আজঃ মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম

আরও এক হজযাত্রীর মৃত্যু, সৌদি পৌঁছেছেন ৫৮১২১ জন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

সৌদি আরবে আরও একজন বাংলাদেশি হজযাত্রী মারা গেছেন। গত রবিবার (২ জুন) হজযাত্রী মাকসুদ আহমেদ (৬১) মদিনায় মারা যান। তার বাড়ি কক্সবাজারের চকরিয়ায়। এ নিয়ে সৌদি আরবে ১০ বাংলাদেশি হজযাত্রী মৃত্যুবরণ করেন।

এছাড়া হজ ফ্লাইট শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত ৫৮ হাজার ১২১ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। মঙ্গলবার (৪ জুন) হজ পোর্টালে আইটি হেল্পডেস্কের প্রতিদিনের বুলেটিন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সোমবার দিনগত রাত ৩টা পর্যন্ত সর্বমোট ৫৮ হাজার ১২১ হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজযাত্রী ৩ হাজার ৭৪৭ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৪ হাজার ৩৭৪ জন। এখন পর্যন্ত সৌদি আরব যাওয়ার ফ্লাইট পরিচালিত হয়েছে ১৪৯টি।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১৬ জুন এবারের হজ অনুষ্ঠিত হবে। হজযাত্রীদের সৌদি আরবে যাওয়ার প্রথম ফ্লাইট গত ৯ মে শুরু হয়। আগামী ১২ জুন পর্যন্ত সৌদি যাওয়ার ফ্লাইট চলবে। হজ শেষে ২০ জুন ফিরতি ফ্লাইট শুরু হবে। ফিরতি ফ্লাইট শেষ হবে আগামী ২২ জুলাই।

এবার সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনা মিলিয়ে মোট ৮৫ হাজার ২৫৭ জন হজ করতে যাবেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার ৫৬২ জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এজেন্সির মাধ্যমে ৮০ হাজার ৬৯৫ জন হজ করতে যাবেন।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত ১০ জন বাংলাদেশি হজযাত্রী সৌদি আরবে মারা গেছেন। মৃত্যুবরণ করা ১০ জনই পুরুষ। মক্কায় সাত এবং মদিনায় তিনজন বাংলাদেশি হজযাত্রী মারা গেছেন।


আরও খবর
দেশে ফিরলেন ৫৯ হাজার ৩৩০ হাজি

মঙ্গলবার ০৯ জুলাই ২০২৪




মতিউরের বিরুদ্ধে গাজীপুরে বিপুল পরিমাণ সম্পদ ‘জবরদখলের’ অভিযোগ

প্রকাশিত:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:বুধবার ২৬ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুর প্রতিনিধি

Image

বাপ-দাদার জমি রক্ষায় দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন গাজীপুরের শেখ মোক্তার হোসেন নামের এক নারী। কিন্তু জালিয়াতি ও মিথ্যা মামলা দিয়ে পৈত্রিক সম্পত্তির ৬৭ শতাংশ দখল করে নিয়েছেন ছাগলকাণ্ডে আলোচিত মতিউর রহমান ও তার স্ত্রী লায়লা কানিজ। এমন অভিযোগ মোক্তার হোসেনের।

তিনি বলেন, ১৯৭৪ সালে আমার বাবা-মা মিলে জমিটি কিনেছিল। আমরা এত বছর ধরে খাচ্ছি, হঠাৎ করে তারা জাল দলিল ও জাল পর্চাও বানিয়ে ফেলে। আমার নামে ৪টা মামলাও দেয়। এর মধ্যে ৩টি জমি সংক্রান্ত হলেও একটি ছিল ডাকাতির মামলা। তবে সবগুলো মামলার রায় আমার তরফেই পেয়েছি। এডিসি আপিল করেছিল কিন্তু তাতেও রায় আমিই পেয়েছি। তবে রায় পেলেও তারা আমার জমি দিচ্ছে না।

এদিকে, মতিউরের ভূমি দখল নিয়ে মুখ খুলছেন স্থানীয় অনেকেই। তারা জানিয়েছেন, কম দামে জমি বিক্রি করতে রাজি না হলে জোর করে তা দখলে নেন সাবেক রাজস্ব বোর্ডের সদস্য মতিউর। এভাবে দখল করা জমিতে গাজীপুরের খিলগাঁও এলাকায় অবৈধভাবে গড়ে তোলেন আপন ভূবন রিসোর্ট অ্যান্ড পিকনিক স্পট

