবট, অ্যাশটন অ্যাগার, জশ হ্যাজলউড, জশ ইংলিস (উইকেটরক্ষক), মিচেল মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, ঝাই রিচার্ডসন, কেইন রিচার্ডসন, স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টয়নিস, মিচেল সুয়েপসন, ডেভিড ওয়ার্নার ও ম্যাথু ওয়েড (উইকেটরক্ষক)।

শ্রীলঙ্কা সফরে অস্ট্রেলিয়ার ওয়ানডে স্কোয়াড: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), অ্যাশটন অ্যাগার, অ্যালেক্স ক্যারে (উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, ক্যামেরন গ্রিন, জশ হ্যাজলউড, ট্রাভিস হেড, জশ ইংলিস (উইকেটরক্ষক), মার্নাস লাবুশেন, মিচেল মার্শ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, স্টিভেন স্মিথ, মিচেল স্টার্ক, মার্কাস স্টয়নিস, মিচেল সুয়েপসন ও ডেভিড ওয়ার্নার।

শ্রীলঙ্কা সফরে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট স্কোয়াড: প্যাট কামিন্স (অধিনায়ক), অ্যাশটন অ্যাগার, স্কট বোল্যান্ড, অ্যালেক্স ক্যারে, ক্যামেরন গ্রিন, জশ হ্যাজলউড, ট্রাভিস হেড, জশ ইংলিস (উইকেটরক্ষক), উসমান খাজা, মার্নাস লাবুশেন, নাথান লিয়ন, মিচেল মার্শ, স্টিভেন স্মিথ (সহ-অধিনায়ক), মিচেল স্টার্ক, মিচেল সুয়েপসন ও ডেভিড ওয়ার্নার।


আরও খবর



পুতিনের আগ্রাসী ‘যুদ্ধের প্রতিবাদে’ রুশ কূটনীতিকের পদত্যাগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ | ২১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিচারবুদ্ধিহীন যুদ্ধের প্রতিবাদে পদত্যাগ করছেন জেনেভায় জাতিসংঘ কার্যালয়ের রুশ কূটনীতিক বরিস বোনদারেভ। একজন ঊর্ধ্বতন রুশ কূটনীতিক হয়েও কেন যুদ্ধের জেরে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির কাছে বোনদারেভ সে কারণ ব্যাখ্যা করেছেন।

বোনদারেভ বলেন, তিনি জানতেন, তাঁর কথা বলার সিদ্ধান্তের অর্থ হতে পারে ক্রেমলিন এখন তাঁকে বিশ্বাসঘাতক মনে করবে। কিন্তু, বোনদারেভ তাঁর অটল অবস্থানের কথা জানিয়ে এ যুদ্ধকে ইউক্রেনীয় জনগণের বিরুদ্ধে এবং রাশিয়ার জনগণের বিরুদ্ধে অপরাধ বলে বর্ণনা করেন। তবে, বরিস বোনদারেভের পদত্যাগের বিষয়ে মস্কো এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

এদিকে, বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, জেনেভা কার্যালয়ে অন্য দেশগুলোর মিশনে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন বোনদারেভ। সেখানে তিনি প্রতিবেশী দেশ ইউক্রেনে রুশ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। একই সঙ্গে ২০ বছর কূটনীতিক হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর পদত্যাগের বিষয়টিও নিশ্চিত করেছেন।

পদত্যাগপত্রে বোনদারেভ লিখেছেন, ২০ বছরের কূটনৈতিক জীবনে তিনি দেশের বৈদেশিক নীতির নানা মোড় পরিবর্তন দেখেছেন। কিন্তু এই বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে যা (আগ্রাসন) শুরু হয়েছে, তাতে নিজের দেশকে নিয়ে এতটা লজ্জায় তিনি আর কখনও পড়েননি।

কিন্তু ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বোনদারেভ মর্মাহত হলেও তিনি বলেন, রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে তাঁর সঙ্গে সহমত মানুষের সংখ্যা খুব একটা নেই বলেই তিনি মনে করেন।বোনদারেভ বলেন, আমি মনে করি তাদের বেশিরভাগই, সংখ্যাগরিষ্ঠই রাশিয়া সরকারের প্রচারণা ও উপরমহল থেকে তাদেরকে যা বলা হয় সেটিই তারা অনুসরণ করে।

