আজঃ রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪
শিরোনাম

জাজিরায় ৩২ জেলে পরিবারের মাঝে বকনা বাছুর বিতরণ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
শরীয়তপুর প্রতিনিধি

Image

শরীয়তপুরের জাজিরায় ৩২ জেলে পরিবারের মাঝে গরুর বকনা বাছুর বিতরণ করেছে জাজিরা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয়।

ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় মা ইলিশ ও জাটকা আহরণ থেকে বিরত থাকা জেলেদের মাঝে বিকল্প কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে এ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি ) দুপুরে জাজিরা উপজেলা পরিষদ চত্বরে উক্ত গরুর বকনা বাছুর বিতরণ কার্যক্রম হয়। জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া ইসলাম লুনা  এর সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোবারক আলী সিকদার, জাজিরা উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ ইমন মোল্লা, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ  আমিনুল হক, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার এবং জাজিরা পৌরসভার মেয়র মো: ইদ্রিস মাদবর।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ বিথী রানী বিশ্বাস  এবং জাজিরা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রতন বেপারী, এসময় জেলেদের বাছুর বিতরণ করার মাধ্যমে মৎস্য অধিদপ্তরের বিকল্প কর্মসংস্থান নিয়ে ব্রিফিং করেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো: রেজাউল শরীফ।


আরও খবর



যেসব জেলায় হতে পারে শিলাবৃষ্টি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

দেশের আট বিভাগের বহু এলাকায় ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও শিলা বৃষ্টিও হতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) সকালে দেওয়া আবহাওয়ার ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাস থেকে এ তথ্য জানা যায়।

পূর্বাভাসে বলা হয়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এ অবস্থায় ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগের দুএক জায়গায় অস্থায়ী দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টিও হতে পারে।

এছাড়া আগামীকাল বুধবার (২৭ মার্চ) সারাদেশে অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। দিন এবং রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে।

আর বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দুয়েক জায়গায় অস্থায়ী দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

গতকাল সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল মংলায় ৩৪ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রের্কড করা হয়েছে সৈয়দপুর, ডিমলা ও তেঁতুলিয়ায় ১৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর



রহমত শেষে শুরু হলো মাগফিরাতের দশদিন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ মার্চ ২০২৪ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ মার্চ ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ধর্ম ও জীবন

Image

চলছে পবিত্র রমজান মাস। এই পবিত্র মাসকে রহমত, মাগফেরাত ও নাজাতে ভাগ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) দশম রমজানের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে রহমতের দশদিন। শুরু হলো মাগফেরাতের দশদিন।

মাগফেরাত অর্থ মার্জনা, আল্লাহ তায়লার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা ও গুনাহ থেকে নিষ্কৃতি লাভ। এই সময়ে আল্লাহ বান্দাদেরকে বেশি হারে ক্ষমা করে থাকেন।

গুনাহ করা মানুষের স্বভাবজাত প্রবৃত্তি। ইচ্ছায় বা অনিচ্ছায় মানুষ গুনাহ করে থাকে। এটি খুবই স্বাভাবিক বিষয়। তবে অস্বাভাবিক বিষয় হলো গুনাহর ওপর অটল থাকা ও আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা না করা। যারা শয়তানের কুপ্ররোচনায় গুনাহ করে এবং তা থেকে ক্ষমা লাভ করতে পারে না তাদের জন্য বিশেষ সুযোগ হলো মাগফেরাতের দশদিন।

মাগফিরাতের এই সময়ে বান্দাগণ অনুতপ্ত হয়ে আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করলে তিনি ক্ষমা করেন। আল্লাহ হলেন পরম ক্ষমাশীল এবং তিনি ক্ষমা করতে ভালোবাসেন।

পুরো রমজান মাস জুড়েই আল্লাহর পক্ষ থেকে মুমিন বান্দাদের জন্য দোয়া কবুলের সুসংবাদ দেয়া হয়েছে। মহানবী সা. বলেন, তিন ব্যক্তির দোয়া ফিরিয়ে দেয়া হয় না। ন্যায়পরায়ণ বাদশা, রোজা পালনকারী যতক্ষণ না সে ইফতার করে এবং মজলুম।


আরও খবর
কুরবানি ঈদ কবে, জানাল আরব আমিরাত

মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪

শুক্রবারের বিশেষ ৪ আমল

শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪




পাকিস্তানে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ২

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের খুজদার শহরে রোববার রাতে বোমা বিস্ফোরণে অন্তত দুইজন নিহত ও পাঁচজন আহত হয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, খুজদারের ব্যস্ত শপিং এলাকা উমর ফারুক চকে শক্তিশালী বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের সময় নারী ও শিশুসহ বিপুল সংখ্যক মানুষ ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত ছিলেন। খবর ডনের।

একজন সিনিয়র অফিসার বলেছেন, বিস্ফোরণে দুজন নিহত ও আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন। পুলিশ ও অন্যান্য আইন প্রয়োগকারী বাহিনী বিস্ফোরণস্থলে পৌঁছেছে। তারা মৃতদেহ ও আহতদের খুজদার টিচিং হাসপাতালে স্থানান্তর করেছে৷

হাসপাতালের কর্মকর্তারা বলেছেন, আমরা হাসপাতালে দুটি মরদেহ ও পাঁচজন আহত ব্যক্তি পেয়েছি।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলে এসে একটি ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি)উমর ফারুক চকে রেখে পালিয়ে যায়। ধারণা করা হচ্ছে মোটরসাইকেলের আইইডিটি রিমোট কন্ট্রোল দিয়ে বিস্ফোরণ করা হয়েছে।

তাৎক্ষণিকভাবে কেউ বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি। ঘটনার তদন্ত চলছে।