যদিও জমি দখলের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন রিসোর্ট ম্যানেজার মো. রাজিব। তার দাবি, আমিতো দেড় বছর ধরে এখানে আছি, কখনো কেউ তো এমন কিছু বলেনি। দখল হলে বা কেউ অভিযোগ করলে তো পুলিশ আসতো, কিন্তু কখনো তো এমন কিছুই হয়নি।

পূবাইল ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, মতিউর রহমান, তার স্ত্রী ও ছেলে-মেয়ের নামে সেখানে রয়েছে একশ ৩৯ শতাংশ জমি। এছাড়া টঙ্গীতে তার ভাইয়ের নামে রয়েছে, তৈরি পোশাক কারখানা।


আরও খবর



ছাগলকাণ্ডে আলোচিত মতিউরের দায়িত্বে সুরেশ চন্দ্র

প্রকাশিত:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ২৪ জুন 20২৪ | অনলাইন সংস্করণ
নিজস্ব প্রতিবেদক

Image

ছাগলকাণ্ডে আলোচনায় আসার পর জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সদ্য সরিয়ে দেওয়া মতিউর রহমানের স্থলে বিসিএস (শুল্ক ও আবগারি) ক্যাডারের কর্মকর্তা সুরেশ চন্দ্র বিশ্বাসকে অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৪ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মকিমা বেগম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপন সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের সদস্য (টেকনিক্যাল) সুরেশ চন্দ্র বিশ্বাসকে ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্ট পদে অতিরিক্ত দায়িত্ব প্রদান করা হলো। যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনে এই আদেশ জারি করা হয়েছে।


আরও খবর



স্পেনকে আটকানোর ছক চূড়ান্ত করেছে জার্মানি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

স্পেন ও জার্মানি শেষ ষোলোতে ওঠার পরই দুই দলের সম্ভাব্য কোয়ার্টার ফাইনাল নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল সর্বত্র। আনুষ্ঠানিকভাবে এই দুই দলের কোয়ার্টার নিশ্চিত হওয়ার পর যুদ্ধের দামামা বাজতে শুরু করেছে দুই দলের শিবিরে। সাম্প্রতিক সময়ে স্পেনের সঙ্গে যেন পেরে উঠছে না জার্মানি। রয়েছে ৬-১ গোলে হারার দগদগে স্মৃতিও।

এত সব সমীকরণকে সামনে রেখে আগামীকাল শুক্রবার হাইভোল্টেজ ম্যাচে স্পেনের বিপক্ষে মাঠে নামবে জার্মানি। স্পেনকে আটকানোর পরিকল্পনা ইতোমধ্যে করে ফেলেছে স্বাগতিকরা, এমনটাই জানালেন জার্মান উইঙ্গার লেরয়ে সানে।

ম্যাচ পূর্ববর্তী এক সংবাদ সম্মেলনে এসে এই বায়ার্ন মিউনিখ তারকা বলেন, আমরা জানি, স্পেন উপরে উঠে আক্রমণ করে। কিন্তু এতে করে অন্যদের জন্য স্পেসও তৈরি হয়ে যায়। শুক্রবার আমরা দেখবো, তারা কীভাবে খেলে। তারা প্রচুর আত্মবিশ্বাস নিয়ে খেলে যাচ্ছে। কিন্তু তারাও জানে, আমাদের বিপক্ষে এটা করা সহজ হবে না। দুইটা শক্তিশালী দল একে অন্যের মুখোমুখি হচ্ছে। যদি খেলার গতিবেগ আমাদের সঙ্গে থাকে তাহলে আমরা তাদেরকে পরাজিত করতে পারবো।

স্পেনকে আটকানোর পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই সাবেক ম্যানচেস্টার সিটি তারকা বলেন, দলের ডিফেন্ডারদের সাহায্য করাটাও আমাদের কাজ। এতে করে বল দ্রুত তাদের থেকে কেড়ে নিতে সহায়তা করবে আমাদের। এটা দলের উপরও ইতিবাচক ভূমিকা রাখে। অনেকটা নিরাপত্তা দেওয়ার মতো। এটাতে প্রমাণ করে আমরা সবাই দলের হয়ে রক্ষণভাগ সামলাবো। যাতে গোল না হজম করি।