বোনদারেভের মতে, যাঁরা এই যুদ্ধের পক্ষে রয়েছেন, তাঁরা শুধু একটা জিনিসই চান, তা হলো সারা জীবনের জন্য ক্ষমতা আঁকড়ে রাখা, জমকালো প্রাসাদে বসবাস করা, প্রমোদতরিতে করে ঘুরে বেড়ানো এবং অসীম ক্ষমতা ও তাঁদের কাজের জন্য পুরোপুরি দায়মুক্তি উপভোগ করা।

নিজের পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা উল্লেখ করে বোনদারেভ বলেন, তাঁর এই পদক্ষেপ একটি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা। এতে কোনো কিছু পরিবর্তন হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তা ছাড়া, এই পদক্ষেপের ফলে রাশিয়া তাঁকে এরই মধ্যে দেশদ্রোহী ভাবতে শুরু করেছে- এমনটিও মনে করেন বলে জানিয়েছেন বোনদারেভ।


আরও খবর



কোনো ষড়যন্ত্রই জাতিকে পিছিয়ে দিতে পারবে না : কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জনকল্যাণমুখী সৎ-সাহসী ও দেশপ্রেমিক নেতা রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্বে থাকলে, কোনো ষড়যন্ত্রই জাতিকে পিছিয়ে দিতে পারবে না। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পদ্মা সেতু তার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত।

আজ শুক্রবার এক বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের একথা বলেন।

বিবৃতিতে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সকল প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে সফলভাবে পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া বক্তব্য নিয়ে বিএনপি মহাসচিব ও তাদের নেতারা দূরভিসন্ধিমূলক ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারায় লিপ্ত রয়েছে। এমনকি বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তথাকথিত হত্যার হুমকির বয়ান তৈরি করছে বিএনপি।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তাঁর বিবৃতিতে স্পষ্ট করে বলেন, বিরোধী পক্ষকে দমন ও পীড়নের রাজনীতি আওয়ামী লীগ করে না। বরং বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বেই ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে বিএনপির হাত ধরেই হত্যা-ক্যু- ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক পক্ষকে নির্মূল করার অপরাজনীতি শুরু করা হয়।

এখনো এই চিহ্নিত মহল ক্রমাগতভাবে দেশের স্বার্থ ও জনকল্যাণ বিরোধী বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে দেশবিরোধী এই গোষ্ঠীর মুখোশ উন্মোচন ও জনগণকে সতর্ক করতে চেয়েছেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা একজন স্বপ্নবান মানুষ, যিনি বাংলার মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিরলসভাবে স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মন্তরে বাংলার মানুষ শেখ হাসিনার মহিমান্বিত নেতৃত্বকে মূল্যায়ন করবে।

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার রাজনৈতিক সততা, সাহসিকতা, নিষ্ঠা ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আজ তাঁকে বিশ্বসভায় এক অনন্য সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে অভিষিক্ত করেছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

গত চার দশকে বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, তা একমাত্র শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই অর্জিত হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাঁর বিবৃতিতে আরো বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন- অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির অভিযাত্রায় এগিয়ে যাচ্ছে, আগামীতেও এগিয়ে যাবে। কোন প্রকার ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার অগ্রগতির এই গতিধারা থামাতে পারবে না।


আরও খবর



নগরজুড়ে কৃষ্ণচূড়া-সোনালুর রূপের অঞ্জলি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তপ্ত গ্রীষ্মের এক পশলা বৃষ্টিতে প্রাণ ফিরছে গাছে গাছে। নগরীর রুক্ষ প্রকৃতিতেও যেন এখন জীবনের স্পন্দন। কৃষ্ণচূড়া, রাঁধাচূড়া, সোনালু, জারুলে সেজেছে রাজধানী ঢাকা। কোটি মানুষের বোঝা হালকা হয়ে কয়েকটা দিন যেন হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছে প্রকৃতি। সেজেছে আপন ঢঙে, আপন রঙে। ছুটি শেষে নগরবাসী যখন ফিরছে তখন গাছে গাছে মন রাঙানো কৃষ্ণচূড়া, বকুল, জারুল যেন স্বাগত জানাচ্ছে প্রাণ খুলে।