আরও খবর



হিথরো বিমানবন্দরে যাত্রীবাহী ২ উড়োজাহাজের সংঘর্ষ

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বড় হিথরো বিমানবন্দরে দুটি যাত্রীবাহী উড়োজাহাজের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উড়োজাহাজ দুটির পাখা ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং অল্পের জন্য বেঁচে যান অন্তত ১২১ যাত্রী। রোববার (৭ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তথ্য মতে, শনিবার স্থানীয় সময় সকালের দিকের বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালের কাছে রানওয়েতে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের বোয়িং ৭৮৭-৯ সিরিজের উড়োজাহাজ ও ভার্জিন আটলান্টিক এয়ারলাইনসের  উড়োজাহাজের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে  ১২১ যাত্রী থাকলেও ভার্জিন এয়ারলাইনসে কোন যাত্রী ছিল না। 

এক বিবৃতিতে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ বলেছে, আমাদের উড়োজাহাজের ইঞ্জিনিয়ারিং টিম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখছে। যাত্রীদের যেন অসুবিধা না হয়, তাই আমরা আরেকটি বিকল্প ফ্লাইট দিয়েছি।

অন্যদিকে, ভার্জিন আটলান্টিকের একজন মুখপাত্র বলেছেন, আমরা একটি পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত শুরু করেছি। আমাদের ইঞ্জিনিয়ারিং দল উড়োজাহাজের মেইনটেন্যান্স পরীক্ষা করে দেখছে।

হিথরো বিমানবন্দরের একজন মুখপাত্র জানান, কোনো যাত্রী আহত হননি। তবে এ ঘটনায় বিমানবন্দরের স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনা বিঘ্ন ঘটতে পারে। জরুরি সেবা বিভাগসহ অন্য অংশীজনেরা এ নিয়ে কাজ করছে।


আরও খবর



সময়মতো কমলাপুর ছাড়ছে ট্রেন, খুশি যাত্রীরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ এপ্রিল ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ এপ্রিল ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

আর মাত্র এক বা দুইদিন পরেই ঈদ। পরিবারের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন রাজধানীবাসী। অনেকেই যাতায়াতের মাধ্যম হিসেবে ট্রেনকে বেছে নিয়েছেন। ঈদ উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করেছিল বাংলাদেশ রেলওয়ে। যারা অগ্রিম টিকিট সংগ্রহ করেছিলেন তারা এখন ভ্রমণ করতে পারছেন। এবার ট্রেনে ঈদ যাত্রায় খুশি যাত্রীরা। দেখা যায়নি ভোগান্তির তেমন কোন চিত্র, ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয় নেই। সময়মতো গন্তব্যের উদ্দেশ্যে স্টেশন ছেড়ে যাচ্ছে ট্রেন।

সোমবার (৮ এপ্রিল) সকালে সরেজমিনে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে দেখা যায়, একের পর এক ট্রেন নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে যাচ্ছে। ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম রুটে যাতায়াতকারী মহানগর প্রভাতী ট্রেনটি স্টেশন ছাড়ার সময় ছিল ৭টা ৪৫ মিনিটে৷ ট্রেনটি এক মিনিটও বিলম্ব না করে নির্দিষ্ট সময়েই স্টেশনের প্ল্যাটফর্ম ত্যাগ করে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন সূত্র জানায়, সকাল থকে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মহানগর প্রভাতী, বালাকা, ধুমকেতু, পারাবত, সুন্দরবন, নীলসাগর এক্সপ্রেসসহ মোট ১১ টি ট্রেন বিভিন্ন গন্তব্যে স্টেশন ত্যাগ করেছে।

ঢাকা রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার বলেন, ট্রেনের কোনো সিডিউল বিপর্যয় নেই। এমনকি ট্রেন যাত্রায় বিলম্বও নেই। প্রতিটি ট্রেন তার নির্দিষ্ট সময়সূচি অনুযায়ী স্টেশন ত্যাগ করছে। ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি এবং সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এবারের ঈদ যাত্রায় রেলওয়ের ব্যবস্থাপনায় খুশি সাধারণ যাত্রীরা। তারা বলছেন, ট্রেনে ঈদ যাত্রায় আগের যেকোনো সময়ের তুলনায় এবার স্বস্তিদায়ক৷ একদিনে ট্রেন যেমন সময়মতো ছাড়ছে অন্যদিকে বিনা টিকিটের কোন যাত্রী ভ্রমণ করতে পারছেন না। রেলওয়ের ব্যবস্থাপনায় যাত্রাও ভালো হচ্ছে।

বুড়িমারি এক্সপ্রেসে লালমনিরহাট যাবেন আশরাফুল ইমন৷ এবারের ঈদ যাত্রা সন্তোষজনক জানিয়ে তিনি বলেন, এবারের ব্যবস্থাপনা খুবই ভালো লেগেছে৷ বিশেষ করে বিনা টিকিটের যাত্রী ঠেকাতে এখানকার ব্যবস্থাপনা প্রশংসনীয়৷ এসে দেখলাম সবগুলো ট্রেনই সময়মতো ছেড়ে যাচ্ছে৷ আগে বিলম্বে ট্রেন ছাড়ার অহরহ ঘটনা ঘটলেও এবারের ঈদে সেটি দেখা যাচ্ছে না।

ট্রেনের আরেক যাত্রী আকলিমা আক্তার বলেন, গত ঈদে বাড়ি যেতে অনেক ভেগান্তিতে পোহাতে হয়েছিল। এবার স্টেশনে এসে ভালো লাগছে। ব্যবস্থাপনা ভালো। সবার ঈদযাত্রা আনন্দের হোক।


আরও খবর