স্পেন এই টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি গোল করা দল। তাদের বিপক্ষে আক্রমণ করে খেলাটা সহজ হবে না। এ বিষয়ে সানে বলেন, স্পেন খুব চাপ সৃষ্টি করে খেলতে ভালোবাসে। বিশেষ করে যখন তাদের পায়ে বল থাকে, তখন দ্রুতই সামনে এগোতে থাকে। তাদের দ্রুতগতির দুই উইঙ্গার আছে। যা তাদের বাড়তি সুবিধা দিচ্ছে। আমরা তাদের শক্তি-সামর্থ্য সম্পর্কে জানি।

ডেনমার্কের বিপক্ষে শেষ ষোলোর ম্যাচে একাদশে ছিলেন সানে। এই ম্যাচে সানে থাকবেন কিনা তা কেবল কোচই বলতে পারেন। কেননা, গ্রুপ পর্বের ম্যাচে সানেকে একাদশে রাখেননি কোচ জুলিয়ান নাগলসম্যান।


আরও খবর



নির্বাচনী সমাবেশে ট্রাম্পের ওপর গুলি, স্নাইপারসহ নিহত ২

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ জুলাই ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের পেনসিলভানিয়ায় নির্বাচনী সমাবেশ করতে গিয়ে প্রাণঘাতী হামলার শিকার হয়েছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ও রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। সমাবেশে বক্তৃতা দেওয়ার সময় দূরবর্তী একটি ভবনের ছাদ থেকে তার ওপর স্নাইপার হামলা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সৌভাগ্যক্রমে হামলায় অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন ট্রাম্প। তবে, প্রাণ হারিয়েছেন সমাবেশে উপস্থিত এক সাধারণ নাগরিক। আর মঞ্চ থেকে নামিয়ে নেওয়ার সময় ট্রাম্পের ডান গাল ও কান থেকে রক্ত ঝরতে দেখা গেছে। এদিকে ঘটনার কিছুক্ষণ বাদেই হামলাকারী স্নাইপারও নিহত হয়েছেন সিক্রেট সার্ভিস অ্যাসল্ট টিমের হাতে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যায় চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটে। সিএনএন, নিউইয়র্ক পোস্ট, বিবিসি, রয়টার্সসহ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম থেকে রোববার (১৪ জুলাই) নিশ্চিত হওয়া গেছে ঘটনার ব্যাপারে। পাওয়া গেছে ঘটনার বেশ কয়েকটি ফুটেজও।

সিক্রেট সার্ভিস টিম জানিয়েছে, ট্রাম্প নিরাপদ আছেন। প্রচারণার একজন মুখপাত্রও বলেছেন, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে, তিনি সুস্থ আছেন।

নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পিটসবার্গ থেকে প্রায় ৩৫ মাইল উত্তরে বাটলারে আয়োজিত ট্রাম্পের নির্বাচনী সমাবেশে অন্তত ৯টি গুলির শব্দ শোনা গেছে। গুলির শব্দ শোনার সঙ্গে সঙ্গেই সিক্রেট সার্ভিস এজেন্টরা তাকে ঘিরে রেখে দ্রুত মঞ্চ থেকে নামিয়ে নেন। তবে সমাবেশে দর্শকের ভিড়ে থাকা এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এছাড়া হামলাকারীকেও গুলি করে হত্যা করেছেন নিরাপত্তারক্ষীরা।

আইন প্রয়োগকারী সূত্র, প্রত্যক্ষদর্শী এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা ভিডিও অনুসারে, প্রাথমিক প্রতিবেদনগুলো থেকে জানা যায় যে সমাবেশের বাইরে একটি বিল্ডিংয়ের ছাদে একজন স্নাইপার ট্রাম্পকে টার্গেট করেছিলেন।

একজন ট্রাম্প সমর্থক বিবিসিকে জানিয়েছেন, সমাবেশের নিরাপত্তা ঘেরের বাইরে একটি ভবনের ছাদে রাইফেল সজ্জিত একজন স্নাইপারকে দেখেছেন তিনি। লোকটিকে গুলি চালাতে দেখেছিলেন আরও কয়েকজন ব্যক্তি। সমাবেশের বাইরে একটি ভবনে পার্টি করছিলেন তারা। পরবর্তীতে ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া এক ভিডিও ফুটেজেও দেখা গেছে, বন্দুকধারী একটি গুদামের ছাদে মৃত অবস্থায় পড়ে আছেন।

ঘটনার পর সিক্রেট সার্ভিসের একজন মুখপাত্র এক এক্স পোস্টে বলেন, সিক্রেট সার্ভিস প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করেছে এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এখন নিরাপদে আছেন। সিক্রেট সার্ভিস এ ঘটনার তদন্ত করবে এবং আরও তথ্য পাওয়া গেলে প্রকাশ করা হবে।

এদিকে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র এক্সে তার বাবার আহত মুষ্টিবদ্ধ একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, আমেরিকাকে রক্ষার লড়াইয়ে তিনি কখনো থামবেন না।


আরও খবর



বিশ্বকাপের সুপার এইট নিশ্চিত করলো বাংলাদেশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ | অনলাইন সংস্করণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

Image

সুপার এইট নিশ্চিত নেপালের বিপক্ষে জয় দরকার বাংলাদেশের। এমন ম্যাচে শুরু থেকে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ১৯ ওভার ৩ বলে ১০৬ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু এমন ছোট টার্গেটে খেলতে নেমে মাত্র ২৬ রানে ৫ উইকেটে হারিয়ে দিশেহারা নেপাল।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামে টাইগাররা। প্রথম ওভার থেকেই দারুণ বল করে নেপাল। সোমপাল কামির প্রথম ওভারেই শূন্যরানে আউট হন তানজিদ হাসান তামিম।

নেপালের স্পিনে ধসে যায় বাংলাদেশ। তারা যেন ঘোষণা দিয়ে স্পিন দিয়ে ধসিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশকে। তবে পেসার সোমনাথ কামি ৩ ওভারে ১০ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন। দিপেন্দ্র সিং নেন ২ উইকেট। অধিনায়ক রোহিত পাওদেল ও সন্দীপ লামিচানে দুটি করে উইকেট দখল করেন।

বাংলাদেশ ১০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৫৭ রানে ব্যাট করছে। ক্রিজে থাকা সাকিব ১৫ রান করেছেন। তার সঙ্গী জাকের। এর আগে ওপেনার তানজিদ তামিম গোল্ডেন ডাক মারেন। পরেই আউট হন তিনে নামা নাজমুল শান্ত (৪)। ৭ রানে ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশ ২১ রানে ৩ উইকেট হয়ে যায়। লিটন আউট হন ১০ রান করে।

ক্রিজে এসেই তাওহীদ হৃদয় আউট হলে বড় বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। হৃদয় ৯ রান করে আউট হন। বাংলাদেশ ৫.৪ ওভারে ৩০ রানে হারায় ৪ উইকেট। এরপর হাল ধরার বার্তা দেয়া মাহমুদউল্লাহ রান আউট হন। তিনি ১৩ রান যোগ করেন।

দ্বাদশ ওভারে এলবিডব্লু হয়ে পাউডলের দ্বিতীয় শিকার হন সাকিব। ২২ বলে ১৭ রান এসেছে তার ব্যাট থেকে। ১৪তম ওভারে লামিচেনের প্রথম বলে তানজিম হাসান সাকিবকে এলবিডব্লুর ফাঁদে একবার আউট দেন আম্পায়ার। রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান সেবার। পরের বলেই আবার বোল্ড হয়ে ফেরেন ৩ রানে।

১০০ রানের আগেই গুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা জেগে ওঠে তখন। তবে জাকের আলীর ১২, শেষ দিকে রিশাদ হোসেনের ১৩ ও তাসকিন আহমেদের ১৩ রানের কল্যাণে ১৯.৩ ওভারে ১০৬ রানে অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ। আইরি, লামিচান, কামি ও পাউডেল প্রত্যেকে নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।


আরও খবর